Thursday 9th of February 2023
Home / অন্যান্য / শেখ হাসিনার দয়ায় খালেদা জিয়া বাসায় আরাম-আয়েশে আছেন -কৃষিমন্ত্রী

শেখ হাসিনার দয়ায় খালেদা জিয়া বাসায় আরাম-আয়েশে আছেন -কৃষিমন্ত্রী

Published at আগস্ট ৩১, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দয়া ও বদান্যতায় খালেদা জিয়া জেলের পরিবর্তে বাসায় আরাম- আয়েশে আছেন বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক, এমপি। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামী। তার জেলে থাকার কথা।

আজ বুধবার (৩১ আগস্ট) বিকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল মিলনায়তনে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল শাখা এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

বিএনপি আন্দোলনের নামে দেশে রাজনৈতিক অস্থিরতা তৈরির চেষ্টা করলে তা যে কোন মূল্যে কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে । তিনি বলেন, দেশ ও জাতির উন্নয়নের স্বার্থে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা প্রয়োজন। কিন্তু বিএনপি জামায়াত দেশে অস্থিরতা তৈরির চেষ্টা করছে। তারা চাচ্ছে ‘৭৫ এর মতো একটা পরিস্থিতি তৈরি হোক; প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে যাতে হত্যা করতে পারে সেরকম পরিবেশ সৃষ্টি হোক। কিন্তু তাদেরকে এটি করতে দেয়া হবে না। যে কোন মূল্যে তাদেরকে প্রতিহত করা হবে। তাদের সকল ষড়যন্ত্রের মূলোৎপাটন করা হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডে জিয়াউর রহমান জড়িত। জিয়া সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা নিয়েই মানবেতিহাসের নিষ্ঠুরতম ও বর্বরোচিত  এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত হয়েছিল। আগামী প্রজন্মের জানার জন্য ইতিহাসে এ বিষয়টি লিপিবদ্ধ হওয়া উচিত। যাতে আগামী প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা জানতে পারে জিয়া কিভাবে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ডে জড়িত ছিল।

স্বাচিপ ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল শাখার সভাপতি ডা. জহিরুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, স্বাচিপ সভাপতি ডা. ইকবাল আর্সলান, মহাসচিব ডা. এমএ আজিজ, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতালের পরিচালক ডা. কাজী দীন মোহাম্মদ, যুগ্ম পরিচালক ডা. বদরুল আলম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

This post has already been read 714 times!