Tuesday 18th of June 2024
Home / আঞ্চলিক কৃষি / পাবনায় ৩ দিনের কৃষি প্রযুক্তি মেলা ও ২১ দিনব্যাপী পুষ্পমেলার উদ্বোধন

পাবনায় ৩ দিনের কৃষি প্রযুক্তি মেলা ও ২১ দিনব্যাপী পুষ্পমেলার উদ্বোধন

Published at ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২৪

মো. গোলাম আরিফ (পাবনা) : আধুনিক প্রযুক্তি সম্প্রসারণের মাধ্যমে রাজশাহী বিভাগের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ০৩ দিনব্যাপী কৃষি প্রযুক্তি মেলা ও জেলা নার্সারী মালিক সমিতির আয়োজনে ২১ দিনব্যাপী পুষ্প মেলা ২০২৪ এর উদ্বোধন হয়েছে। রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বেলা ৩ টায় পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের কামাল উদ্দিন মাঠ প্রাঙ্গণে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পাবনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য, গোলাম ফারুক প্রিন্স।

প্রধান অতিথি বলেন,  প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন দেশে আগামীতে  খাদ্য ঘাটতি দেখা দিতে পারে এজন্য প্রতি ইঞ্চি জমির পরিকল্পিত ব্যবহার করতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর নিদের্শনা বাস্তবায়নে কৃষি বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট সকলে কাজ করে যাচ্ছি বলেই মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পেরেছি। কৃষিকে সমৃদ্ধ করতে আমাদের আরো এগিয়ে আসতে হবে। প্রধান অতিথি আরো বলেন, সনাতন পদ্ধতিতে চাষাবাদ না করে কৃষিতে নতুন নতুন প্রযুক্তির বিস্তার ঘটাতে হবে। পারিবারিক পুষ্টি নিশ্চিতে রাসায়নিক সার ও কীটনাশকের পরিবর্তে জৈব্য পদ্ধতিতে ফসল ফলাতে হবে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক, পাবনা মু. আসাদুজ্জামান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ, পাবনা’র উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মো: আব্দুল আওয়াল; অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, পাবনা মো. জিয়াউর রহমান। মূখ্য আলোচক ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, পাবনা’র উপপরিচালক কৃষিবিদ ড. মো. জামাল উদ্দীন। উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা আবু সাঈদ শিখন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সাহানা পারভীন লাবনী।

এর আগে প্রধান অতিথি ফিতা কেটে কৃষি প্রযুক্তি মেলা ও পুষ্প মেলা ২০২৪ এর শুভ উদ্বোধন করেন। পরবর্তীতে প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন। মেলায় আধুনিক প্রযুক্তিভিত্তিক ৫টি স্টল ও ২৫টি স্টলে নার্সারী মালিকেরা বাহারি রকমের ফুল ও ফলের চারা নিয়ে অংশগ্রহন করেছেন। কৃষি সম্প্রসারণ অফিদপ্তর ও উপজেলা প্রশাসন পাবনা সদর, পাবনা’র যৌথ আয়োজনে আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মেলার কার্যক্রম চলমান থাকবে।

This post has already been read 606 times!