Tuesday 6th of December 2022
Home / আঞ্চলিক কৃষি / বারি’তে কৃষিতে ড্রোনের ব্যবহার বিষয়ক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন

বারি’তে কৃষিতে ড্রোনের ব্যবহার বিষয়ক প্রশিক্ষণের উদ্বোধন

Published at নভেম্বর ৬, ২০২২

প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার ও প্রশিক্ষক হিসেবে বক্তব্য রাখছেন আইটিসি, ইউনিভার্সিটি অব টুয়েন্টি, নেদারল্যান্ডসের সহকারী অধ্যাপক ড. প্যানাজিওটিস নাইকটাস। এ সময় মঞ্চে উপবিষ্ট ছিলেন (বাম থেকে) বারি’র পরিচালক (প্রশিক্ষণ ও যোগাযোগ উইং) ড. ফেরদৌসী ইসলাম, পরিচালক (গবেষণা) ড. মো. তারিকুল ইসলাম এবং এএসআইসিটি বিভাগের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. আব্দুল মোনায়েম মিয়া।

গাজীপুর সংবাদদাতা: বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বারি) এর কৃষি পরিসংখ্যান এবং তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ (এএসআইসিটি) এর আয়োজনে রবিবার (০৬ নভেম্বর) রবিবার ইনস্টিটিউটের সেমিনার কক্ষে কৃষিতে ড্রোনের ব্যবহার বিষয়ক পাঁচ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ (Unmanned  Aerial Vehicle Training) শুরু হয়েছে। ০৬-১০ নভেম্বর পর্যন্ত চলমান `Tailor-Made Training on Open-Source Scientific Computing for Agro-Geospatial Big Data Analysis’ শীর্ষক এ প্রশিক্ষণে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট ও বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের বিজ্ঞানী, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিনিধিসহ মোট ২৬ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করছেন।

সকালে বারি’র পরিচালক (প্রশিক্ষণ ও যোগাযোগ উইং) ড. ফেরদৌসী ইসলাম এর সভাপতিত্বে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিচালক (গবেষণা) ড. মো. তারিকুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার ও প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইটিসি, ইউনিভার্সিটি অব টুয়েন্টি, নেদারল্যান্ডসের সহকারী অধ্যাপক ড. প্যানাজিওটিস নাইকটাস। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বারি’র এএসআইসিটি বিভাগের মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা  ড. মো. আব্দুল মোনায়েম মিয়া। অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণ কোর্সের সার্বিক বিষয় উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল এর প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. গোলাম মাহবুব।

পাঁচ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কোর্সে প্রশিক্ষণার্থীরা কৃষি গবেষণায় আধুনিক প্রযুক্তি তথা ড্রোন, স্যাটেলাইট ইত্যাদি ব্যবহার করে কিভাবে তথ্য সংগ্রহ করা যায় সে বিষয়ে হাতে-কলমে প্রশিক্ষণ লাভ করবে। বিশেষ করে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় এ প্রশিক্ষণ খুবই কার্যকর ভূমিকা পালন করবে বলে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়।

This post has already been read 2058 times!