Tuesday 9th of August 2022
Home / পোলট্রি / ঢাকায় KEMIN KONTACT

ঢাকায় KEMIN KONTACT

Published at অক্টোবর ২৯, ২০১৭

keminনিজস্ব প্রতিবেদক : প্রাণি ও পোলট্রি স্বাস্থ্য সেবাদানকারী বিশ্বখ্যাত প্রতিষ্ঠান KEMIN এর উদ্যোগে শনিবার (২৮ অক্টোবর) রাজধানীর রেডিসান ব্লু হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল KEMIN KONTACT শীর্ষক সেমিনার। সেমিনারে পোলট্রির অন্যান্য টেকনিক্যাল বিষয় নিয়ে আলোচনা হলেও এন্টিবায়োটিকের বিকল্প পদ্ধতিতে মুরগি উৎপাদনের কৌশলকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেয়া হয়।

সেমিনারের শুরুতে Kemin Industries South Asia Pvt.Ltd এর Director, Mr. Sushanta Dey বলেন, কেমিন সবসময় নতুন নুতন উদ্ভাবনের মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করে। ১৯৬১ সনে কেমিন প্রতিষ্ঠার কথা উল্লেখ করে তিনি জানান, বিশ্বের প্রায় ১২০টিরও বেশি দেশে কেমিন এর ব্যবসা রয়েছে। এ সময় তিনি সেমিনারে আগত অতিথিদের সাথে প্রধান বক্তাদের পরিচয় করিয়ে দেন।
kemin2
Dr. R. chanthirasekaran, Sr. Global Platform Manager সেমিনারে ‘ÔBan on AGPs- Where do we go from here?’ শীর্ষক প্রেজেন্টেশন করেন। এ সময় তিনি জানান, পোলট্রি শিল্পে সাধারণত Treatment, Prophylaxis, Growth Promotor -এ তিনটি কারণে এন্টিবায়োটিকের ব্যবহার করা হয়। কিন্তু গ্রোথ প্রমোটর হিসেবে বিশ্বের অনেক দেশেই এন্টিবায়োটিক ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তাই এন্টিবায়োটিকের বিকল্প পদ্ধতি গ্রহণ ছাড়া উপায় নেই।

সেমিনারে Immune challenge in Poultry শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন Dr. S. Saravanan, Head of Technical। এ সময় তিনি জানান, পোলট্রি শিল্পে একটি বড় চ্যালেঞ্জ এবং এটি মোকাবেলায় সঠিক পদ্ধতি ও পণ্য ব্যবহার করতে হবে।

সেমিনারে Immu-nnovation in Poultry শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন Dr. Geoff Horst, R&D Leader.

সেমিনারে উপস্থাপিত টেকনিক্যাল প্রেজেন্টেশনের ওপর উন্মুক্ত আলোচনা ও প্রশ্নোত্তর পর্ব রাখা হয়। এ সময় সেমিনারে আগত অতিথিদের প্রতিটি প্রশ্নের সুন্দরভাবে উত্তর দেন কেমিন বিশেষজ্ঞগণ।

কেমিন এর স্থানীয় এজেন্ট সিগমা বাংলাদেশ -এর প্রধান নির্বাহী আনোয়ার হোসেন,  Kemin Industries, South Asia Pvt. Ltd. (Animal Nutrition & Health)-এর President, Dr. R. Sureshkumar ন্যাশনাল সেলস ম্যানেজার ডা. আজিমুল হক, সেলস ম্যানেজার ডা. গোলাম মোর্শেদ, টেরিটরি সেলস্ ম্যানেজার ডা. রফিকুল ইসলাম ভূঁইয়া, সিনিয়র সেলস এক্সিকিউটিভ মো. দিদারুল আলম, সিগমা বাংলাদেশ -এর এজিএম (বিজনেস ডেভেলপমেন্ট) মো. রিয়াজুল ইসলাম ছাড়াও দেশ বিদেশের পোলট্রি শিল্প সংশ্লিষ্ট পেশাজীবী ও উদ্যোক্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

This post has already been read 2607 times!