Wednesday 28th of February 2024
Home / সাক্ষাৎকার / নিরাপদ পোলট্রি উৎপাদনকে আমরা বিশেষভাবে গুরুত্ব দিচ্ছি -মো. মাহাবুব হাসান

নিরাপদ পোলট্রি উৎপাদনকে আমরা বিশেষভাবে গুরুত্ব দিচ্ছি -মো. মাহাবুব হাসান

Published at মার্চ ২, ২০২৩

আগামী ১৬-১৮ মার্চ রাজধানীতে অনুষ্ঠিত হবে তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো বা মেলা। তারও আগে রয়েছে দু’দিনব্যাপী (১৪ ও ১৫ মার্চ) সেমিনার। ওয়াপসা-বিবি’র সাধারণ সম্পাদক এবং ‘আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো ও সেমিনার-২০২৩’ -এর আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব জনাব মো. মাহাবুব হাসান পোলট্রি সেক্টরের মেগা এই আয়োজন এবং সমসাময়িক বিষয় নিয়ে এগ্রিনিউজ২৪.কম -এর সাথে কথা বলেছেন। সাক্ষাৎকার গ্রহণ করেছেন এগ্রিনিউজ২৪.কম সম্পাদক ও প্রধান নির্বাহী মো. খোরশেদ আলম জুয়েল। সুপ্রিয় পাঠকদের উদ্দেশ্যে সাক্ষাৎকারের চুম্বক অংশ এখানে তুলে ধরা হলো-

এগ্রিনিউজ২৪.কম: মার্চে অনুষ্ঠেয় International Poultry Show & Seminar-2023 সম্পর্কে জানতে চাই?

মো. মাহাবুব হাসান: International Poultry Show & Seminar-2023 উপলক্ষ্যে সর্বমোট ৫ দিনব্যাপী প্রোগ্রামের আয়োজন করা হয়েছে। আগামী ১৪-১৫ মার্চ রেডিসান ব্লু, ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে সেমিনার এবং ১৬-১৮ মার্চ রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোডে অবস্থিত ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় (আইসিসিবি) অনুষ্ঠিত হবে আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো যেটি সকলের জন্য উন্মুক্ত। টেকনিক্যাল সেমিনারে ইতিমধ্যে ইতিমধ্যে সাড়ে ৩শ’ গেস্ট রেজিস্ট্রেশন করেছেন।

টেকনিক্যাল সেমিনারে মোট ১৫০ জন বিদেশী অংশগ্রহণ করবেন; যার মধ্যে ৫৫ জন প্রেজেন্টার এবং ৬০ জন থাকবেন পোস্টার প্রেজেন্টার। সেখানে ১০ জন বাংলাদেশী পোস্টার প্রেজেন্টার থাকবেন ও ১০ জন বিদেশী ওরাল প্রেজেন্টটেশন দিবেন। এছাড়া প্লেনারি সেশনে ১০ জন প্রেজেন্টার আসবেন, যাদের মধ্যে ৩জন বাংলাদেশি এবং বাকী ৭ জন বিদেশি। এই ১০ জন প্লেনারি সেশনে প্রেজেন্টেশন দিবেন ইন্টার ন্যাশনাল টেকনিক্যাল সেমিনারে।

আগামী ১৬-১৮ মার্চ যে আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো অনুষ্ঠিত হবে সেটিতে অংশগ্রহণে ইচ্ছুক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে ইতিমধ্যে আমরা প্রায় ৬শ’ স্টল বিক্রি করেছি। বাংলাদেশ ছাড়াও আমেরিকা, কানাডা, আয়ারল্যান্ড, মিডল ইস্ট, ইন্ডিয়া, নেপাল, সাউথ কোরিয়া সহ প্রায় ২০টি দেশ থেকে এক্সিবিটররা সেখানে অংশগ্রহণ করবেন। পোলট্রি শো বা এক্সিবিশন চলাকালীন সময়ে সেখানে ৩ দিন ব্যাপী কুকিং কম্পিটিশন এর আয়োজন থাকবে এবং সেখান থেকে বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হবে।

মার্চের ১৬ তারিখে অনুষ্ঠেয় আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো (International Poultry Show 2023) প্রধান অতিথি হিসেবে উদ্বোধন করবেন মাননীয় কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, এমপি; বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকবেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ সচিব ড. নাহিদ রশীদ এবং গেস্ট অব ওনার থাকবেন প্রফেসর ড. রফিকুল ইসলাম যিনি সেখানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন। সমাপনী দিনে (১৮ মার্চ) উপস্থিত থাকবেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং অতিরিক্ত সচিব মহোদয়। সমাপনী দিনে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে অংশগ্রহণকারী স্টলগুলোকে পুরস্কৃত করা হবে। এছাড়াও এবারই প্রথম আমরা ওয়াপসা বিবি রিসার্চ গ্র্যান্ড (WPSA-BB Research Grand) পুরস্কারের আয়োজন করা হয়েছে। সেখানে দেশের ৮টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্স ডিগ্রীর মোট ১০ জন স্টুডেন্টকে রিসার্চ গ্র্যান্ড পুরস্কার হিসেবে প্রত্যেককে ১ লাখ করে টাকা দেয়া হবে।

এগ্রিনিউজ২৪.কম: পোলট্রি শিল্পের উন্নয়ন এবং টেকসই অবস্থানের জন্য এই ধরনের শো ও সেমিনার কতটুকু গুরুত্ব বহন করে বলে আপনি মনে করেন?

