Wednesday 18th of May 2022
Home / প্রাণিসম্পদ / রাজশাহীতে দেশি ভেড়ার মাংস বিক্রয়ের কসাইখানার উদ্বোধন

রাজশাহীতে দেশি ভেড়ার মাংস বিক্রয়ের কসাইখানার উদ্বোধন

Published at ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২০

রাজশাহী সংবাদদাতা: প্রথমবারের মতো রাজশাহীতে বরেন্দ্র অঞ্চলের ভেড়ার মাংস (ল্যাম্ব মিট) বিক্রয়ের জন্য কসাইখানার উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নারিকেলবাড়ীয়াস্থ ক্যাম্পাসের উত্তর পার্শ্বস্থ গ্যাস পাম্প সংলগ্ন কমলাপুর নামক স্থানে কাশিয়াডাঙ্গা বেলপুকুর মহাসড়কের পাশে উক্ত কসাইখানার উদ্বোধন করা হয়।

কসাইখানাটি উদ্বোধন করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. চৌধুরী মো. জাকারিয়া। রাজশাহী জেলার ৪টি স্থানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের তত্বাবধানে ও কৃষি গবেষণা ফাউন্ডেশনের আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় পরিচালিত ভেলিডেশন অব গুড প্রাকটিসেস অব অন-ফার্ম ল্যাম্ব প্রোডাকশন সিস্টেমস প্রকল্পের আওতায় এই কসাইখানা সমুহে সম্পূর্ণ হালাল পদ্ধতিতে জবাইকৃত বরেন্দ্র অঞ্চলের সুস্থ দেশী জাতের ভেড়ার মাংস (ল্যাম্ব মিট) বিক্রয় করা হবে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ভেড়ার মাংস সার্বিক গুন বিচারে কোন অংশেই ছাগল ও গরুর মাংসের চেয়ে কম নয়। বরং, এতে কলেস্টেরল ও চর্বি কম থাকায় এবং প্রয়োজনীয় প্রায় সকল পুষ্টি উপাদান বেশি থাকায় সুস্বাস্থের জন্য অত্যন্ত উপযোগী। সঠিক তথ্য জানা না থাকা এবং বিরুপ প্রচারের কারণে ভেড়ার মাংসকে সাধারণত ছাগলের মাংস বলে বিক্রয় করা হয়। এতে একদিকে যেমন ভেড়া পালনকারীগণ তাদের পালিত ভেড়ার সঠিক মূল্য পায় না অপরদিকে ভোক্তাগণ উৎকৃষ্ট মাংস বেছে নেয়ার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হয়। এ সকল বিষয় বিবেচনা করে সুস্বাস্থের জন্য উপযোগী মাংস সরবরাহের লক্ষ্যে উল্লেখিত প্রকল্পের আওতায় ভেড়ার মাংস (ল্যাম্ব মিট) সীলকৃত মোড়কে রাজশাহী জেলার ৪টি স্থানে বিক্রয় করা হবে। অন্য ৩টি স্থান হলো: রাজশাহী কোর্ট বাজারের জাকিরের দোকান, কোর্ট স্টেশনের তুলি এন্টারপ্রাইজ ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি  এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- প্রকল্পের প্রিন্সিপাল ইনভেস্টিগেটর প্রফেসর ড. মো. জালাল উদ্দিন সরদার,  রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের সভাপতি  প্রফেসর ড. এস এম কামরুজ্জামান,  ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের প্রফেসর ড. মো. সরওয়ার জাহান, প্রকল্পের কো-ইনভেস্টিগেটর প্রফেসর ড. মো. আখতারুল ইসলাম, ড. মো. হেমায়েতুল ইসলাম আরিফ, পিএইচডি ফেলো মো. ইসমাইল হক, এম এস ফেলো মো. নেয়ামতুল্লাহ সহ প্রকল্প ও বিশ্ববিদ্যালয়ের  অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে মহৎ এ উদ্যোগের জন্য প্রকল্পের আর্থিক ও কারিগরী সহায়তাকারী প্রতিষ্ঠান, বাস্তবায়নকারী বিভাগ এবং প্রকল্প সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনিসহ উপস্থিত সকলেই  আশা করেন প্রকল্পের এমন উদ্যোগের মাধ্যমে একদিকে যেমন ভেড়ার মাংস ভেড়ার মাংস হিসেবেই সমাদৃত ও পরিচিত হবে অপরদিকে স্বাস্থ্যবান্ধব এই মাংসের উৎপাদন বৃদ্ধি পাওযার সাথে সাথে ভেড়া পালনকারীগণ হবে আর্থিকভাবে সমৃদ্ধ।

This post has already been read 3009 times!