Sunday 14th of April 2024
Home / সংগঠন ও কর্পোরেট সংবাদ / বাণিজ্য সংগঠনের লাইসেন্স পেয়েছে (BAPCA) বাপকা

বাণিজ্য সংগঠনের লাইসেন্স পেয়েছে (BAPCA) বাপকা

Published at এপ্রিল ২৬, ২০২৩

বাণিজ্য সংগঠনের মহাপরিচালক মো. হাফিজুর রহমান এর কাছ থেকে লাইসেন্স গ্রহণ করছেন বাপকা সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বাণিজ্য সংগঠনের লাইসেন্স পেয়েছে বাংলাদেশ অ্যাকোয়া প্রোডাক্ট কোম্পানিজ এসোসিয়েশন (BAPCA) বা বাপকা। বুধবার (২৬এপ্রিল) রাজধানীর কাজী নজরুল ইসলাম সরনীতে অবস্থিত বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ধীন EC4J Project অফিসে আনুষ্ঠানিকভাবে বাপকা প্রতিনিধিদের হাতে উক্ত লাইসেন্স তুলে দেন বাণিজ্য সংগঠনের মহাপরিচালক মো. হাফিজুর রহমান। বাপকা’র প্রতিনিধি হিসেবে এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান, সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ তারিক সরকার, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. আফতাব আলম, কোষাধ্যক্ষ সনাতন ঘোষ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনিরুল হক খান এবং নির্বাহী সদস্য মঞ্জুর মোর্শেদ খান, জামিল হোসেন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব সুবর্ণা সরকার, এফবিসিসিআই, রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো, বাংলাদেশ ডেইরি ফার্মারস এসোসিয়েশন, বাংলাদেশ রিভার ফুয়েল ট্রেড এসোসিয়েশন প্রতিনিধিবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে বাণিজ্য সংগঠনের মহাপরিচালক মো. হাফিজুর রহমান বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় নিজে ব্যবসা করে না; কিন্তু ব্যবসা-বাণিজ্যে সহযোগিতা করে। এতে সহযোগিতা করাই বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কাজ। দেশের ব্যবসা বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও যুযোপযোগী করার জন্য বাণিজ্য সংগঠন আইন করেছে সরকার। বাণিজ্য সংগঠনগুলো যাতে কার্যকর থাকে সেজন্য যোগ্য ব্যাক্তির সমন্বয়ে সংগঠন হতে হবে। আমরা চাই দেশে যোগ্য বাণিজ্য সংগঠন গড়ে গঠুক, কোন রকম অযোগ্য ও অপ্রয়োজনীয় সংগঠন নয়।

তিনি বলেন, আমরা এই লাইসেন্স প্রদানের পূর্বে বহু যাচাই বাঁছাই করে থাকি। আমরা চাই সংগঠনগুলো কার্যকর থাকুক। তাই সংগঠনের লাইসেন্স দিতে যেমন চিন্তা-ভাবনা করি, তেমনি উপযুক্ত কারণ সাপেক্ষে বাতিল করতেও দ্বিধা না করি।

“বাণিজ্য হচ্ছে অর্থনীতির প্রাণ। রক্ত সঞ্চালন বন্ধ হয়ে গেলে যেমন প্রাণি নিস্তেজ হয়ে যায়, ঠিক তেমনি ব্যবসা বাণিজ্য ঠিক না থাকলে অর্থনীতি অচল হয়ে যায়। দেশে ব্যবসা বাণিজ্যের সম্প্রসারণ যত হবে, তত উৎপাদন ও রপ্তানি বাড়বে, দেশীয় শিল্প সুরক্ষিত থাকবে, নতুন নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। আমরা এখন উন্নয়নের মহাসড়কে আছি, আমাদের এখন এগিয়ে যাওয়ার সময়, এখানে থেমে যাওয়ার কোন সুযোগ নেই। আপনারা এই যাত্রায় গর্বিত অংশীদার। কারণ আপনার শুধু উদ্যোক্তাই নন, উদ্যোক্তাদের সংগঠিত করার জন্য কাজ করেছেন”- যোগ করেন মহাপরিচালক।

লাইসেন্স প্রাপ্তির প্রতিক্রিয়ায় বাপকা’র সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান এগ্রিনিউজ২৪.কম কে বলেন, অনেক প্রতিকূলতা, প্রতিঘাত ও ত্যাগের বিনিময়ে দীর্ঘ প্রায় ৪ বছর প্রতীক্ষার পর আজকে আমরা বাণিজ্য সংগঠনের লাইসেন্স গ্রহণ করলাম। বাপকা’র জন্য নিঃসন্দেহে এটি অনেক সুন্দর, স্বার্থক এবং আনন্দের একটি দিন। সরকারের সাথে সমন্বয় রেখে দেশের মৎস্য সেক্টরের উন্নয়নে একযোগে কাজ করে যাবে বাপকা।

উল্লেখ্য, একইদিনে বাংলাদেশ ডেইরি ফার্মারস এসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ রিভার ফুয়েল ট্রেড এসোসিয়েশন বাণিজ্য সংগঠনের লাইসেন্স প্রাপ্ত হয়।

This post has already been read 1575 times!