Friday 27th of May 2022
Home / পরিবেশ ও জলবায়ু / জলবায়ু সংকটের কারণে মারাত্মক ঝুঁকিতে উপকূলীয় অঞ্চল -কেসিসি মেয়র

জলবায়ু সংকটের কারণে মারাত্মক ঝুঁকিতে উপকূলীয় অঞ্চল -কেসিসি মেয়র

Published at জুন ২৪, ২০১৯

ফকির শহিদুল ইসলাম(খুলনা): জলবায়ু পরিবর্তনজনিত সংকট ও প্রতিকূলতা মোকাবেলা করে আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে। জলবায়ু সংকটের কারণে বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চল মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। এজন্য বাস্তবভিত্তিক প্রকল্প গ্রহণ করে বাস্তবায়ন করা দরকার। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ইতোমধ্যে জলবায়ু পরিবর্তন জনিত সংকট আন্তর্জাতিক ভাবে নিরসনের লক্ষ্যে বিশ্ব সম্প্রদায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলায় জনগণের সক্ষমতা সৃষ্টিসহ সার্বিক কল্যাণে তিনি নিরলসভাবে কাজ করছেন।

সোমবার (২৪ জুন) সকালে নগর ভবনের জিআইজেড মিলনায়তনে সিটি কর্পোরেশন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা ও বার্ষিক উন্নয়ন পরিকল্পনায় শিশু কেন্দ্রিক জলবায়ু পরিবর্তন অভিযোজন কৌশল অন্তর্ভুক্তিকরণ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এসব কথা বলেন।

স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা প্রদীপন -এর শিশু কেন্দ্রিক জলবায়ু পরিবর্তন অভিযোজন প্রকল্পের আওতায় খুলনা সিটি কর্পোরেশন এ কর্মশালার আয়োজন করে। শিশু ও তাদের কমিউনিটির সদস্যদের জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় সক্ষমতা বৃদ্ধি করার লক্ষ্যে অষ্ট্রেলিয়ান সরকার ও সেভ দ্যা চিলড্রেন-এর সহযোগিতায় ঢাকা ও সিরাজগঞ্জসহ খুলনা মহানগরীর ৯নং ওয়ার্ডে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হচ্ছে। প্রকল্পের আওতায় সংশ্লিষ্ট এলাকায় কমিউনিটি ইনফরমেশন সেন্টার/শিশু ক্লাব স্থাপন, শিশু ও অভিভাবকদের সাথে জলবায়ু পরিবর্তন অভিযোজন ও সহিষ্ণুতা বিষয়ক সেশন পরিচালনা এবং শিক্ষার্থীদের জলবায়ু পরিবর্তন ও দুর্যোগ ঝুঁকিহ্রাস বিষয়ে সচেতন করে তোলা হবে। ৯নং ওয়ার্ডের ৪টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১ হাজার ৬’শ ৮০ জন স্কুলের শিশু, ৬০ জন কমিউনিটি শিশু, ৬০ জন কমিউনিটি যুবক ও ১২০ জন অবিভাবককে প্রকল্পভুক্ত করা হয়েছে।

কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্ম সচিব) পলাশ কান্তি বালা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন, প্যানেল মেয়র মেমরী সুফিয়া রহমান শুনু, কাউন্সিলর এমডি মাহফুজুর রহমান লিটন ও সচিব মো. আজমুল হক। প্রকল্পের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য তুলে ধরেন প্রকল্পের সমন্বয়কারী মো. আব্দুল্লাহ সায়ীদ ও মনিটরিং অফিসার ফারহানা মুন প্রমুখ। কেসিসি’র কর্মকর্তাসহ বিভাগ/শাখা প্রধানগণ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

This post has already been read 1310 times!