Wednesday 22nd of May 2024
Home / প্রাণিসম্পদ / গরু আমদানির কোনো প্রশ্নই উঠে না -মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

গরু আমদানির কোনো প্রশ্নই উঠে না -মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

Published at এপ্রিল ২৮, ২০২৪

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মো. আব্দুর রহমান, এমপি।

নিজস্ব প্রতিবেদক: আমরা যেহেতু গবাদি পশু উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ সেহেতু আমাদের গরু আমদানির কোনো প্রশ্নই উঠে না- বলেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মো. আব্দুর রহমান, এমপি। আগামী কুরবানী ইদে চাহিদার তুলনায় গবাদি পশুর যোগান বেশি আছে বিধায় গবাদি পশুর কোন সংকট হবে না এবং কুরবানী উপলক্ষ্যে পশু আমদানির কোন পরিকল্পনা নেই বলে জানান মন্ত্রী।

আজ রবিবার (২৮ এপ্রিল) সচিবালয়ে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, বরং অবৈধ্য পথে যেন গরু না আসে সে বিষয়ে সতর্ক থাকার জন্য বর্ডারে যারা দায়িত্বে আছেন তাদেরকে নির্দেশনা প্রদান করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, আগামী কুরবানী ইদ উপলক্ষ্যে বাজারে গবাদি পশু সরবরাহে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় সব ধরণের প্রস্তুতি নিয়েছে। আমাদের গবাদি পশুর কোন ঘাটতি নেই। কুরবানী উপলক্ষ্যে মধ্যস্বত্বভোগীরা যেন বাজার অস্থিতিশীল করতে না পারে সে বিষয়ে সরকার সতর্ক আছে বলে জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, কুরবানীর পশু যেন মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকে সে বিষয়ে সকল প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশে কুরবানীর পশু প্রয়োজনের তুলনায় বেশি থাকায় গবাদি পশু আমদানির কোন কারণ নেই। দেশে যে পরিমান পশু খামারিরা উৎপাদন করেন, মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে যে পরিমান পশু উৎপাদিত হয় তাতে আমাদের গবাদি পশুর কোন অপ্রতুলতা নেই বলে এসময় তিনি মন্তব্য করেন। তিনি কুরবানী উপলক্ষ্যে কেউ যেন বাজার অস্থিতিশীল করতে না পারে সে বিষয়ে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন।

অত্যন্ত আনন্দের সাথে কুরবানীর ইদ পালনের আশাবাদ ব্যক্ত করে মন্ত্রী বলেন, গত বছর কুরবানীর পশুর সংখ্যা ছিল ১ কোটি ২৫ লক্ষ। এর মধ্যে ২২ লক্ষ অবিক্রিত ছিল। এ বছর আমাদের কুরবানীর জন্য ১ কোটি ৩০ লক্ষ পশু রেডি থাকবে বলে জানান মন্ত্রী। বিধায় কুরবানীতে পশুর সংকট থাকার কোন সুযোগ নেই। কুরবানী উপলক্ষ্যে আমাদের সকল ধরণের প্রস্তুতি আছে এবং এ বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও সতর্ক আছেন বলে জানান মন্ত্রী।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে মন্ত্রী বলেন, কুরবানী উপলক্ষ্যে চাঁদাবাজী, মধ্যস্বত্বভোগীদের কারণে দাম বেড়ে যাওয়া এসব প্রতিরোধে আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক করে তা নিয়ন্ত্রণের উপায় বের করা হবে।

This post has already been read 461 times!