Wednesday 25th of May 2022
Home / অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য / পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতায় ক্যাবের ক্ষোভ 

পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতায় ক্যাবের ক্ষোভ 

Published at সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

ভারতে পেঁয়াজের রফতানি মূল্য বাড়ানোর সংবাদে দেশে পেয়াঁজের মূল্য হঠাৎ করে আরেক দফা বাড়লেও বানিজ্য মন্ত্রণালয়, জেলা প্রশাসন কোন প্রকার উদ্যোগ না নিয়ে নিরব থাকায় জনমনে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় জরুরিভাবে সরকারের বানিজ্য মন্ত্রণালয়, জেলা-উপজেলা প্রশাসন, জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরসহ সরকারের বিভিন্ন বিভাগের প্রতিনিধি, ক্যাব, গণমাধ্যম ও চেম্বার প্রতিনিধি সমন্বয়ে বাজার তদারকি জোরদার, জাতীয় ও স্থানীয় ভাবে ব্যবসায়ীদের সাথে জরুরী সভা করে সম্ভাব্য করনীয় নির্ধারন, বিকল্প উৎস থেকে এ সমস্ত পণ্য আমদানি নিশ্চিত করা, বিকল্প বাজার হিসাবে টিসিবির মাধ্যমে ভোগ্য পণ্য বিক্রি জোরদার করার দাবি জানিয়েছেন দেশের ক্রেতা-ভোক্তাদের স্বার্থ সংরক্ষনকারী জাতীয় প্রতিষ্ঠান কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব)। সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতির মাধ্যমে তাঁরা এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

বাজারে পেয়াঁজের মূল্য অস্বাভাবিক ভাবে বৃদ্ধিতে বিবৃতিতে এক বিবৃতিতে ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাব চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারন সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, ক্যাব মহানগরের সভাপতি জেসমিন সুলতানা পারু, সাধারন সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, যুগ্ন সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম, ক্যাব চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মান্নান প্রমুখ উপরোক্ত দাবি জানান।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজের দাম প্রতি কেজি প্রায় ৮০-৯০ টাকায় বিক্রি করছে। ভারতে দামবৃদ্ধির সংগে সংগে দেশীয় বাজারে দাম বাড়ানো হচ্ছে। অথচ ভারতে দাম কমলে ভোক্তারা তার সুফল পায় না। পাইকারি ব্যবসায়ীদের অযুহাত, ভারতে পেঁয়াজ উৎপাদনকারী রাজ্যে বন্যা হওয়ায় পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। তবে খুচরা বিক্রেতারা বলছে, আমদানি কম হওয়ার সুযোগ নিয়ে হিলি বন্দরের পাইকাররা কারসাজি করে পেঁয়াজের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, মানুষের জনদুর্ভোগ লাগবে কার্যকরী ও বিকল্প ব্যবস্থা হিসাবে ভ্রাম্যমান আদালত, সমন্বিত বাজার তদারকি কার্যক্রম একটি উদ্ভাবনী মডেল চলমান ছিলো। যেখানে জেলা-উপজেলা প্রশাসন সফল ভাবে নেতৃত্ব প্রদান করলেও বর্তমানে নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্য পণ্যের বাজার স্থিতিশীল রাখা, নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতের মতো অতিজ নগুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলিতে প্রশাসনের দৃষ্টি না থাকায় তাঁরা সাধারণ জনগনের দুর্ভোগ লাগবে উদ্যোগ নিতে আগ্রহ দেখাচ্ছে না। সাধারন মানুষের জীবন-জীবিকায় দুর্ভোগ লাগবের বিষয়গুলি গৌণ হয়ে যাচ্ছে। ফলে সরকারের অনেক উদ্ভাবনী উদ্যোগের সফল তৃণমূল মানষ উপভোগে সম্ভব হচ্ছে না।

This post has already been read 1052 times!