Tuesday 18th of June 2024
Home / পোলট্রি / বাকৃবিতে পশুপালন অনুষদের আয়োজনে বিশ্ব ডিম দিবস-২০২৩ উদযাপন

বাকৃবিতে পশুপালন অনুষদের আয়োজনে বিশ্ব ডিম দিবস-২০২৩ উদযাপন

Published at অক্টোবর ১৩, ২০২৩

দীন মোহাম্মদ দীনু (বাকৃ‌বি) : স্বাস্থ্যবান ভবিষ্যৎ তৈরিতে আমাদের চাল নির্ভর অর্থনীতি থেকে বেরিয়ে এসে প্রাণিজ আমিষ নির্ভর অর্থনীতি গ্রহণ করতে হবে। শরীরের চর্বি কমাতে খাদ্যাভাসে কার্বোহাইড্রেট কমিয়ে প্রোটিন বাড়াতে হবে। ডিম হচ্ছে পৃথিবীর সবচেয়ে প্রাণীজ প্রোটিন। কথাগুলো বলেছেন বাকৃবির ভাইস চ্যান্সেলর প্র্রফেসর ড. এমদাদুল হক চৌধুরী।

এছাড়াও তিনি স্বাস্থ্যবান ভাবে বাঁচার জন্য একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষকে প্রতিদিন কমপক্ষে একটি ডিম এবং বাচ্চাদের দুটি ডিম খাওয়ানোর তাগিদ দেন।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) পশুপালন অনুষদের পোল্ট্রি বিজ্ঞান বিভাগের আয়োজনে শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) বিশ্ব ডিম দিবস-২০২৩ পালন উপলক্ষে সেমিনারে তিনি এসব কথা বলেন।

পোল্ট্রি বিজ্ঞান বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. বাপন দের সভাপতিত্বে সকাল সাড়ে ০৯টায় পশুপালন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. ছাজেদা আখতার দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালি’র উদ্বোধন করেন। পরে সার্বজনীন ডিম বিতরণ এবং সৈয়দ নজরুল ইসলাম কনফারেন্স হলে এ বিষয়ে সেমিনার অনুষ্ঠিত  হয়েছে। সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভাইস চ্যান্সেলর প্র্রফেসর ড. এমদাদুল হক চৌধুরী।

সেমিনারে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পোল্ট্রি ইন্ডাস্ট্রিজ সেন্ট্রাল কাউন্সিলের সভাপতি জনাব শামসুল আরেফিন খালেদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পশুপালন অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. ছাজেদা আখতার, ভেটেরিনারি অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. আব্দুল আউয়াল, সাবেক ইউজিসি প্রফেসর এবং বাকৃবি সিন্ডিকেট সদস্য প্রফেসর ড. এস. এম. বুলবুল, ছাত্র বিষয়ক উপদেষ্টা প্রফেসর ড. মো. হারুন-অর-রশিদ, ওয়ার্ল্ড পোল্ট্রি সায়েন্স অ্যাসোসিয়েশন-বাংলাদেশ ব্রাঞ্চের সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. মো. বাহানুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক ড. বিপ্লব কুমার প্রামাণিক।

সেমিনারে দিবসটির প্রতিপাদ্য বিষয়ে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইউজিসি প্রফেসর ড. এস. ডি. চৌধুরী এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ল্ড পোল্ট্রি সায়েন্স অ্যাসোসিয়েশন-বাংলাদেশ ব্রাঞ্চের এক্সিকিউটিভ কমিটির সদস্য প্রফেসর ড. মো. ইলিয়াস হোসেন। অনুষ্ঠানে পশুপালন অনুষদের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দসহ আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন ।

This post has already been read 1310 times!