ধান জগতে নতুন সংযোজন বিটা ক্যারোটিন সমৃদ্ধ ‘গোল্ডেন রাইস’

মো. জহিরুল ইসলাম: গোল্ডেন রাইস হলো বিটা-ক্যারোটিন সমৃদ্ধ এক নতুন জাতের ধান যার চাল সোনালি বর্ণের। বিটা ক্যারোটিন মানুষের শরীরে প্রয়োজন অনুযায়ী ভিটামিন-এ তে রূপান্তরিত হয়। সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা যায় যে, বাংলাদেশসহ ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনে ভিটামিন-এ এর মোট চাহিদার ৩০-৫০ শতাংশ গোল্ডেন রাইস থেকে পূরণ করা সম্ভব। ভুট্টা থেকে সংশ্লিষ্ট জিন (Zmpsy1) জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং এর মাধ্যমে ধানে সন্নিবেশ করে গোল্ডেন রাইস উদ্ভাবন করা হয়েছে।

গোল্ডেন রাইসের ভাত খাওয়ার মাধ্যমে বিটা-ক্যারোটিন মানবদেহে প্রবেশ করে, যা দেহে ভিটামিন-এ তে রূপান্তরিত হয়। বিভিন্ন পরীক্ষা নীরিক্ষার মাধ্যমে প্রতীয়মান হয়েছে যে (গোল্ডেন রাইস) এর অ্যালার্জিসিটি ও টক্সিসিটির প্রভাব নাই। এখানে উল্লেখ্য যে, এ যাবত গবেষণায় কোন এলার্জি সংশ্লিষ্ট কোন প্রোটিনের সাথে গোল্ডেন রাইসের ডিএনএ এর সংশ্লিষ্টতা খুঁজে পাওয়া যায়নি। কাজেই গোল্ডেন রাইস গ্রহণে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াজনিত স্বাস্থ্যঝুঁকি হবে না। এছাড়াও বিটা-ক্যারোটিন একটি স্বাদহীন যৌগ বিধায় এর প্রভাবে ভাতের স্বাদেরও কোনরকম পরিবর্তন হবে না আশা করা যায়। অন্যদিকে যেহেতু গোল্ডেন রাইস জিন একমাত্র শস্যকোষে (Endosperm) প্রকাশিত হয় তাই একমাত্র পরপরাগায়ন ছাড়া অন্য কোন উপায়ে এ জিন কোন ফসলে বা অন্য ধানের জাতে ছড়ানোর সুযোগ নাই। ধান একটি স্বপরাগী ফসল হওয়ায় এতে পরপরাগায়নের সম্ভাবনা খুবই নগণ্য।

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট বিগত বোরো ২০১৫-১৬ মৌসুমে প্রোভিটামিন-এ সমৃদ্ধ GR2E BRRI dhan29 (গোল্ডেন রাইস) এর নিয়ন্ত্রিত-মাঠ পরীক্ষা (Confined Field Trial) গাজীপুরে সম্পাদন করে। এ পরীক্ষা চলাকালীন গোল্ডেন রাইসের ফলনশীলতার পাশাপাশি পরিবেশের বিভিন্ন অনুসঙ্গের উপর এর প্রভাব সংশ্লিষ্ট তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করা হয়।

পরবর্তীতে ব্রি’র চারটি আঞ্চলিক কার্যালয় (বরিশাল, কুমিল্লা, হবিগঞ্জ এবং রাজশাহী) এবং ব্রি গাজীপুরে নিয়ন্ত্রিত-মাঠ পরীক্ষার সম্পাদন করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পর্যবেক্ষণে কোন প্রকার অনাকাক্সিক্ষত বৈশিষ্ট্য এবং রোগ ও পোকা-মাকড় এর উপদ্রব পরিলক্ষিত হয়নি। পরীক্ষণ চলাকালে কোন প্রকার অনাকাঙ্খিত বৈশিষ্ট্য (যেমন- অতিরিক্ত ঝরে পড়া, দীর্ঘায়িত সুপ্তাবস্থা, খর্বাকৃতি গাছ ইত্যাদি) এবং অপরিচিত রোগ ও পোকা-মাকড় এর উপদ্রব পরিলক্ষিত হয়নি। যদিও কৌলিক সারিসমূহ বোরো মৌসুমের উপযোগী, তবুও সার্বিক বিবেচনায় গ্রিন হাউজ ও স্ক্রিন হাউজে সংরক্ষিত পরীক্ষায় উক্ত ফসলের কৃষিতাত্ত্বিক মান সন্তোসজনক বলে প্রতীয়মান হয়েছে। অঙ্গজ বৈশিষ্ট্য, সম্ভাব্য ফলন, ইত্যাদি বিবেচনায় বাছাই করা সমগোত্রিয় লাইনগুলো থেকে প্রতিটি গাছের বীজ আলাদাভাবে সংগ্রহ করা হয়েছে। প্রোভিটামিন-এ সমৃদ্ধ GR2E BRRI dhan29 (গোল্ডেন রাইস) এর পরিবেশগত ও খাদ্য নিরাপত্তা ঝুঁকি নিরুপণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য ন্যাশনাল কমিটি অন্ বায়োসেফ্টি (এনসিবি) এর নিকট ব্রি কতৃক আবেদন করা হয়েছে।

This post has already been read 8764 times!

Check Also

সেপ্টেম্বরেই পাওয়া যেতে পারে করোনা ভ্যাকসিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সেপ্টেম্বরেই করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রস্তুত হয়ে যাবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেছেন যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের …