Monday 4th of July 2022
Home / বিজ্ঞান ও গবেষণা / মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ তথ্য দপ্তরের ইনোভেশন টিমের বিএলআরআই পরিদর্শন

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ তথ্য দপ্তরের ইনোভেশন টিমের বিএলআরআই পরিদর্শন

Published at মে ৩০, ২০২২

সামছুল আলম : ই-গভর্ন্যান্স ও উদ্ভাবন কর্মপরিকল্পনা ২০২১-২২ অর্থ-বছরে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের বিভিন্ন দপ্তর সংস্থা পর্যায়ের অফিসের জন্য প্রাতিষ্ঠানিক দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে দেশে-বিদেশে বাস্তবায়িত ন্যূনতম একটি উদ্যোগ পরিদর্শনের নিদের্শনা ছিল। এ লক্ষ্যে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ তথ্য দপ্তরের ইনোভেশন টিম গতকাল ২৯মে (রোববার) বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট( বিএলআরআই) এর বিভিন্ন উদ্যোগ পরিদর্শন করে।

বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএলআরআই) এর সভা কক্ষে সকাল সাড়ে ১১ টায়  বিএলআরআই এর ইনোভেশন অফিসার ও প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড.সর্দার মোহাম্মদ আমান উল্লাহ এর সভাপতিত্বে বিএলআরআই -এর তিনজন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ৩ টি নতুন উদ্ভাবন প্রজেক্টরে প্রদর্শন করেন । ফিড মাস্টার , গ্রিনওয়ে বিজনেস ও খামারগুরু নামে জনকল্যাণকর ও উৎপাদনমুখী  তিনটি নতুন উদ্ভাবন বর্ণনা করেন ( বিএলআরআই) এর তিনজন উদ্ভাবক। তাঁরা হলেন-  মো. আহসানুল কবির, ঊর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, ডা.সোনিয়া আক্তার, বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা  এবং নাজমুল হুদা, ঊর্ধ্বতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা। উদ্ভাবকরা বলেন, তিনটি উদ্যোগ ই বাংলাদেশে প্রাণিসম্পদ খাতে উৎপাদন বাড়াবে এবং খরচ কমানোর পাশাপাশি খামারী ও ভোক্তার নানা ভোগান্তি কমাবে।

নতুন তিনটি উদ্ভাবন ছাড়াও মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ তথ্য দপ্তরের ইনোভেশন টিম ধামড়াই উপজেলার শরীফবাগ গ্রামে বিএলআরআই এর প্রযুক্তি পল্লী পরিদর্শন করে। প্রযুক্তিপল্লীতে  বিএলআরআই তাদের উদ্ভাবিত নানা প্রযুক্তি খামারীদের গরু, ছাগল ,মহিষ ও হাঁস-মুরগির খামারে প্রয়োগ করছে। এতে খমারীদের উৎপাদন যেমন বেড়েছে অন্যদিকে উৎপাদন খরচ কমে আয়ও বাড়ছে। পাশাপাশি যাতায়াত ও চিকিৎসা সংক্রান্ত নানা ভোগান্তি কমেছে।

This post has already been read 514 times!