Saturday 1st of October 2022
Home / খাদ্য-পুষ্টি-স্বাস্থ্য / চাল বিতরণে কোন অনিয়ম সহ্য করা হবে না -খাদ্যমন্ত্রী

চাল বিতরণে কোন অনিয়ম সহ্য করা হবে না -খাদ্যমন্ত্রী

Published at আগস্ট ২৮, ২০২২

নওগাঁ সংবাদদাতা: খাদ্য বান্ধব ওএমএসের চাল বিতরণে কোন অনিয়ম সহ্য করা হবে না বলে উল্লেখ করেছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

তিনি আজ রবিবার ( ২৮ আগস্ট) বিকালে সদর উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে ওএমএস ও খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ডিলার এবং বিএডিসি ও বিসিআইসি সার ডিলারদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, দেশে সব রকমের সারের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। প্যানিক সৃষ্টি করা হচ্ছে যে সারের অভাব। এর ফলে কিছু অসাধু ডিলার সুযোগ নিচ্ছে। তিনি হুশিয়ারি দিয়ে বলেন,অহেতুক অস্থিরতা তৈরি করলে কেউই রেহাই পাবেনা।

সাধন চন্দ্র বলেন, যিনি যে এলাকায় ডিলারশীপ নিয়েছেন তাকে সে এলাকায় সার বিক্রি নিশ্চিত করতে হবে। প্রতিদিন কত টুকু বিক্রি হলো কতটুকু অবশিষ্ট থাকলো তা নিয়মিত ভাবে রেজিষ্টারে লিপিবদ্ধ করে কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে হবে।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, খাদ্য বান্ধব ও ওএমএস কার্যক্রম সেপ্টেম্বর মাসের ১ তারিখে জেলা, উপজেলা ও পৌর এলাকায় শুরু হবে। খাদ্যবান্ধব ও ওএমএস এর চাল বিতরণে যেন কোন অনিয়ম না হয় তা নিশ্চিত করতে প্রশাসনের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন মন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, ইউক্রেন- রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাব পড়েছে বিশ্বজুড়ে। বাংলাদেশেও তার প্রভাব পড়েছে। তিনি বলেন, বিরুপ আবহাওয়া হলে আমনের উৎপাদন কম হতে পারে সে জন্য আমরা সতর্কতা হিসেবে বিদেশ থেকে চাল আমদানি করছি। ইতোমধ্যে বেসরকারি চাল আমদানির ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ রেগুলেটরি ট্যাক্স কমিয়েছি, আজই হয়ত গেজেট জারি হবে। তাছাড়া আমাদের খাদ্য মজুতও পর্যাপ্ত রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির আমলে সারের জন্য ১৯ কৃষককে হত্যা করা হয়েছে। বর্তমান সরকার সারে ভর্তূকি দিচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন,কৃষক যাতে ভর্তূকির সুবিধা পায় তা নিশ্চিত করা হবে। কোথাও অবৈধ সারের মজুদ পাওয়া গেলে সেই সার প্রকৃত কৃষকের মধ্যে তা বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে বলে ঘোষণা দেন মন্ত্রী।

জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদি হাসান এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির  বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার রাশিদুল হক। এছাড়া রাজশাহী আঞ্চলিক খাদ্য কর্মকর্তা ফারুখ হোসেন পাটোয়ারী, নওগাঁ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আবু হাসান, ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: রফিকুল ইসলাম রফিক বক্তব্য রাখেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো: আলমগীর কবির।

মতবিনিময় সভায় জানানো হয় নওগাঁ জেলায় ১ লাখ ১৯ হাজার ভোক্তা খাদ্য বান্ধব ও ওএমএস কর্মসূচির আওতায় স্বল্প মূল্যে চাল ক্রয়ের সুবিধা পাবেন।

অনুষ্ঠানে নওগাঁ জেলার সকল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান,উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ ওএমএস ও খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির ডিলার এবং বিএডিসি ও বিসিআইসি সার ডিলারগণ উপস্থিত ছিলেন।

This post has already been read 228 times!