Tuesday 6th of December 2022
Home / পোলট্রি / ভিভ এশিয়ার চেয়েও বড় আকারে হবে ১২তম আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো সেমিনার-২০২৩

ভিভ এশিয়ার চেয়েও বড় আকারে হবে ১২তম আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো সেমিনার-২০২৩

Published at সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ১২তম আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো সেমিনার-২০২৩ থাইল্যান্ডের ব্যাংককের ভিভ এশিয়ার চেয়েও বড় আকারে আয়োজন করা হবে। আমাদের কার্যক্রম ও প্রস্তুতি সেভাবেই চলছে। আমরা এদেশের পোলট্রি খাতকে দেশের গণ্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে আরো বেশি পরিচিত করতে চাই। শুধু দেশেই নয়, আন্তর্জাতিক বাজারেও আমাদের উৎপাদিত পোলট্রি পণ্য প্রবেশ করাতে চাই। দেশের পোলট্রি খাতকে এগিয়ে নিতে আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছি এবং করবো।

শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) ওয়ার্ল্ড’স’স পোলট্রি সায়েন্স এসোসিয়েশন-বাংলাদেশ শাখা (ওয়াপসা-বিবি) ও বাংলাদেশ পোলট্রি ইন্ডাস্ট্রিজ সেন্ট্রাল কাউন্সিল (বিপিআইসিসি) সভাপতি মসিউর রহমান এর নিজ বাস ভবনে আয়োজিত ‘পোলট্রি-নাইট’ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন উপস্থিত বক্তারা। এতে দেশের পোলট্রি সংশ্লিষ্ট শিল্পোদ্যোক্তা, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, গবেষক, সরকারি-বেসরকারি উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। মূলত ওয়াপসা-বিবি ও বিপিআইসিসি সভাপতি মসিউর রহমান ও তাঁর স্ত্রী মিসেস ইয়াসমিন রহমানের ব্যাক্তিগত আমন্ত্রণে উক্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

ওয়াপসা-বিবি ও বিপিআইসিসি’র সভাপতি মসিউর রহমান বলেন, আমরা যে ফান্ড তৈরি করি সেগুলো দিয়ে বিশ্বমানের আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো ও সেমিনার আয়োজন, গ্রামের প্রান্তিক পোলট্রি, খামারিদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা, খামারিদের উন্নয়ন ও ভোক্তাদের মনস্তাত্ত্বিক উন্নয়নে কাজ করি। বিপিআইসিসি’র কাজই হচ্ছে পোলট্রি সেক্টরের সামগ্রিক উন্নয়নে কাজ করা এবং ওয়াপসা-বিবি’র কাজ হচ্ছে সায়েন্টিফিক ডেভেলপমেন্ট ও নলেজ শেয়ারিং এর কাজ করা।

বিগত কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন কারণে প্রচুর লোকসান দেয়ার জন্য এ খাতের বহু খামারি ও উদ্যোক্তা ধ্বংস হয়ে গেছে। ফলে ডিম ও ব্রয়লার মুরগির উৎপাদন কমে গেছে। সম্প্রতি দেশে আলোচিত ডিমের দাম বৃদ্ধির এটি অন্যতম প্রধান কারণ।

প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মনজুর মোহাম্মদ শাহজাদা বলেন, আমরা মানুষকে শিখিয়েছি, ডিমের একটা মেয়াদ থাকে এবং সেটি এতদিনের মধ্যে খাওয়া যাবে। এগুলো আপনারা যারা দীর্ঘদিন ধরে এ সেক্টরে কাজ করেছেন তাদের সহযোগিতার ফলেই সম্ভব হয়েছে। আমরা সবাই মিলে যদি প্রাণিজপুস্টি নিশ্চিত করতে চাই, দেশকে যদি মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে চাই, তবে ডিম ও মাংসের চাহিদা কিন্তু দিনকে দিন স্বাভাবিকভাবেই বাড়তে থাকবে। আমরা অধিদপ্তর পোলট্রি সেক্টরের সকলকে নিয়েই এই চাহিদাগুলো বা পুষ্টির নিশ্চয়তা বিধান করবো।

