Tuesday 27th of September 2022
Home / অন্যান্য / যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী

Published at জুলাই ৩, ২০১৯

ঢাকা সংবাদদাতা: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ২৪৩ তম স্বাধীনতা দিবসের গৌরবময় মুহূর্তে, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার এবং আমাদের জনগণের পক্ষ থেকে আমেরিকার জনগণকে উষ্ণ অভিনন্দন জানাই। প্রতি বছর ৪ জুলাই যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবস পালন করা হয়। ১৭৭৬ সালের ২ জুলাই ইংল্যান্ডের শাসন থেকে স্বাধীনতা লাভ করে। যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা যুদ্ধে জয় পাওয়ার জন্য ২৫ হাজার বিপ্লবী আমেরিকানকে জীবন দিতে হয়।

বুধবার (৩ জুলাই) কৃষি মন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এম.পি রাজধানীর বারিধারায় আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে আয়োজিত যুক্তরাষ্ট্রের ২৪৩ তম স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। এ সময় যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার ও রাষ্ট্রদূত অফিসের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

কৃষি মন্ত্রী আরো বলেন, ঐতিহাসিক একটি বীরত্বপূর্ণ এবং বিপ্লবী যুদ্ধের পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্বাধীনতা লাভ করেছে। বাংলাদেশ সরকার এবং আমি এই মহিমান্বিত দিনের এই উদযাপনকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাই। রক্তাক্ত যুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা লাভ করে যুক্তরাষ্ট্র। বাংলাদেশের সরকার জনগণ এ রক্তের মূল্য ও তাৎপর্য অনুভব করতে পারে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক প্রসারিত করতে অত্যন্ত আগ্রহী। অনেক বছর ধরে, আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক গভীরতা এবং মাত্রা উন্নতি হয়েছে। গণতন্ত্র, মানবাধিকার, ধর্মনিরপেক্ষতা এবং বাক স্বাধীনতা সমৃদ্ধ করতে এবং বিশ্বব্যাপী শান্তি ও নিরাপত্তায় অবদান রাখতে সহায়তা করেছে এই সম্পর্ক। বাংলাদেশ “সোনার বাংলাদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সঠিক দিকে যাচ্ছে “। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বপ্ন দেখেছিলেন সোনার বাংলার।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল ও স্বপ্নদর্শী নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের উন্নয়নশীল দেশে পরিণত করতে, ২০৩০ সালের মধ্যে উচ্চ মধ্যম আয় এবং ২০৪১ সালের মধ্যে একটি উন্নত দেশে পরিণত করতে অঙ্গীকারবদ্ধ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র হবে এ উন্নয়নের অংশীদার হবে বলে মনে করেন কৃষিমন্ত্রী । যুক্তরাষ্ট্রর সাথে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের বিষয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বর্তমান ৩য় বারের মতো দেশ পরিচালনার কার্যভার গ্রহণ করেন, আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক সংলাপ এর আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিষ্ঠিত প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি আমরা আমাদের দ্বিপক্ষীয় প্রতিরক্ষা সংলাপ, নিরাপত্তা সংলাপ এবং বার্ষিক অংশীদারিত্ব সংলাপ শেষ করেছি। সেপ্টেম্বর মাসে ঢাকায় বার্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতা ফোরাম চুক্তি (টিআইসিএফএ) সংলাপ অনুষ্ঠিত হবে। আমি আশা করি, এই নিয়মিত সংলাপের মাধ্যমে এবং মানুষের সাথে মিথস্ক্রিয়া করার মাধ্যমে আমাদের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরও বাড়বে। দুই দেশের মধ্যে বর্তমান বাণিজ্য সম্পর্ক ৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশী। মার্কিন বাজারে আমাদের রপ্তানি বৈচিত্র্যের সুযোগ আছে। বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রের মতো বন্ধুত্বপূর্ণ দেশগুলির সাথে সহযোগিতা প্রসারিত করতে আগ্রহী। সাধারণ দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের উন্নয়ন প্রচেষ্টার জন্য রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার এবং তার ডেডিকেটেড টিমকে অভিনন্দন জানাই। ঢাকায় তাদের বহুবিধ কর্মকাণ্ড এবং জনগণের সাথে যোগাযোগের প্রচেষ্টায় সত্যিকারের অনুপ্রেরণামূলক। আমি আশা করি, যে বাংলাদেশ-মার্কিন সম্পর্কে আগামি দিনের মধ্যে একটি নতুন উচ্চতা নিয়ে যাবে। আগামীর সমৃদ্ধর জন্য একসাথে কাজ করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতের প্রতি আহ্বান জানান কৃষি মন্ত্রী। এর আগে জনপ্রিয় স্যাটলাইট টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভির ১৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী অনুষ্ঠানে যোগদান করেন কৃষি মন্ত্রী।

বুধবার (৪ জুলাই) বেলা ৪ টায় রাজধানীর কাওরান বাজারস্থ প্রধান অফিসে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে দিয়ে এনটিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে শুভেচ্ছা জানান সাবেক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী মো. নাসিম, কৃষি মন্ত্রী ড.  মো.  আব্দুর রাজ্জাক এম.পি,  স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজামান খান কামাল এম.পি, নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এম.পি, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন । এছাড়াও জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবাহান।

বক্তারা বলেন, যে সাহসিকতা নিয়ে ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার সঠিক চিত্র তুলে ধরে দেশবাসি কে সঠিক তথ্য উপস্থাপন করেছে এর জন্য এই টিভি দেশের মানুষের মনে যায়গা করে নিয়েছে। সবার মনে যায়গা করে নিয়েছে তাদের বস্তুনিষ্ঠতা দিয়ে।

পরে আগত অতিথিবৃন্দ এনটিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেক কাটায় অংশ নেন। বক্তারা সবাই আগামীর  চলার পথে এনটিভির উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন।

This post has already been read 1083 times!