Tuesday 23rd of April 2024
Home / অর্থ-শিল্প-বাণিজ্য / রাজধানীতে ১৫দিন ব্যাপী বৈশাখী বৃক্ষ মেলা

রাজধানীতে ১৫দিন ব্যাপী বৈশাখী বৃক্ষ মেলা

Published at এপ্রিল ১৫, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ইকবাল রোড মাঠে শুরু হয়েছে ১৫ দিন ব্যাপী বৃক্ষ মেলা। “সবুজ পৃথিবী বিনির্মাণে আমরা সক্রিয়” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বাংলাদেশ প্ল্যান্ট নার্সারীমেন সোসাইটি (বিএনএস) উক্ত মেলার আয়োজন করেছে। এ উপলক্ষ্যে পহেলা বৈশাখ (রবিবার) এক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এসিআই এগ্রিবিজনেস লিমিটেড –এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এফ, এইচ আনসারি, ঢাকা ৩২ নং ওয়ার্ডের কমিশনার হাবিবুর রহমান মিজান, ইকবাল রোড ক্লাব লি. -এর সভাপতি সেলিম আজাদ চৌধুরী প্রমুখ। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিএনএস –এর উপদেষ্টা এবং সাবেক কৃষি সচিব আনোয়ার ফারুক।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, ঢাকা শহরকে পরিস্কার ও বসবাসযোগ্য করার দায়িত্ব আমাদের সকলকে নিতে হবে। এটি শুধু সরকারের একার কাজ না।

মেয়র বলেন, আমি ইতিমধ্যে আমার কর্মকর্তাদের নির্দেশ দিয়ে দিয়েছি ঢাকা উত্তর সিটিতে যতগুলো নতুন রাস্তা হবে এবং সেই রাস্তার ধারে বা ডিভাইডারে লাগানো গাছগুলোর অন্তত দুই বছর পরিচর্যার দায়িত্ব নিতে হবে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারদের। অন্যথায় তাদের বিল দেয়া হবেনা। এছাড়াও শহরের প্রতিটা দোকানগুলোতে অন্তত দুটো গাছের টব থাকতে হবে এবং সেই দোকানিদের জন্য বিশেষ রেওয়াত সুবিধা দেয়া হবে।

ড. এফ, এইচ আনসারি বলেন, নগরে বৃক্ষরোপন এবং বাগান সৃজনের কাজে সিটি কর্পোরেশনকে সব ধরনের সহায়তা করতে প্রস্তুত এসিআই।

সাবেক কৃষি সচিব আনোয়ার ফারুক বলেন, শহরে বৃক্ষরোপন অপরিকল্পিতভাবে হওয়ায় কাঙিক্ষত উপকার পাওয়া যাচ্ছেনা। সিটি কর্পোরেশন এবং শহরের দায়িত্ব থাকা সংশ্লিস্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে একটি সমন্বয় থাকতে হবে। সিটি কর্পোরেশন চাইলে, বিএনএস এর পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

এছাড়াও বিএনএস –এর পক্ষ থেকে ঢাকা শহরে প্রতিটি বিল্ডিংর একটি নির্দিষ্ট পরিমান জায়গা গাছ লাগানোর জন্য বরাদ্দ রাখার ব্যাপারে সিটি কর্পোরেশনের মাধ্যমে আইন করা প্রণয়ন, গাছের চারা ও অন্যান্য প্রয়োজনয়ীয় উপকরণ যাতে নগরবাসী নির্দিষ্ট কোন মার্কেট থেকে পেতে পারেন সেজন্য অন্যান্য দ্রব্যের মতো শহরে নার্সারি মার্কেট স্থাপন, বৃক্ষের হলিডে মার্কেট চালু, নগর পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নার্সারি মালিকদের সম্পক্ত সহ বিভিন্ন দাবী জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঢাকা ৩২ নং ওয়ার্ডের কমিশনার হাবিবুর রহমান মিজান, বিএনএস সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মো. ইব্রাহীম, ডিএই মহাপরিচালক কৃষিবিদ মীর নুরুল আলম, বিএনএস সভাপতি জামিল আহমেদ সিদ্দিক (ঢাকা মেট্রো) প্রমুখ।

উল্লেখ্য, দেশের স্বনামধন্য প্রায় অর্ধশতাধিক নার্সারি প্রতিষ্ঠান ও বীজ কোম্পানি মেলায় অংশগ্রহণ করেছে। মেলায় বিভিন্ন ধরনের ফল, ফুল, শাক-সবজি ও বাহারি জাতের গাছের চারা, বীজ এবং প্রয়োজনীয় উপকরণ পাওয়া যাবে।

This post has already been read 2973 times!