Tuesday 9th of August 2022
Home / আঞ্চলিক কৃষি / রাজশাহীতে উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

রাজশাহীতে উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

Published at মার্চ ১০, ২০২২

মো. এমদাদুল হক (রাজশাহী) : আধুনিক কৃষি সম্প্রসারণের মাধ্যমে রাজশাহী বিভাগের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্প অর্থায়নে রাজশাহী অঞ্চলে বাস্তবায়িত হচ্ছে আধুনিক প্রযুক্তি সম্প্রসারণ কার্যক্রম। খামারযান্ত্রিকীকরণ, আধুনিক জাত বিস্তার, জৈব কৃষির উৎপাদনসহ উৎপাদন বৃদ্ধি করা এ প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য। এ লক্ষ্য অর্জনের জন্য উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তা সমমানের বিভিন্ন দপ্তরের ৯০ জনকে ২ দিনের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় যাতে প্রকল্পের কার্যক্রম ও আধুনিক ব্যবস্থাপনা পদ্ধতি কৃষকের মাঠে ছড়িয়ে পড়ে। কৃষি মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে এ প্রকল্প কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে কৃষকের কায়িকশ্রম কমিয়ে আনার উদ্দেশ্যে খামারযান্ত্রিকীকরণ বৃদ্ধি ও সম্প্রসারণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এক্ষেত্রে কৃষিতে নতুন নতুন যন্ত্রপাতি ভূর্তিকীতে প্রদান করছে যাতে কৃষিকে আরো গতিশীল করে।

গত (৮ – ৯ মার্চ) ৯০ জন উপসহকারি কৃষি কর্মকর্তার দুটি ব্যাচে রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কার্যালয়ে সেমিনার রুম এবং কৃষি তথ্য সার্ভিস সেমিনার রুমে ২ দিনের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষণে প্রকল্পের মনিটরিং অফিসার কৃষিবিদ মো. সাহেদ হাসান প্রকল্পের বিভিন্ন বিষয়ের উপস্থাপন করেন। প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উদ্বোধন করেন (দুই ব্যাচ এক সঙ্গে উদ্বোধন ও সমাপনী হয়) রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ মো. মাসুদুর রহমান। সমাপনি বক্তব্য প্রদান করেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সরেজমিন উইং এর পরিচালক কৃষিবিদ মো.সিরাজুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কৃষিবিদ মো. মোজদার হোসেন, রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অতি:কার্যলয়ের উপপরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ খয়ের উদ্দিন মোল্লা ।

সমাপনী বক্তব্যে কৃষিবিদ মো.সিরাজুল ইসলাম বলেন, প্রতিনিয়ত নতুন মুখ যোগ হচ্ছে। অতিরিক্ত জনগোষ্ঠীর জন্যে আমাদের খাবার উৎপাদন বাড়িয়ে যেতে হবে। তাই জ্ঞান-বিজ্ঞানে যতই অগ্রগামী হই না কেন খাবার যোগাতে হলে কৃষিকাজকে অগ্রাধিকার দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধিতে সম্মিলিতভাবে কাজ করে আধুনিক করতে হবে। একই সাথে পরিবেশের ক্ষতি কমিয়ে টেকসই কৃষির জন্য পরিকল্পিত পর্যায় অনুসরণ করতে হবে। গবেষণা প্রতিষ্ঠানের উদ্ভাবিত প্রযুক্তি যত কৃষকের দ্রুত পৌছাতে হবে ছড়িয়ে দিতে হবে। নিজ নিজ পেশায়র আরো দক্ষতা বৃদ্ধি করতে হবে। পরিশেষে তিনি কৃষিকে দক্ষতা ও সততার সহিত সম্প্রসারারিত করতে বিশেষ অনুরোধ জানান। দুদিনের প্রশিক্ষণে সমসাময়িক বিষয়ে বিশেজ্ঞগণ প্রশিক্ষণ প্রদান করেন।

This post has already been read 672 times!