Monday 23rd of May 2022
Home / সংগঠন ও কর্পোরেট সংবাদ / প্রাণির সুস্বাস্থ্য ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে Doctor’s Agrovet ও Biovet S.A. এর যৌথ সেমিনার

প্রাণির সুস্বাস্থ্য ও নিরাপদ খাদ্য বিষয়ে Doctor’s Agrovet ও Biovet S.A. এর যৌথ সেমিনার

Published at জানুয়ারি ১২, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক: গাছের শেঁকড় ভালোতো গাছ ভালো। ঠিক তেমনি প্রাণির স্বাস্থ্য ভালোতো খামারিও থাকবে ভালো। ‍সুস্বাস্থ্য বা সুস্থ থাকা প্রাণির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। অন্যদিকে খাবার শুধু খেলেই হবেনা, সেই খাবার কতটুকু নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত সেটিও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারণ, জীবন ধারনের জন্য যে খাবার খাওয়া হয় সেটি যদি নিরাপদ না হয় তবে সেটি জীবন হরনের কারণ হতে পারে। মোদ্দা কথা, আমাদের নিরাপদ থাকতে হলে আমরা যেসব প্রাণি খাই সেগুলোও নিরাপদ হতে হবে। বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে বাংলাদেশ প্রাণিস্বাস্থ্য সেবা খাতের স্বনামধন্য কোম্পানি ডক্টরস এগ্রোভেট লিমিটেড (Doctor’s Agrovet Ltd.) এবং স্পেনের বিশ্বখ্যাত ভেটেরিনারি ওষুধ  উৎপাদন ও বাজারজাতকারী কোম্পানি বায়োভেট এস.এ (Biovet S.A.) শনিবার (১১ জানুয়ারি) যৌথভাবে একটি টেকনিক্যাল সেমিনারের আয়োজন করে।

“Gut Health and Food Safety” শীর্ষক উক্ত সেমিনারে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও গবেষক, পোলট্রি, ডেইরি ও মৎস্য খাতের সাথে জড়িত বিভিন্ন উদ্যোক্তা, কনসালট্যান্ট, পুষ্টিবিদ এবং বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

পবিত্র কোরআন থেকে তেলওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনার পর Biovet S.A. সম্পর্কে বিস্তারিত বক্তব্য তুলে ধরেন কোম্পানিটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক Carlos Domench Rates. তিনি বলেন, বায়োভেট এস.এ সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব গবেষণাকে। তিনি জানান, ১৯৮৪ সনে প্রতিষ্ঠিত বায়োভেট Biovet S.A. পণ্যের মান উন্নয়ন, ফিড এডিটিভস উৎপাদন, ফিড ফর্মুলেশন সার্ভিস, ট্রেইনিং ও কনসালটিং, জুটেকনিক্যাল সার্ভিস, এনালিটিক্যাল সার্ভিস, মাইক্রোবায়োলজিক্যাল সার্ভিস, মাইকোটক্সিন এনালাইসিস সার্ভিস এর সাথে জড়িত।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যাথলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. এমদাদুল হক চৌধুরী “Biosecurity and Gut Health” শীর্ষক প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন সেমিনারে। তিনি বলেন, সঠিক ধারনা না থাকার কারণে বাংলাদেশের ক্ষুদ্র ও মাঝারি ফার্মগুলোর অধিকাংশই এখনো ঠিকমতো জৈব নিরাপত্তা বিধান পরিপালন করেনা। এর ফলে মুরগি ও ডিম উৎপাদনে এসব ফার্মে ওষুদ খরচ বেশি লাগে। এ সময় তিনি পোলট্রি ফার্মে বিভিন্ন জৈব নিরাপত্তা সংক্রান্ত ঝুঁকি ও এসব থেকে পরিত্রানের কৌশল নিয়ে আলোচনা করেন। এছাড়াও ফার্মে ছাঁইয়ের ব্যবহার নিয়ে তাঁদের একটি গবেষণা রিপোর্ট উপস্থাপন করে যেখানে দেখা যায় প্রচলিত ডিটারজেন্টের চেয়েও ছাঁইয়ে pH এর মাত্রা বেশি, যার ব্যবহার নিরাপদ ও খরচ সাশ্রয়ী।

সেমিনারে Food Safety শীর্ষক প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন ওয়ার্ল্ড পোলট্রি সায়েন্স বাংলাদেশ শাখা (WPSA-BB) এর সভাপতি এবং আফতাব বহুমুখী ফার্মস লিমিটেড –এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফজলে রহিম খান শাহরিয়ার। এ সময় নিরাপদ খাদ্য কি, নিরাপদ পোলট্রি উৎপাদনে মূল চ্যালেঞ্জ, পোলট্রি সেক্টর নিয়ে বিভিন্ন বিভ্রান্তিকর তথ্য ইত্যাদি বিষয়ে আলোকপাত করেন।

সেমিনারে “Mechanism of Action of Pronutrients” শীর্ষক প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন David Diez Arias- Technical Department, Veterinary. এ সময় তিনি  কীভাবে ব্যবহার করে প্রাণির গাট হেলথ সুস্থ রাখা এবং নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন বিষয়ে বিস্তারিত আলোকপাত করেন। Progressus এর Technical Expert, Yannis Christodoulou পোল্ট্রি খাদ্যের নিউট্রিশনে Pronutrients এর ভুমিকা নিয়ে আলোকপাত করেন। এছাড়াও বাায়োভেট এস.এ থেকে আমদানিকৃত Pronutrients- Alquernat Nebsui এর ফিল্ড ট্রায়াল উপস্থাপন করেন ডক্টর’স এগ্রোভেট লিমিটেড -এর পরিচালক ডা. তুষার চৌধুরী।

সেমিনারে ডক্টর’স এগ্রোভেট লিমিটেড –এর ১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে কেক উদযাপন করেন। এ সময় সেমিনারের গুরুত্বপূর্ণ অতিথিগণ এবং কোম্পানির বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাগণ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ডক্টর’স এগ্রোভেট লিমিটেড –এর চেয়ারম্যান মো. জাহিদুল ইসলাম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. রাফিউল করিম, পরিচালক ডা. তুষার চৌধুরী, পরিচালক ডা. মো. শামছুল আলম, বিজনেজ ম্যানেজার কৃষিবিদ মো আরিফুল ইসলাম রাকিব, কৃষিবিদ নাজমুস সাকিব হামিম, অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার ডা. তৌফিক আহমেদ নাহিদ প্রমুখ। এর আগে অনুষ্ঠানে উপস্থিত সম্মানিত অতিথিদের ক্রেস্ট প্রদান করে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হয়।  সমগ্র অনুষ্ঠানটিতে সঞ্চালকের ভূমিকা পালন করেন ডা. মো. শামছুল আলম।

উল্লেখ্য, ২০০৫ সনে প্রতিষ্ঠিত ডক্টর’স এগ্রোভেট লিমিটেড বাংলাদেশের পোলট্রি ও প্রাণিসম্পদ সেবাখাতে ইতিমধ্যে নিজেদের একটি স্বতন্ত্র অবস্থান তৈরি করতে সক্ষম হয়েছে।

This post has already been read 1602 times!