Saturday 4th of February 2023
Home / অন্যান্য / প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষরোপণ করতে হবে

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষরোপণ করতে হবে

Published at আগস্ট ৪, ২০১৮

ফকির শহিদুল ইসলাম (খুলনা): পক্ষকালব্যাপী খুলনা বিভাগীয় বৃক্ষমেলার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান শনিবার (৪ আগষ্ট) বিকালে সার্কিট হাউজ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের নব নির্বাচিত মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

প্রধান অতিথি মেয়র বলেন, বাঁচতে হলে বেশি বেশি বৃক্ষরোপণ করতে হবে। কার্বনডাই অক্সাইড শোষণ এবং অক্সিজেন ত্যাগ করে বৃক্ষই আমাদের বাঁচিয়ে রাখতে সহায়তা করে। সুস্থ থাকলে হলে ২৫ ভাগ বৃক্ষ থাকতে হবে। সুন্দরবনকে আমাদের বাঁচিয়ে রাখতে হবে। তিনি আরো বলেন, মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণের পাশাপাশি প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষাসহ নৈস্বর্গিক শোভা বর্ধনেও বৃক্ষের গুরুত্ব অপরিসীম। পরিকল্পিতভাবে গাছ লাগাতে হবে। শুধু গাছ লাগালেই হবে না, সঠিকভাবে এর পরিচর্যা ও রক্ষণাবেক্ষণ করতে হবে। আগের তুলনায় মানুষ এখন বেশি বৃক্ষরোপণ করছে। একটি গাছ কাটলে কমপক্ষে তিনটি গাছ লাগাতে তিনি সকলের প্রতি আহবান জানান।

খুলনা জেলা প্রশাসক মো. আমিন উল আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশিদ, উপবন সংরক্ষক খুলনা সার্কেল মো. মাহবুবুর রহমান এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক (শস্য) মো. হাসান ওয়ারিসুল। স্বাগত জানান, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. বশিরুল-আল-মামুন। অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নার্সারী মালিক সমিতির সভাপতি মো. বদরুল আলম রয়েল।

উল্লেখ্য, সমাপনী অনুষ্ঠান হলেও মেলা আরো তিনদিন বৃদ্ধি করা হয়েছে। এবারের পক্ষকালব্যাপী বৃক্ষমেলায় প্রায় ৩২ লাখ টাকার গাছ বিক্রি হয়েছে। এবারের মেলায় প্রথম হয়েছে রানা নার্সারী নন্দনপুর রূপসা; দ্বিতীয় করিম নাসারী, রূপসা এবং তৃতীয় মালিহা নার্সারী বয়রা, খুলনা। পরে প্রধান অতিথি বৃক্ষমেলায় অংশগ্রহণকারী নার্সারী স্টল মালিক, চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে ক্রেস্ট ও সনদপত্র বিতরণ করেন। খুলনা জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায়, সুন্দরবন পশ্চিম বন বিভাগ এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

 

This post has already been read 2143 times!