Wednesday 7th of December 2022
Home / আঞ্চলিক কৃষি / বন্যায় সিলেটে কৃষিখাতেই ক্ষতি ৩৪ কোটি টাকা!

বন্যায় সিলেটে কৃষিখাতেই ক্ষতি ৩৪ কোটি টাকা!

Published at জুন ৪, ২০২২

শহীদ আহমেদ খান (সিলেট) : এবারের বন্যায় সিলেটে কৃষিখাতেই ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৩৪ কোটি টাকা। বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় নষ্ট হয়েছে বোরো ধান, আউশের বীজতলা ও সবজি ক্ষেত। তবে আমন মৌসুমের আগেই ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তার কথা জানিয়েছে কৃষি বিভাগ।

বোরো মৌসুমের শেষে আকস্মিক বন্যায় তলিয়ে গেছে সিলেটের ১ হাজার ৭০৪ হেক্টর জমি। পানিতে পচে নষ্ট হয়েছে ১ হাজার ৬শ হেক্টর আউশের বীজতলা এবং ১৫৩৮ হেক্টর জমির সবজি । এসব ফসল হারিয়ে চরম হতাশায় দিন কাটাচ্ছেন কৃষকরা।

জেলায় এবার আউশ রোপণের লক্ষ্য ধরা হয়েছে ৭৮ হাজার হেক্টর জমিতে। তবে বীজতলা তৈরি না করে সরাসরি বীজ বপনের পরামর্শ দিয়েছেন কৃষি কর্মকর্তারা। এবারের বন্যায় ৫৭ হাজার কৃষক সর্বশান্ত হয়েছেন। তাদের আমন মৌসুমে প্রণোদনা দেয়ার কথা জানিয়েছে কৃষি বিভাগ। কৃষি বিভাগের হিসাবে এবার সিলেটে ২৫ কোটি ৭১ লাখ টাকার বোরো ধান এবং ৮ কোটি ২০ লাখ টাকার আউশের বীজতলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে সিলেট সদর উপজেলার কান্দিগাঁও ইউনিয়নে দেখা যায়, মাঠের পর মাঠ পুরোটায় তলিয়ে গেছে বন্যার পানিতে। ডুবে গেছে এ সব জমিনের ধান, সবজি সহ নানা ফসল। পরিশ্রমের ফসল হারিয়ে কৃষকরা চরম উদ্বিগ্ন অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন। তাদের এ ক্ষতি পুষিয়ে নিতে কি করতে হবে, তা ভেবে হয়রান ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা।

ইউনিয়নের বসন্তরা গ্রামের কৃষক মখলিছ মিয়া জানান, ২ একর ৭০ শত জমিতে লাগানো ঝিঙ্গা, করলা, তরী, চিচিঙ্গা সহ সব ধরনের সবজি বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। এতে তার ২ লক্ষ টাকার ক্ষতি সাধিত হয়েছে। তিনি এ ক্ষতি কি ভাবে কাটিয়ে ওঠবেন তা ভেবে পাচ্ছেন না।

কুমারগাঁওয়ের সবজি চাষী আব্দুল আহাদের সাথে কথা হয়। তিনি জানান, এবারের বন্যায় তার এক একর সবজি ক্ষেতের পুরোটাই বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তিনি এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করেন।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সিলেটের উপপরিচালক কাজী মুজিবুর রহমান বলেন, বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় নষ্ট হয়েছে বোরো ধান ও আউশের বীজতলা। এবার সিলেটে বন্যায় ২৫ কোটি ৭১ লাখ টাকার বোরো ধান এবং ৮ কোটি ২০ লাখ টাকার আউশের বীজতলা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আমন মৌসুমের আগেই ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা দেয়া হবে বলে তিনি জানান।

This post has already been read 1110 times!