মো. মাহাবুব হাসান: অবশ্যই এই ধরনের শো ও সেমিনার পোলট্রি শিল্পের উন্নয়ন এবং টেকসই অবস্থান তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলেছে। উদাহরণস্বরুপ, একটি স্থিতিশীল এবং টেকসই পোলট্রি শিল্পের জন্য আমাদের পণ্যগুলো বিদেশে রপ্তানির বিকল্প নেই। আমরা চেষ্টা করছি ২০২৫ সনের মধ্যে যাতে আমরা পোলট্রিজাত পণ্য বিশ্বের দুয়ারে পৌঁছে দিতে পারি। কিন্তু রপ্তানির আগে আমাদের নিরাপদ ডিম ও মাংস উৎপাদনের বিষয়টিতে প্রস্তুতি নিতে হবে। তাই সেইফ বা নিরাপদ পোলট্রি উৎপাদনের বিষয়টিতে এবারের শো ও সেমিনারে আমরা বিশেষভাবে গুরুত্ব দিচ্ছি। এটিকে মূল উদ্দ্যেশ্য করেই আমাদের সেমিনার এবং শো এর প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে। নিরাপদ পোলট্রি উৎপাদনের জন্য যেসব প্রয়োজনীয় লজিস্টিক বা অন্যান্য সাপোর্টগুলোর দরকার সেগুলো পোলট্রি শো’তে বিভিন্নভাবে উপস্থাপন করা হবে। মানুষ শো’তে এসে পোলট্রির এসব যাবতীয় বিষয় জানতে ও শিখতে পারবেন।

এগ্রিনিউজ২৪.কম: প্রায় ২৫ বছর ধরে শুরু হওয়া আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো দেশের প্রান্তিক খামারিদের কীভাবে বা কতটুকু কাজে আসছে বলে আপনি মনে করেন?

মো. মাহাবুব হাসান: বিশ্বের পোলট্রি কোথায় যাচ্ছে এবং সেখানে আমাদের কতটুকু অগ্রগতি সেটি দেখতে এবং জানতে হলে কিন্তু এই ধরনের শো’তে আসতে হবে। কারণ, যারা একেবারেই প্রান্তিক খামারি তারা কিন্তু বিদেশে যেয়ে শো, বিভিন্ন টেকনোলজি বা অন্যান্য কিছু সম্পর্কে জানা ও দেখার সুযোগ নেই। এই শো’ তে অংশগ্রহণের মাধ্যমে খামারিগণ দেশেই বিদেশের বিভিন্ন আধুনিক প্রযুক্তি, জ্ঞান, তথ্য, তত্ত্ব সহ যাবতীয় বিষয় সম্পর্কে পরিচিত হতে পারবেন। ফলে সেখানে অংশগ্রহণ করে প্রান্তিক খামারিগণ বুঝতে পারবেন তাদের কোথায় কি করা উচিত।

এগ্রিনিউজ২৪.কম: আপনি একটু আগে বলেছিলেন এবারের পোলট্রি শো ও সেমিনারে নিরাপদ পোলট্রি বিষয়টিকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হবে। একটি সংগঠন হিসেবে ওয়াপসা-বিবি এখানে কি কাজটি করছে?

মো. মাহাবুব হাসান: আপনারা জানেন,  কিছুদিন আগে কৃষিমন্ত্রণালয়ের সাহায্যে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল (বিএআরসি) এর মাধ্যমে একটা রিসার্চ পেপার জনসাধারণের সম্মুখে উপস্থাপন করা হয়েছে; যেখানে দেখা গেছে আমাদের দেশের পোলট্রিতে হেভি মেটাল এবং এন্টিবায়োটিক লেভেল  বিপদজনজক মাত্রার অনেক নিচে রয়েছে। এর মাধ্যমে আমরা জানতে পেরেছি  আমাদের উৎপাদিত ডিম ও ব্রয়লার মুরগি নিরাপদ। আমরা বিষয়টিকে ভোক্তা এবং খামারিদের মাঝে স্প্রেড করছি। বিভিন্ন সভা সেমিনার আয়োজনের মাধ্যমে নিরাপদ পোলট্রি সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করে তুলছি।

এগ্রিনিউজ২৪.কম: এডুকেশন, অর্গানাইজেশন এবং রিসার্চ -এই ৩টি বিষয়কে ভিত্তি করে ওয়ার্ল্ড পোলট্রি সায়েন্স (WPSA) গড়ে উঠেছে বলে আমরা জানি। রিসার্চ বা গবেষার ক্ষেত্রে বাংলাদেশে ওয়াপসা’র সুনির্দিষ্ট অগ্রগতি কোন জায়গাটাতে বলে আপনি মনে করেন?

মো. মাহাবুব হাসান: আপনাকে আগেই বলেছি, দেশের ৮টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ১০জন ছাত্রকে রিসার্চ বা গবেষণার জন্য আমরা স্কলারশিপ দিবো। বর্তমানে আমাদের ডিমান্ড এন্টিবায়োটিক ফ্রি নিরাপদ পোলট্রি ও সুষ্ঠু বর্জ্য ব্যবস্থাপনা। আমাদের স্কলারশিপ দেওয়ার উদ্দ্যেশ্য হলো- রিসার্চ করে বের করতে পারে নিরাপদ ডিম ও মাংস উৎপাদনে করণীয়। আমাদের পোলট্রি বর্জ্যের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে তারা গবেষণা করবেন। এছাড়াও ওয়াপসা-বিবি গবেষণাভিত্তিক প্রকাশনা রয়েছে। এসব সামগ্রিক কাজগুলোতেই ওয়াপসা-বিবি অবদান রেখে চলেছে।

এগ্রিনিউজ২৪.কম: মূল্যবান সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

মো. মাহাবুব হাসান: আপনাকেও ধন্যবাদ।

This post has already been read 2245 times!