কৃষি মন্ত্রণালয়ের সাথে বিবিএস’র তথ্যের অমিল

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো’র (বিবিএস) তথ্যের সাথে কৃষি মন্ত্রণালয়ের তথ্যের মিল নেই বলে জানিয়েছেন কৃষি সচিব নাসিরুজ্জামান। রবিবার (২৭ অক্টোবর) ৬ষ্ঠ কৃষি শুমারি -এর প্রাথমিক ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশের সময় তিনি এ কথা বলেন।

কৃষি সচিব বলেন, গতবছর কৃষি মন্ত্রণালয় হিসাব করে বলেছে আমন ধান উত্পাদন হয়েছিল কোটি ৫৩ লাখ মেট্রিক টন; কিন্তু বিবিএস বলেছে উত্পাদন হয়েছে কোটি ৪০ লাখ মেট্রিক টন। অর্থাত্ বাজারে এই ১৩ লাখ মেট্রিক টন ভাসমান। এর ফলে এখন দেখা যাচ্ছে ধানের দাম ৪০ টাকা হবার কথা; কিন্তু ২৫ টাকায় নেমে এসেছে। শুধু আমন ধানই নয়, অন্য ফসলের ক্ষেত্রে বিবিএসের তথ্যের সঙ্গে কৃষি বিভাগের তথ্য মিলছে না।

তিনি বলেন, হাইব্রিড ধানের কোনো হিসাব নেই। কৃষি মন্ত্রণালয় বলছে, ছাদবাগান এখন অনেক জনপ্রিয়। সেটি যুক্ত করা হয়নি। ভাসমান কৃষিকেও যুক্ত করা হয়নি। মাষকলাই ছোলার ডালের তথ্য বাদ দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে পরিসংখ্যানের সঙ্গে কৃষি মন্ত্রণালয়ের সমন্বয় করা উচিত। তাহলে এত বেশি ব্যবধান আর থাকবে না।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী এম মান্নান বলেন, এত বড়ো মহাযজ্ঞ বোধ হয় নিখুঁত হওয়া সম্ভব নয়। প্রতিটি ক্ষেত্রে আরো নিবিড়ভাবে সবাই কাজ করবে বলে আমি কথা দিচ্ছি। বিবিএসকে জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলা হবে। দেশের সব পরিকল্পনায় ভিত্তি হবে পরিসংখ্যান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পরিসংখ্যান তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তীসহ, মত্স্য প্রাণিসম্পদ সচিব রইছউল আলম, কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. নাসিরুজ্জামান, বিবিএসের মহাপরিচালক মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম প্রকল্প পরিচালক জাফর আহমেদ খান।

This post has already been read 1748 times!

Check Also

কৃষির সবচেয়ে বড় প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বর্তমান কৃষিকে ভবিষ্যৎ বাংলাদেশের জন্য টেকসই ও নিরাপদ বাণিজ্যিক কৃষিতে রূপান্তরের মাধ্যমে খাদ্য …