Saturday 10th of December 2022
Home / অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য / কৃষিখাতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

কৃষিখাতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

Published at ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২

দুবাই: কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, বাংলাদেশের কৃষিখাতে বিনিয়োগের বিরাট সম্ভাবনা রয়েছে। কৃষি প্রক্রিয়াজাত, ভ্যালু অ্যাড ও রপ্তানিতে বিদেশি ও প্রবাসী বাংলাদেশিদেরকে বিনিয়োগের আহ্বান জানাই। বাংলাদেশে বিনিয়োগের অনুকূল পরিবেশ রয়েছে এবং সরকার সব ধরনের সহযোগিতা প্রদান করবে।

আজ মঙ্গলবার দুবাইয়ের ওয়ার্ল্ড এক্সপোতে বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নে কৃষির উন্নয়ন, রপ্তানি ও বিনিয়োগ সম্ভাবনা শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী  এসব কথা বলেন।

দুবাই ওয়ার্ল্ড এক্সপোতে ফুড, এগ্রিকালচার ও লাইভলিহুডস সপ্তাহ উপলক্ষে কৃষি মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয় এবং মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় এ সেমিনারের আয়োজন করে।

ড. রাজ্জাক আরো বলেন, বাংলাদেশ আজ অনেক ফসলে উদ্বৃত্ত। শাকসবজি, ফলমূল, মাছসহ বিভিন্ন কৃষিপণ্যের রপ্তানির সম্ভাবনাও অনেক। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কৃষিপণ্যের রপ্তানি হচ্ছে যা মূলত প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যে। আমরা বিদেশের মূল বাজারে প্রবেশ করতে চাই। সেজন্য, নিরাপদ কৃষিপণ্য উৎপাদন, অ্যাক্রেডিটেড ল্যাব স্থাপন ও  সার্টিফিকেট প্রদানসহ অনেকগুলো উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। আপনারা বাংলাদেশ থেকে কৃষিপণ্য রপ্তানিতে এগিয়ে আসুন। বাংলাদেশ সরকার সকল সহযোগিতা প্রদান করবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব মো: সায়েদুল ইসলাম, খাদ্যসচিব মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম। সভাপতিত্ব করেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মো. আবু জাফর। সঞ্চালনা করে কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো: রুহুল আমিন তালুকদার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন দুবাইয়ের কনসাল জেনারেল বিএম জামাল হোসেন।

সেমিনারে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মোহাম্মদ বখতিয়ার ও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য মনজুর মোর্শেদ।  প্রবন্ধ বাংলাদেশের কৃষি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদে অর্জিত সাফল্য  এবং নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিতে গৃহীত পদক্ষেপ তুলে ধরা হয়।

এ সময় ইউএই, মালয়েশিয়া, ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের ব্যবসায়ী প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

This post has already been read 887 times!