Monday 28th of November 2022
Home / চাকুরি/ ক্যারিয়ার / ‘ফোয়াব সম্মাননা ২০২২’ পেলেন ফারহীন রিশতা বিনতে বেনজীর

‘ফোয়াব সম্মাননা ২০২২’ পেলেন ফারহীন রিশতা বিনতে বেনজীর

Published at জানুয়ারি ২৪, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক: সফল নারী উদ্যোক্তা হিসেবে ফিসফার্ম ওনার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ কর্তৃক ‘ফোয়াব সম্মাননা ২০২২’ অর্জন করেছেন শাবানা ফার্ম  প্রোডাক্টস -এর পরিচালক‍ ফারহীন রিশতা বিনতে বেনজীর। বটমক্লিন রেসওয়ে পদ্ধতিতে (সেমি অর্গানিক যা সম্পূর্ণ নিরাপদ) মাছ উৎপাদনে সফলতার জন্য একজন নারী উদ্যোক্তা হিসেবে তিনি উক্ত পুরস্কার পেয়েছেন। তিনি বাংলাদেশ পুলিশ -এর মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ -এর সুযোগ্য বড় কন্যা।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) রাজধানীর বিএমএ মিলনায়তনে “জাতীয় মৎস্য কংগ্রেস ও FOAB সম্মাননা ২০২২” শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি এসিআই এগ্রিবিজনেস ডিভিশন -এর প্রেসিডেন্ট ড. এফএইচ আনসারী ফারহীন রিশতা বিনতে বেনজীর -এর হাতে উক্ত পুরস্কার তুলে দেন। অনুষ্ঠানের কারিগরি সহযোগিতায় ছিল মৎস্য অধিদপ্তর ও ফিসারিজ প্রোডাক্ট বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল (এফপিবিপিসি), বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

বিশিষ্ট মৎস্যবিদ, সীফুড হ্যাচাপ ও গ্যাপ বিশেষজ্ঞ, ডিপ সী ফিসার্স লিমিটেড (র‌্যাংগস গ্রুপ) -এর পরিচালক সৈয়দ ইশতিয়াক -এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপক ছিলেন মৎস্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক এবং সিনিয়র মেরিন এডভাইজর (ডব্লিউসিএস) ড. সৈয়দ আরিফ আজাদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে মৎস্য অধিদপ্তরের সাবেক প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা খন্দকার হাবিবুর রহমান, আলোচক হিসেবে মৎস্য অধিদপ্তরের সাবেক কাঁকড়া ও কুচিয়া প্রকল্প পরিচালক ড. বিনয় কুমার চক্রবর্তী উপস্থিত ছিলেন। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মৎস্য উন্নয়ন ও সমবায় ব্যাক্তিত্ব, ফোয়াব প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোল্লা শামসুর রহমান শাহীন।

শাবানা ফার্ম প্রোডাক্টস বৃহত্তর  এগ্রো সেক্টর মূলত একটি সমন্বিত খামার। প্রতিষ্ঠানটি গোপালগঞ্জ জেলার সদর  থানাধীন বৈরাগী টোল, সাহাপুর ইউনিয়নে অবস্থিত। প্রায় ২০০  বিঘা জমির উপর প্রতিষ্ঠিত শাবানা ফার্ম প্রোডাক্টস ২০১২ সন যাত্রা শুরু করে। প্রতিষ্ঠানটিতে পরিবেশবান্ধব ও স্বাস্থ্যসম্মত উপায়ে মৎস্য, ডেইরি, পোল্ট্রি, ফুল, ফল, ঔষধী গাছ ও নানা প্রকার সবজির চাষাবাদ করা হয়। এছাড়াও গবেষণামূলক বিভিন্ন চাষাবাদও করা হয়ে থাকে ফার্মটিতে।

শাবানা ফার্ম প্রোডাক্টস ৩০০ শত লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে। বিশ্বের সবচেয়ে আধুনিক পদ্ধতিতে (বটমক্লিন রেসওয়ে পদ্ধতিতে) মাছ চাষ হয় এখানে , চাষকৃত মাছের প্রজাতিগুলোর মধ্যে শিং, পাবদা, গুলশা , কার্প এবং শোল অন্যতম। এটি একটি সেমি অর্গানিক চাষ পদ্ধতি যেখানে প্রাকৃতিক ভেষজ নিম এবং প্রোবায়োটিক ব্যাবহার করা হয় যা মাছের জন্য একটি উন্নত ও স্বাস্থ্যকর পরিবেশ নিশ্চিত করে । বর্তমানে আধুনিক এই মাছ চাষ পদ্ধতিটি অভিজ্ঞ ফিশারিজ কনসালট্যান্ট দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে।  অর্গানিক পদ্ধতিতে মাছ, সবজি ও পোল্ট্রি উৎপাদন হয় এবং কোন ক্ষতিকর এন্টিবায়োটিক ও গ্রোথ প্রোমোটর ব্যবহার করা হয় না। শাবানা ফার্ম প্রোডাক্টস উৎপাদিত পণ্য শতভাগ স্বাস্থ্যসম্মত বলে জানায় প্রতিষ্ঠানটি। এখান থেকে প্রতি বছর প্রায় ১২০-১৫০  টন মাছ, ২০-২৫ টন সবজি ,১০০-১২০ মাংস উৎপাদন হয়।

নিম্নোক্ত লক্ষ্যে শাবানা ফার্ম প্রোডাক্টস সকল ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনা করে দেশের সামগ্রিক অর্থনীতির টেকসই প্রবৃদ্ধিতে অবদান রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ-

– স্বাস্থ্যসম্মত বিশ্বমানের নিরাপদ পণ্য উৎপাদন নিশ্চিত করণ যা ভোক্তাদের অধিকার।

– দৃষ্টি নিরাপদ বিশ্বমানের পণ্যের উৎপাদন, প্রক্রিয়া এবং বিতরণ যা করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।

– সংশ্লিষ্ট বৃহত্তর এগ্রো সেক্টরের প্রয়োজন অনুযায়ী দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়ন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি।

– সর্বোপরি একটি গতিশীল এবং চ্যালেঞ্জিং বিশ্ব বাজারের সাথে একটি সুস্থ বাণিজ্য সম্পর্ক স্থাপন।

This post has already been read 2499 times!