১০ আষাঢ় ১৪২৮, ২৩ জুন ২০২১, ১৪ জিলক্বদ ১৪৪২
শিরোনাম :

অ্যাপস -এর মাধ্যমে খুলনায় সরকারিভাবে চাল সংগ্রহ কার্যক্রম উদ্বোধন

Published at মে ১২, ২০২১

খুলনা সংবাদদাতা: খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ‘ডিজিটাল রাইস প্রকিউরমেন্ট অ্যাপস’ এর মাধ্যমে খুলনা জেলায় সরকারি চাল সংগ্রহ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। বুধবার সকাল সাড়ে ১১ টায় ঢাকা হতে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে তিনি অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন। এ সময় মন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ কোন স্বপ্ন নয়; এটা এখন বাস্তবতা। প্রত্যন্ত গ্রামের কৃষকও এখন এর সুবিধা পাচ্ছে।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, কৃষক বাঁচলে; দেশ বাঁচবে। কৃষকের স্বার্থের কথা চিন্তা করে এবারের বোরো সংগ্রহে ধান-চাল ক্রয়ে ধানকে অগ্রাধিকার দিতে হবে এবং কোনভাবেই কৃষককে হয়রানি করা যাবে না। ইতোমধ্যেই ১৩টি নির্দেশনা দিয়ে প্রতিটি জেলার খাদ্য অফিসে প্রেরণ করা হয়েছে। এ বছর কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ৬লক্ষ ৫০ হাজার মেট্রিক টন ধান ক্রয় করা হবে। চালের মান নিয়ে কোন আপোষ নেই জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, চালের মান ঠিক রেখে, সঠিকভাবে শতভাগ সংগ্রহ সম্পন্ন করার জন্য ইতোমধ্যেই মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা- কর্মচারীদেরকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচিও অনলাইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন সাধন চন্দ্র মজুমদার।

মন্ত্রী আরো বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ সরকারের সর্বশেষ নির্বাচনী ইশতেহারের অন্যতম অঙ্গীকার। ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণের মাধ্যমে সরকারি-বেসরকারি প্রতিটি কাজে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও গতি আনায়ন করা সম্ভব। ‘ডিজিটাল রাইস প্রকিউরমেন্ট অ্যাপস’ এর মাধ্যমে কৃষকদের নিকট থেকে ধান এবং মিলাদের নিকট থেকে চাল ক্রয়ের ফলে একদিকে যেমন অল্প সময়ের মধ্যে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার সাথে ধান-চাল সংগ্রহ করা সম্ভব হবে; অপরদিকে খাদ্য বিভাগ, কৃষক এবং মিলারদের মধ্যে দ্রুত সংযোগ স্থাপনের মাধ্যমে ধান-চাল সংগ্রহ কার্যক্রমে গতি আনয়ন করা সম্ভব হবে।

উল্লেখ্য, ‘ডিজিটাল রাইস প্রকিউরমেন্ট অ্যাপস’ যা গতবছর খুলনা জেলায় নির্বিঘ্নে সফলতার সাথে, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বজায় রেখে চাল সংগ্রহে এক অনন্য নজির সৃষ্টি করেছে। গত মৌসুমে খুলনা জেলায় ‘ডিজিটাল রাইস প্রকিউরমেন্ট অ্যাপসে’র মাধ্যমে মিলারদের নিকট থেকে চাল ক্রয় কার্যক্রম শুরু হয়। খুলনা জেলায় শতভাগ চাল ক্রয় ডিজিটাল অ্যাপসের মাধ্যমে সফলতার সাথে সম্পন্ন হওয়ায় সমগ্র বাংলাদেশে ডিজিটাল উপায়ে চাল সংগ্রহ করায় তার প্রভাব পড়ে। ফলে এ বছর দেশের বিভিন্ন স্থানে ডিজিটাল অ্যাপস ব্যবহার করে চাল সংগ্রহের উদ্যোগ গ্রহণ  করা হয়।

খুলনার জেলার জেলা প্রশাসক জনাব মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জুম অ্যাপের মাধ্যমে সংযুক্ত ছিলেন খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য জনাব শেখ সালাউদ্দিন জুয়েল, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশিদ, খুলনা জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, খুলনা জেলা খাদ্য বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ, খুলনা জেলার কৃষক ও মিলমালিক প্রতিনিধিবৃন্দ, খাদ্য মন্ত্রণালয় ও খাদ্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ।

This post has already been read 294 times!

Fixing WordPress Problems developed by BN WEB DESIGN