Wednesday 25th of May 2022
Home / বিজ্ঞান ও গবেষণা / বিএলআরআই-এ ২০২১-২০২২ অর্থবছরের গবেষণা প্রকল্পসমূহের মূল্যায়ন অনুষ্ঠিত

বিএলআরআই-এ ২০২১-২০২২ অর্থবছরের গবেষণা প্রকল্পসমূহের মূল্যায়ন অনুষ্ঠিত

Published at নভেম্বর ১৭, ২০২১

বিএলআরআই-এ ২০২১-২০২২ অর্থবছরের গবেষণা প্রকল্পসমূহের মূল্যায়ন সভায় সভাপতিত্ব করছেন ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মো. আবদুল জলিল।

সাভার (ঢাকা) : বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিএলআরআই)-এর ২০২১-২০২২ অর্থবছরে বাস্তবায়নের জন্য প্রস্তাবিত গবেষণা প্রকল্পসমূহের মূল্যায়ন গত ১৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। এবারের অর্থবছরের জন্য পাঁচটি গবেষণা ক্ষেত্রে মোট ৭৫ (পচাত্তর) গবেষণা প্রকল্পের প্রস্তাবনা উত্থাপন করা হয়।

সকাল ১০ টায় প্রশাসনিক ভবনের দ্বিতীয় তলার সম্মেলন কক্ষে প্রকল্পসমূহের মূল্যায়ন সংক্রান্ত বিশেষজ্ঞ কমিটির সভা শুরু হয়। সভায় বিশেষজ্ঞ সদস্যগণেন সাথে সাথে ইনস্টিটিউটের বিভিন্ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধানগণ ও প্রকল্প পরিচালকগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভার শুরুতেই সবাইকে স্বাগত জানান ইনস্টিটিউটের প্রশিক্ষণ, পরিকল্পনা এবং প্রযুক্তি পরীক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এবং পরিচালক (গবেষণা) ড. সরদার মোহাম্মদ আমানুল্লাহ। এসময় তিনি এই অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত প্রকল্পসমূহের শ্রেণিভিত্তিক পরিসংখ্যান উপস্থাপন করেন।

সভায় সভাপতিত্বে করেন ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মো. আবদুল জলিল। সভায় উপস্থিত হবার জন্য এ সময় তিনি সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং প্রকল্পসমূহ মূল্যায়নের বিষয়ে কিছু ক্ষেত্রে বিশেষ নজর দেওয়ার জন্য বিশেষজ্ঞদের প্রতি অনুরোধ জানান।

এরপর বিশেষজ্ঞ সদস্যরা একে একে নিজেদের মতামত উপস্থাপন করেন এবং গবেষকদের প্রতি বিভিন্ন দিক-নির্দেশনামূলক বক্তব্য প্রদান করেন। এ সময় আউটপুট-আউটকাম-ইমপ্যাক্ট বিবেচনায় নিয়ে গবেষণা পরিচালনা করা, সুষ্ঠুভাবে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ইনস্টিটিউশনাল ও ইনডিভিজুয়াল রিসার্চ ফ্রেমওয়ার্ক তৈরি করা, তারা খামারীদের চাহিদা মাথায় নিয়ে গবেষণা পরিচালনা করা, রপ্তানিমুখী পণ্য উৎপাদনের জন্য আন্তর্জাতিক নীতিমালা অনুসরণ করে গবেষণা পরবচালনা করা, গবেষকদের জন্য পর্যাপ্ত ও প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা ইত্যাদি নানা বিষয়ে আলোচনা করেন।

২০২১-২০২২ অর্থবছরের জন্য বায়োটেকনোলজি, অ্যানিমেল প্রোডাক্ট প্রোসেসিং এন্ড ভ্যালু অ্যাডিশন, এনভায়রনমেন্ট এন্ড ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্স এবং ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্ট বিষয়ক গবেষণা ক্ষেত্রে ১৪টি প্রকল্প; অ্যানিমেল এন্ড পোল্ট্রি ব্রিডিং এন্ড জেনেটিকস বিষয়ক গবেষণা ক্ষেত্রে ২৩টি প্রকল্প; ফিডস, ফডার এন্ড নিউট্রিশন বিষয়ক গবেষণা ক্ষেত্রে ১৭টি প্রকল্প; অ্যানিমেল এন্ড পোল্ট্রি ডিজিজ এন্ড হেলথ, ভ্যাকসিন, বায়োলজিকস এন্ড কিটস/টুলস বিষয়ক গবেষণা ক্ষেত্রে ১৩টি প্রকল্প এবং সোশিও-ইকোনোমিকস এন্ড ফার্মিং সিস্টেম বিষয়ক গবেষণা ক্ষেত্রে ৮টি প্রকল্প প্রস্তাব করা হয়।

গবেষণা ক্ষেত্রগুলোতে বিশেষজ্ঞ সদস্য হিসেবে প্রকল্প মূল্যায়ন কার্যক্রমে অংশ নেন ড. তালুকদার নুরুন্নাহার, প্রাক্তন মহাপরিচালক, বিএলআরআই; প্রফেসর ড. ইয়াহিয়া খন্দকার, পশু প্রজনন ও কৌলিবিজ্ঞান বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়; প্রফেসর ড. ফজলুল হক ভূঁইয়া, পশু প্রজনন ও কৌলিবিজ্ঞান বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়; ড. কাজী ইমদাদুল হক, প্রাক্তন মহাপরিচালক, বিএলআরআই; প্রফেসর ড. মো. আলী আকবর, প্রাক্তন উপাচার্য, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়; ড. শরীফ আহম্মেদ চৌধুরী, মহাব্যবস্থাপক, পিকেএসএফ; প্রফেসর ড. সুবাশ চন্দ্র দাস, পোল্ট্রি বিজ্ঞান বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়; ড. মো. গিয়াসউদ্দিন, মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (পিআরএল), বিএলআরআই; প্রফেসর ড. মো. বাহানুর রহমান, মাইক্রোবায়োলজি এন্ড হাইজিন বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়; ড. জাহাঙ্গীর আলম খান, প্রাক্তন মহাপরিচালক, বিএলআরআই; ড. মো. মোশাররফ উদ্দিন মোল্লা, সদস্য পরিচালক, কৃষি অর্থনীতি ও গ্রামীণ সমাজবিজ্ঞান বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল এবং ড. মো. আব্দুর রশীদ, মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, কৃষি অর্থনীতি বিভাগ, বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট।

This post has already been read 452 times!