ডিএলএস ডিজি বলেন, পোলট্রি সেক্টরে সমস্যা ছিল, আছে এবং থাকবে। সময় কিন্তু সমুদ্রের ঢেউয়ের মতো, উত্থান-পতন থাকবেই। পতনে কিন্তু আমরা ডুবে যাবো না, উত্থানে যেমন আমরা ভেসে থাকবো, পতনের সময় আমরা একটু কস্ট হলেও সবাইকে নিয়েই ভেসে থাকবো। তাই সমস্যা দেখলেই আমরা ভয় পাবো না, সমস্যাগুলো মোকাবেলা করেই আমরা সামনের দিকে এগিয়ে যাবো। পোলট্রি সেক্টরের যে কোন বিপদে আপদে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর সবসময় আপনাদের পাশে থাকবে।

ওয়াপসা-বিবি সাধারণ সম্পাদক মো. মাহাবুব হাসান বলেন, দেশের পোলট্রি খাতে বর্তমানে এক ধরনের অস্থিরতা চলছে। আন্তর্জাতিক বাজারে কাঁচামাল থেকে শুরু করে সব ধরনের জিনিসের দাম বৃদ্ধির কারণে উৎপাদন খরচ বেড়েছে এবং দেশে অসংখ্য লেয়ার ও ব্রয়লার খামার বন্ধ হয়ে গেছে। এসবের কারণেই ব্রয়লার মুরগি ও ডিমের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। এ সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্য আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছি। মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়, প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সাথে কাজ করছে ওয়াপসা-বিবি। দেশের পোলট্রি শিল্পের উন্নয়নে ওয়াপসা-বিবি যে সকল পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে সেগুলোর জন্য যেমন প্রচুর অর্থের প্রয়োজন, সেই সাথে প্রয়োজন সেক্টর সংশ্লিষ্ট সকলের আন্তরিক সমর্থন ও সহযোগিতা।

তিনি বলেন, আগামী ১২তম আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো সেমিনার-২০২৩ এর জন্য স্টল বুকিং চলবে আগামী ১ অক্টোবর থেকে ২১ অক্টোবর পর্যন্ত। ৫০% অগ্রিম পেমেন্ট পরিশোধ সাপেক্ষে অনলাইন অথবা সরাসরি ওয়াপসা-বিবি অফিসে এসে বুকিং দেয়া যাবে। স্পন্সর ও যারা আগে বুকিং দিবেন তাদের জন্য স্টল নির্বাচনে অগ্রাধিকার দেয়া হবে। থাকবে সিঙ্গেল, ডাবল, ট্রিপল, মিনি, লার্জ ও মেগা প্যাভিলিয়ন প্রভৃতি বিভিন্ন ক্যাটাগরির স্টল। আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো সেমিনার-২০২৩ সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে আয়োজনের জন্য পোলট্রি সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা চান, এ সময় তিনি।

মিসেস ইয়াসমিন রহমান অনুষ্ঠানে আগত সকলকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান এবং পোলট্রি শিল্প সংশ্লিষ্ট নতুন প্রজন্মদেরকে সকলের সাথে পরিচয় করিয়ে দেন। তিনি বলেন, পোলট্রি শিল্পের স্বার্থে আপনারা সবাই এগিয়ে আসেন, আমরা সবাই একসাথে কাজ করছি এবং করে যাবো, দেশটাকে সুন্দরভাবে এগিয়ে নেবো।

অনুষ্ঠানে স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের জন্য প্লাটিনাম, গোল্ড, সিলভার ও ব্রোঞ্জ চারটি ক্যাটাগরিতে ভাগ করা হয় এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান স্বতস্ফূর্তভাবে স্পন্সরশিপ ক্রয় করেন।

উল্লেখ্য, আগামী বছর ২০২৩ সনের মার্চ মাসের ১৬-১৮ তারিখ পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে দেশের পোলট্রি সেক্টরের মেগা আয়োজন ১২তম আন্তর্জাতিক পোলট্রি শো সেমিনার-২০২৩।

This post has already been read 1139 times!