Wednesday 7th of December 2022
Home / প্রাণিসম্পদ / ডেইরি খাতের টেকসই উন্নয়নে জাত উন্নয়ন ও চাহিদা বৃদ্ধির বিকল্প নেই -ড. আনসারী

ডেইরি খাতের টেকসই উন্নয়নে জাত উন্নয়ন ও চাহিদা বৃদ্ধির বিকল্প নেই -ড. আনসারী

Published at জুন ২, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের ডেইরি সেক্টরের টেকসই উন্নয়নের জন্য উন্নত জাত উন্নয়ন ও চাহিদা বৃদ্ধির বিকল্প নেই। আমাদের ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার পুষ্টি চাহিদা মেটাতে একদিকে যেমন উন্নত জাতের গরু নিয়ে কাজ করতে হবে, তেমনি মানুষকে দুধের প্রতি আকৃষ্ট করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে হবে। মানুষ তখনই দুধের প্রতি আকৃষ্ট হবে ‍যখন সে স্বল্প মূল্যে সেটি পাবে এবং স্বল্পমূল্যে দুধ তখনই সরবরাহ করা সম্ভব যখন এর উৎপাদন খরচ কমিয়ে আনা যাবে। আর এই উৎপাদন খরচ কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে গরুর জাত উন্নয়নের বিকল্প নেই।

বুধবার (০১ জুন) রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ মিলনায়তনে  বিশ্ব দুগ্ধ দিবস ২০২২ উদযাপন ও ডেইরি আইকন সেলিব্রেশন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন এসিআই এগ্রিবিজনেস প্রেসিডেন্ট ড. এফএইচ আনসারী

ড. আনসারী বলেন, এজন্য বেসরকারি খাতে আরো কাজে লাগাতে হবে। সরকার ও বেসরকারি খাত যদি পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে কাজ করা যায় এবং বিদ্যমান সমস্যাগুলো দূর করা যায়, তবে দুধে স্বয়ংসম্পূর্ণ হতেও আমাদের সময় লাগবে না। আমাদের মার্কেট সাইজ বাড়াতে হবে, গতানুগতিক দুগ্ধ পণ্য উৎপাদনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকলে চলবে না; দুধের বৈচিত্রপূর্ণ খাবার উৎপাদন ও বিপণনের সঠিক কৌশল নির্ধারন করতে হবে।

ডেইরী আইকন সেলিব্রেশন সম্পর্কে ড. আনসারী বলেন, বাংলাদেশে এই প্রথম ডেইরী সংশ্লিষ্ট খামারি ও প্রতিষ্ঠানকে আইকন হিসেবে স্বীকৃতি প্রদান ও সম্মানিত করা একটি মাইলফলক। এই প্রথাটি চলমান থাকবে এবং এ থেকে দেশে খামারি ও উদ্যোক্তাগণ উৎসাহিত হবেন বলে আমি মনে করি। একই সাথে দুগ্ধজাত পণ্যের একটি প্রদর্শনী উপস্থিত দর্শকবৃন্দের বৃহৎভাবে ভাবনার প্রেরণা যোগাবে।

তিনি বলেন, মাংস ও ডিম উৎপাদনে দেশ ইতোমধ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করেছে এবং দুধ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণতার পথে। প্রাণিসম্পদ ও ডেইরী উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে প্রাণিসম্পদের উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি, বাজার ব্যবস্থাপণার সম্প্রসারণ এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি খামারিদের টেকসই পালন ব্যবস্থা সৃষ্টি ইত্যাদি অধিদপ্তরের একটি মহৎ ও গুরুত্বপূর্ণ উদ্যোগ। সরকার প্রাণিসম্পদ খাতের সার্বিক উন্নয়নের জন্য বিশেষভাবে উৎসাহিত করছে, যা দেশের জনগণের খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা এবং আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখছে।

“এসিআই লিমিটেড এর মিশন হলো- জ্ঞান, দক্ষতা ও টেকনোলজির দায়িত্বশীল প্রয়োগের মাধ্যমে খামারীদের জীবন মান উন্নয়ন করা। আমরা দেশের প্রাণিসম্পদ উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির জন্য সরকারের পাশাপাশি কাজ করে যাচ্ছি। এসিআই লিমিটেড প্রাণিসম্পদের সংরক্ষণ ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে চাহিদা অনুযায়ী পূর্ণাংগ সমাধান প্রদান করে যাচ্ছে” যোগ করেন ড. আনসারী।

This post has already been read 1243 times!