Wednesday 22nd of May 2024
Home / মৎস্য / খুলনায় ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন কর্মসূচির অগ্রগতি শীর্ষক কর্মশালা

খুলনায় ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন কর্মসূচির অগ্রগতি শীর্ষক কর্মশালা

Published at সেপ্টেম্বর ৬, ২০২২

ফকির শহিদুল ইসলাম (খুলনা) : খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের মৎস্য সেক্টর এখন স্বয়ংসম্পূর্ণ। প্রধানমন্ত্রীর দক্ষ নেতৃত্বে মৎস্য সম্পদের ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। ফলে দেশে অর্থনৈতিক অগ্রগতি সাধিত হচ্ছে এবং ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য ভিত্তি সুদৃঢ় হচ্ছে। সিটি মেয়র বর্তমান সরকারকে অতীতের যে কোন সরকারের চেয়ে দক্ষ ও দেশপ্রেমিক সরকার হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, এই সরকারের আমলে সকল ক্ষেত্রে উন্নয়ন ত্বরান্বিত হচ্ছে। ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়িত কার্যক্রমের অগ্রগিত শীর্ষক পর্যালোচনা কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন কেসিসি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।

সিটি মেয়র সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকালে নগরীর গল্লামারীস্থ মৎস্য উৎপাদন খামারে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপান প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়িত কার্যক্রমের অগ্রগতি শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। জেলা মৎস্য কর্মকর্তার দপ্তর খুলনা এ কর্মশালার আয়োজন করে।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা জয়দেব পাল-এর সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন মৎস্য অধিদপ্তর-খুলনার উপপরিচালক মো. তোফাজউদ্দীন আহমেদ, উপপরিচালক (পরিদর্শন ও মান নিয়ন্ত্রণ) মো. আবু ছাইদ ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ এন্ড মেরিন ডিসিপ্লিনের প্রফেসর মো. আব্দুর রউফ।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সিটি মেয়র বর্তমান সরকারের জনকল্যাণমূলক কর্মকান্ডের উদাহরণ টেনে বলেন সরকার মাতৃত্বকালীন ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা প্রদানসহ বিভিন্ন ভাতা প্রথা চালু করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দূরদর্শী জননেতা হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারই সময়োপযোগী কর্মদ্যেগের ফলে দেশে ইলিশের উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে।

কর্মশালায় অন্যান্যোর মধ্যে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের ডেপুটি প্রজেক্ট ডাইরেক্টর মাহবুবুর রহমানসহ খুলনা বিভাগের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ও মৎস্যজীবীগণ কর্মশালায় বক্তৃতা করেন ও উপস্থিত ছিলেন। সঞ্চালনা করেন ফুলতলা উপজেলার সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা রনজিৎ কুমার।

This post has already been read 1593 times!