Saturday 24th of February 2024
Home / আঞ্চলিক কৃষি / গাইবান্ধার অনাবাদি ও বসতবাড়ীর পতিত জমিতে বাড়ছে বস্তায় সবজি চাষ

গাইবান্ধার অনাবাদি ও বসতবাড়ীর পতিত জমিতে বাড়ছে বস্তায় সবজি চাষ

Published at ডিসেম্বর ৪, ২০২৩

রুস্তম আলী (গাইবান্ধা) : গাইবান্ধা জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার পৌরসভা ব্লকের ঘরে ঘরে অনাবাদি ও বসতবাড়ীর পতিত জমিতে বস্তায় সবজি চাষ। পলাশবাড়ী পৌরসভা ব্লকের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা শর্মিলা শারমিনের পরামর্শে কৃষকের বাড়ীতে অনাবাদি ও পতিত জমিতে  কৃষকরা বস্তায় মাটি ও জৈব সার দিয়ে মরিচ, আদা,লাউ,শশা,ফুলকপি,বাঁধাকপি,বেগুন,ঢেড়শ, রসুন,পেঁয়াজসহ বিভিন্ন সবজির চাষ করছেন।

সরেজমিন কথা হয় উদয় সাগর গ্রামের কৃষক মো. নুরুল ইসলামের সাথে। তিনি জানান তার বসত বাড়ীর পতিত জমিতে উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা শর্মিলা শারমিন আপার পরামর্শে ৪০০ টি বস্তায় বিভিন্ন ধরনের সবজি চাষ করেছি এবং ফসল খুব ভালো হয়েছে। আগে না বুঝার কারণে বসতবাড়ীর আঙ্গিনা পতিত ছিল। বস্তায় ভালো ফলন হওয়ায় সারা বছর বস্তায় সবজি চাষ করবো। একই গ্রামের কৃষক ইউনুস জানান শর্মিলা আপার পরামর্শে আমিও বস্তায় সবজি চাষ করেছি,খুব ভালো হয়েছে সবজি।

ইতোমধ্যে ব্লকের অনাবাদি ও বসতবাড়ীর পতিত জমিতে বস্তায় সবজি চাষ দেখতে ব্লক পরিদর্শন করেছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, গাইবান্ধা জেলার উপ পরিচালক কৃষিবিদ মো. খোরশেদ আলম,জেলা প্রশিক্ষণ অফিসার কৃষিবিদ মো. আশরাফুল আলম,অতিরিক্ত উপপরিচালক (উদ্যান) কৃষিবিদ মো. রোস্তম আলী ও পলাশবাড়ী উপজেলার উপজেলা কৃষি অফিসার ফাতেমা কাওসার মিশু।

উপপরিচালক কৃষিবিদ মো. খোরশেদ আলম জানান অতিরিক্ত পরিচালক মহোদয়ের নির্দেশনায় গাইবান্ধা জেলার প্রত্যেক উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তাকে নুন্যতম ২৫ টি বাড়ীতে ১০-১৫ টি বস্তায় সবজি চাষের জন্য বলা হয়েছে। সে মোতাবেক গাইবান্ধা জেলায় বস্তায় সবজি চাষ হচ্ছে এবং বেশ সাড়া ফেলেছে।

পৌরসভা ব্লকের উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা শর্মিলা শারমিন জানান  এ বছর ব্লকে উদ্ধুদ্ধকরণের মাধ্যমে ৬০ জন চাষীর মাধ্যমে বসতবাড়ীর পতিত জমিতে ১৫০০ টি বস্তায় সবজি চাষ করিয়েছি। বস্তায় সবজি চাষ ভালো হওয়ায় আগামীতে সকল বাড়ীতে বস্তায় সবজি চাষ হবে বলে আশা করছেন।

This post has already been read 458 times!