Saturday 4th of February 2023
Home / আঞ্চলিক কৃষি / ঘেরের পাড়ে শীতকালীন টমেটো চাষে উপকূলীয় কৃষকের ভাগ্যের পরিবর্তন

ঘেরের পাড়ে শীতকালীন টমেটো চাষে উপকূলীয় কৃষকের ভাগ্যের পরিবর্তন

Published at জানুয়ারি ৮, ২০২৩

ফকির শহিদুল ইসলাম (খুলনা সংবাদদাতা) : এসআরডিআই এর উদ্ভাবিত শীতকালীন টমেটো অর্ধশত ঘেরের পাড়ে চাষ করে কৃষকের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়েছে । জিকেবিএসপি প্রকল্পের সহায়তায় কৃষকরা নিরলস ভাবে পরিশ্রম করে সাফল্যের দোরগোড়ায় পৌছিয়েছে। শীতকালিন টমেটো চাষে  সেচের প্রয়োজন হয়না । টমেটো চাষ করে কৃষক ভাগ্যের পাশাপাশি অর্থনীতির চাকাও ঘুরিয়েছেন। প্রতি বিঘায় ফলন হয়েছে ৫০-৫৫ মেট্রিকটন। কৃষক প্রতি পাইকারী বিক্রি করছেন ৫০-৬০টাকা দরে। প্রতি বিঘায় বিক্রি করছেন ১ লাখ ২০ হাজার টাকা ।

সূত্র জানায়, গোপালগঞ্জ-খুলনা- বাগেরহাট-সাতক্ষীরা-পিরোজপুর কৃষি উন্নয়ন প্রকল্প এর জিকেবিএসপি মোল্লাহাট, চিতলমারী, ডমুরিয়া, ফকিরহাট, ফুলতলা, বটিয়াঘাটা, বাগেরহাট সদর গোপালগঞ্জ সদর উপজেলায় ৫০টি ঘেরের পাড়ে প্রতিটি ঘেরে ১জন করে কৃষক ৫০বিঘা জমিতে চাষ করেছেন টমেটো। ঘেরের পানিতে লবণাক্ততা নেই ফলে বাম্পার ফলন হয়েছে। অক্টোবর মাসের মাঝামাঝি রোপন করা হয় এবং নভেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহ থেকে বিক্রি শুরু হয়েছে। স্থানীয় চাহিদা পূরণ করে পদ্মাসেতু দিয়ে রাজধানী ঢাকায় পাঠানো হয়। এতে তারা অর্থনৈতিক ভাবে ঘুরে দাড়িয়েছেন। ফলনও বাম্পার হয়েছে। নিয়মিত সার ও কীট নাশক প্রয়োগ করতে হয়। আগাছা দমন করতে হয়। জিকেবিএসপি প্রকল্প থেকে কৃষকদের বিনা মূল্যে প্রশিক্ষণ, বীজ, সার, কীটনাশক এবং শ্রমিকদের শ্রম মজুরী প্রদান করা হয়েছে।

দামও বেশ ভালো পাওয়া গেছে। এই প্রকল্প থেকে প্রশিক্ষণ, বীজ, সার ও শ্রমিকের মজুরীসহ সব কিছু এই বিনা মূল্যে দেয়া হয়েছে। তাদের উদ্ভাবিত প্রযুক্তি ব্যবহার করায় ফলন ভালো হয়েছে। টমেটো অন্যতম একটি সবজি চাটনী, স্যুপ ও সালাদে ব্যবহার করা হয়। রয়েছে ভিটামিন ও খনিজ পদার্থ।

হাইব্রিড জাতের মিন্টু সুপার, বাহুবলি, বারি-২৮ লাভলী ও বিউটি ফুল টু টমেটো চাষে কৃষক অধিক লাভবান হয়েছেন। শীতকালীন চাষে অধিক লাভ। মূল্যও ভালো পাওয়া যায়।

ফুলতলা উপজেলার মশিয়ালি গ্রামের কৃষক তারেক আকুঞ্জি, জাহিদ আকুঞ্জি এবং ডুমুরিয়ার সাজিয়াড়া গ্রামের কৃষক মো. আ. রহিম শেখ বলেন, এই প্রকল্প থেকে সার, বীজ, প্রশিক্ষণ, শ্রমিকের মজুরীসহ সকল প্রকার উপকরণ বিনামূল্যে প্রদান ও সহযোগিতা করা হয়েছে। প্রকল্পে উদ্ভাবনী প্রযুক্তি ব্যবহার করার ফলে

ফলন ভালো হয়েছে। সার্বক্ষণিকভাবে প্রকল্প কর্মকর্তরা ক্ষেত পরিদর্শণ করে পরামর্শ দিয়ে আসছেন। গোপালগঞ্জ-খুলনা- বাগেরহাট -সাতক্ষীরা-পিরোজপুর কৃষি উন্নয়ন প্রকল্প (জিকেবিএসপি প্রকল্প) পরিচালক অমরেন্দ্রনাথ বিশ্বাস বলেন, শীতকালিন টমেটো চাষ করে কৃষক লাভবান হয়েছেন। টমেটোর দাম বেশী হওয়ার কারণে কৃষকের অর্থনৈতিক ভাবে উপকৃত হচ্ছেন। তিনি বেশী করে এসআরডিআই এর উদ্ভাবিত শীতকালিন টমেটো চাষ করতে কৃষকদের  আহবান জানান ।

This post has already been read 258 times!