Saturday 15th of June 2024
Home / অন্যান্য / বাকৃবিতে ফুড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ১৫ বছর পূর্তি উদযাপন ও পূনর্মিলনী

বাকৃবিতে ফুড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ১৫ বছর পূর্তি উদযাপন ও পূনর্মিলনী

Published at অক্টোবর ১৩, ২০১৭

BAU Food Engg Day Pic-1মো. আরিফুল ইসলাম (বাকৃবি):
আনন্দ শোভাযাত্রা, আলোচনা সভা, স্মৃতিচারণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বাকৃবি) বি.এসসি. ফুড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ১৫ বছর পূর্তি উদযাপন ও পুনর্মিলনী শুরু হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১ টায় কৃষি প্রকৌশল ও কারিগরী অনুষদের সামনে থেকে বর্নাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রার মধ্যদিয়ে এ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠান শুরু হয়। ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং ক্লাবের উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী বর্নাঢ্য এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

BAU Food Engg Day Pic-3আনন্দ শোভাযাত্রায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. জসিমউদ্দিন খান। আরও উপস্থিত ছিলেন ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং ক্লাবের সভাপতি প্রফেসর ড. মো. বোরহান উদ্দিন, ফুড টেকনোলজি ও গ্রামীণ শিল্প বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কামরুজ্জামান, প্রফেসর ড. মো. আব্দুল আলীম, প্রফেসর ড. মোহাম্মদ গোলজারুল আজিজসহ অন্যান্য শিক্ষক ও সকল শিক্ষার্থীবৃন্দ। শোভাযাত্রাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন মিলনায়তনে শেষ হয়। সেখানে এক স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠিত হয়। প্রাক্তন গ্র্যাজুয়েটবৃন্দ ও অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা তাঁদের শিক্ষাজীবনের নানা বিষয়ে স্মৃতিচারণ করেন। পরে সন্ধ্যা ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

১৫ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে শনিবার (আগামীকাল) সকাল ১০টায় “সুস্থ জাতি গঠনে খাদ্য নিরাপত্তা ও পুষ্টি নিশ্চিত করণে ফুড ইঞ্জিনিয়ারদের অবদান” শীর্ষক আলোচনা সভা ও সন্ধ্যায় শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন মিলনায়তনে “এসেজ” ব্যান্ড দলের কনসার্ট অনুষ্ঠিত হবে।

উল্লেখ্য, ১৯৬১ সালে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয় ভেটেরিনারি ও কৃষি অনুষদ দিয়ে। পরে ১৯৬৪-৬৫ শিক্ষাবর্ষ থেকে কৃষি প্রকৌশল ও করিগরী অনুষদ ডাত্রা শুরু করে। পরে যুগের চাহিদা অনুসারে ২০০২ সাল থেকে  কৃষি প্রকৌশল ও করিগরী অনুষদ থেকে বি.এস.সি ফুড ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি এবং ফুড টেকনোলজি ও গ্রামীণ শিল্প বিভাগ থেকে মাস্টার্স ডিগ্রি চালু করা হয়।

This post has already been read 3519 times!