Friday 27th of May 2022
Home / অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য / বিশ্বব্যাপী এখন বাণিজ্য কুটনীতি বেশ গুরুত্বপূর্ণ -বাণিজ্যমন্ত্রী

বিশ্বব্যাপী এখন বাণিজ্য কুটনীতি বেশ গুরুত্বপূর্ণ -বাণিজ্যমন্ত্রী

Published at অক্টোবর ১০, ২০২১

রবিবার (১০ অক্টোবর) ঢাকায় ইআরএফ কনফারেন্স রুমে বাংলাদেশ চায়না চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি (বিসিসিসিআই) এবং ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) যৌথ ভাবে আয়োজিত “বেস্ট রিপোর্টিং এ্যাওয়ার্ড অন বাইলেটারেল রিলেশনশীপ বিটুইন বাংলাদেশ এন্ড চায়না” শীর্ষক পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি।

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি বলেছেন, বিশ্বব্যাপী এখন বাণিজ্য কুটনীতি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ব্যবসা-বাণিজ্য প্রসারের জন্য প্রতিটি দেশ এখন কুটনীতিকে ব্যবহার করছে। চীনের সাথে বাংলাদেশের দ্বিপাক্ষিক এবং অর্থনৈতিক সম্পর্ক বেশ ভালো। ফলে চীন বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক অংশীদার।

বাণিজ্যমন্ত্রী রবিবার (১০ অক্টোবর) ঢাকায় ইআরএফ কনফারেন্স রুমে বাংলাদেশ চায়না চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি (বিসিসিসিআই) এবং ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম (ইআরএফ) যৌথ ভাবে আয়োজিত “বেস্ট রিপোর্টিং এ্যাওয়ার্ড অন বাইলেটারেল রিলেশনশীপ বিটুইন বাংলাদেশ এন্ড চায়না” শীর্ষক পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানের সময় এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, চীন বাংলাদেশের উন্নয়নের অন্যতম বড় অংশীদার। ব্যবসা-বাণিজ্য ক্ষেত্রেও চীনের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ এর সময়ও বাংলাদেশের রপ্তানি মূখী শিল্প কলকারখানা চালু রাখার জন্য এবং স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী সরবরাহের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সাপ্লাই চেইন চালু রেখে সহযোগিতা করেছে চীন।

ইআরএফ এর উদ্যোগের প্রশংসা করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রচার মাধ্যম একটি দেশের অর্থনীতি, ব্যাবসা-বাণিজ্য এবং উন্নয়নের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। চীনের সাথে বাংলাদেশের বাণিজ্য ও বিনিয়োগের বিষয়ে ইতিবাচক ভূমিকা রয়েছে বলে আমি মনে করি, আগামী দিনগুলোতেও দেশের স্বার্থে প্রচার মাধ্যম দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখবে। দায়িত্বশীল রিপোর্টিং এর জন্য যারা আজ পুরষ্কৃত হচ্ছেন তারা আগামীতে আরও উৎসাহ নিয়ে দায়িত্ব পালন করবেন। দেশের উন্নয়নের জন্য সম্মিলিত ভাবে আমাদের কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং (খর ঔরসরহম), বিসিসিসিআই এর প্রেসিডেন্ট গাজী গোলাম মর্তুজা, ইআরএফ প্রেসিডেন্ট শারমিন রিনভি, ইআরএফ এর জেনারেল সেক্রেটারি এস এম রাশেদুল ইসলাম,  বিসিসিসিআই এর মহাসচিব মো. শাহজাহান মৃধা বেনু এবং ইআরএফ এর নির্বাহী কমিটির সদস্য সিরাজুল ইসলাম কাদির।

This post has already been read 434 times!