Friday 19th of August 2022
Home / চাকুরি/ ক্যারিয়ার / বিএআরসি প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা পদে সরাসরি নিয়োগে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ

বিএআরসি প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা পদে সরাসরি নিয়োগে হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ

Published at আগস্ট ২২, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) এর প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা পদে সরাসরি নিয়োগের ওপর স্থগিতাদেশ দিয়েছে সুপ্রীম কোটের হাইকোর্ট ডিভিশন। গত ১৬ আগস্ট বিচারপতি তারিকুল হাকীম ও বিচারপতি এসএম কুদ্দুস জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ আগামী চার মাসের জন্য এ স্থগিতাদেশ প্রদান করেন এবং নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখিত সবোর্চ্চ ৩৯ বছর বয়স সীমা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না সে বিষয়ে রুলনিশি জারি করেন। অভিযোগ হচ্ছে, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল এর কর্মচারী চাকুরী প্রবিধানমালা ২০১৯ এ প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বয়সের সীমা নির্ধারণে এনএআরএসভূক্ত প্রতিষ্ঠানের সাথে বড় ধরনের অসামঞ্জস্যতা সৃষ্টি করা হয়েছে। উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীনে জাতীয় কৃষি গবেষণা ব্যবস্থা বা এনএআরএসভূক্ত ১৭টি প্রতিষ্ঠানের তদারক(মনিটরিং) সংস্থা হিসেবে কাজ করে।

গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ বিএআরসি প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তার ১৩(তের) টি শুন্য পদ সহ বিভিন্ন পদে সরাসরি নিয়োগের আবেদন চেয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় নিয়োগ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট এর উর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (সিনিয়র সায়েন্টিফিক অফিসার) রেজোয়ান মোল্লা সংক্ষুদ্ধ হয়ে বিজ্ঞপ্তির উপর রিট দায়ের করেন। তার দায়েরকৃত রিটের বিপরীতে এ আদেশ দেন আদালত। জনাব রেজোয়ান মোল্লার পক্ষে রিটের শুনানি করেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন।

সংক্ষুদ্ধ বিজ্ঞানী রেজোয়ান মোল্লা জানান, কৃষি মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) এর কর্মচারী চাকরী প্রবিধানমালা ২০১৯ অনুযায়ী প্রকাশিত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বয়স সবোর্চ্চ ৩৯ বছর হিসাবে উল্লেখ করা হয়েছে। যা একই প্রতিষ্ঠানের পূর্বের চাকুরী প্রবিধানমালার সম্পূর্ণ বিপরীত। ১৯৮৯ সালের প্রবিধানমালা অনুযায়ী এটি ছিল সর্বনিম্ন ৩৯ বছর। দীর্ঘ ৪৮ বছর ধরে প্রচলিত চাকুরী প্রবিধানমালায় হঠাৎ আনা এই পরিবর্তনের কারণে তারা এই এপেক্স বডিতে উচ্চতর পদে চাকুরীর আবেদনের সুযোগ হারিয়েছেন। তিনি বিজ্ঞানী ও কর্মকর্তারা পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে বয়সের অসংগতি নিরসন ও জাতীয় কৃষি গবেষণা ব্যবস্থা বা এনএআরএসভূক্ত প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি অভিন্ন প্রবিধানমালা প্রণয়নের দাবী জানান।

জাতীয় কৃষি গবেষণা সিস্টেভূক্ত (এনএআরএস) সহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের চাকুরী প্রবিধানমালায় প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে উল্লেখিত সর্বোচ্চ বয়স বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের চাকুরী প্রবিধানমালায় উল্লেখিত সর্বোচ্চ বয়সের চেয়ে বেশী। যেমন-বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ পাট গবেষণা ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ পশুসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ ফলিত পুষ্টি গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব বায়োটেকনোলজি, বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের চাকুরী প্রবিধানমালায় প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে উল্লেখিত সর্বোচ্চ বয়স তদূর্ধ্ব ৩৯ বছর হলেও এনএআরএসভূক্ত প্রতিষ্ঠানের মনিটরিং ও পামর্শক প্রতিষ্ঠান বিএআরসির উল্লেখিত বয়স সর্বনিম্ন ৩৯ বছর। এত করে অপেক্ষাকৃত কম বয়স্ক ও অনভিজ্ঞদের তদারক সংস্থা হিসেবে পরিচিত বিআরসিতে নিয়োগ লাভের সুযোগ তৈরি হলো যাতে করে প্রতিষ্ঠানটির দীর্ঘদিনের সুনাম নষ্ট হওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে।

This post has already been read 3090 times!