Wednesday 7th of December 2022
Home / পোলট্রি / ফিডের উৎপাদন খরচ কমাবে সর্বোত্তম মানের এনজাইম

ফিডের উৎপাদন খরচ কমাবে সর্বোত্তম মানের এনজাইম

Published at মে ২৫, ২০২২

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারাবিশ্বে প্রত্যেকটা কাঁচামালের ঊর্ধ্বগতির তাপ লেগেছে বাংলাদেশের প্রতিটি সেক্টরে; বাদ যায়নি পোলট্রি, মাছ ও পশু খাদ্য তৈরির উপকরণ। ফিড তৈরির সবগুলো কাঁচামালের দাম অস্বাভাবিক রকম বেড়ে যাওয়াতে অস্বস্তি বিরাজ করছে দেশের পোলট্রি, মৎস্য, ডেইরি তথা সামগ্রিক প্রাণিজ আমিষ উৎপাদন খাতে। ফিডের দাম বেড়ে যাওয়াতে দারুন বিপাকে পড়েছেন খামারিগণ, হ্যাচারি, ফিড মিলারগণ; লাভ তো দূরে থাক ডিম ও মুরগির উৎপাদন খরচ উঠাতে পারছেন না খামারিসহ সংশ্লিষ্ট শিল্পের উদ্যোক্তাগণ।

এমতাবস্থায় দেশের প্রাণিজ আমিষ উৎপাদন খাতের সবাই যখন উপায় খুঁজছেন- কীভাবে খাদ্য (ফিড) উৎপাদন খরচ কমানো যায়; ঠিক তখনই এর সমাধান দেয়ার চেষ্টা করেছেন দেশের প্রাণিস্বাস্থ্য সেবা খাতের স্বনামধন্য কোম্পানি ডক্টর’স এগ্রোভেট লিমিটেড ও দক্ষিণ কোরিয়ার আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন কোম্পানি (CJ Bio) সিজে বায়ো। উল্লেখিত কোম্পানি দুটির যৌথ আয়োজনে এক সেমিনারের মাধ্যমে দেখানো হয়, কীভাবে সর্বোত্তম মানের এনজাইম ব্যবহার করে ফিডের উৎপাদন খরচ কমিয়ে আনা যায়; যার ইতিবাচক প্রভাব পড়বে দেশের সামগ্রিক প্রাণিজ আমিষ খাতে।

মঙ্গলবার (২৪ মে) রাজধানীর অভিজাত হোটেল লা মেরিডিয়ানে “Reducing Feed Cost by Selecting Optimum Enzymes” শীর্ষক উক্ত সেমিনারের আয়োজন করা হয়। মূলত ফিডের উৎপাদন খরচ কমিয়ে আনার সঠিক উপাদান ও  কৌশল সেক্টর সংশ্লিষ্টদের মাঝে ছড়িয়ে দেয়াই উক্ত সেমিনারের মূল উদ্দেশ্য -আয়োজক সূত্রের দাবী। সেমিনারে দেশের পোলট্রি সেক্টরের উদ্যোক্তা, কনসালট্যান্ট, বিভিন্ন সরকারি বেসরকারি  উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

সিজে বায়ো (CJ Cheiljedang Corporation) এর কান্ট্রি ম্যানেজার (বাংলাদেশ) মো. দিলশাদ আলম -এর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডক্টর’স এগ্রোভেট লিমিটেড -এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. মো. রাফিউল করিম। ডা. রাফিউল করিম আগত অতিথিদের শুভেচ্ছা জানান এবং আয়োজনের মূল উদ্দেশ্যের ব্যাপারে সবার সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেন।

অনুষ্ঠানে “Reducing Feed Cost by Selecting Optimum Enzymes” শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন Dr. Hyeonho Yun, Ph.D in Animal Nutrition, Technical Manager, APAC Technical Solution Center, CJ Bio APAC Co., LTd. সেমিনারে তিনি মূলত CJ Bio উৎপাদিত PHYTASE, XYLANASE, MANNANASE ও COMPOUND নামক চারটি এনজাইম ব্যবহারের মাধ্যমে কীভাবে ফিডের উৎপাদন খরচ কমিয়ে আনা যায় সে ব্যাপারে বিস্তারিত আলোকপাত করেন।

Dr. Hyeonho Yun বলেন, সারাবিশ্বেই ফসফরাসের দাম অত্যাধিক বেড়ে যাওয়াতে এর বিকল্প হিসেবে (Phytase) ফাইটেজ ব্যবহার করা যেতে পারে। এছাড়াও ফসফরাস হচ্ছে মনোগ্যাস্ট্রিকের প্রধান তিনটি খরচের একটি, যার পরিমাণ প্রায় ৮ শতাংশ।

“ফাইটেজ এর এন্টি নিউট্রিশনাল প্রভাব সম্পর্কে তিনি জানান, এটি মিনারেল, স্টার্চ ও প্রোটিন হজম কমায়। সিজে বায়ো (CJ Bio) উৎপাদিত ফাইটেজ বাজারের অন্যান্য ফাইটেজ এর তুলনায় থার্মো স্থায়ীত্ব বেশি; অন্যদের থার্মোস্থায়ীত্ব যেখানে ৭১-৭৭% সেখানে সিজে বায়ো ফাইটেজ এর থার্মো স্থায়ীত্ব ৮০ শতাংশ”- যোগ করেন Dr. Hyeonho Yun.  এ সময় তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও ইন্দোনেশিয়ার ব্রয়লার ফার্মে সিজে বায়ো এনজাইম ব্যবহারের ফলাফল দেখান। এছাড়াও XYLANASE সম্পর্কে তিনি বলেন, এটি সিজে বায়ো (CJ Bio) এর সবচেয়ে আকর্ষণীয় পণ্য এবং এটি COMPOUND এর সাথে ব্যবহার যোগ্য।

আলোচিত বিষয়ের ওপর উন্মুক্ত প্রশ্নোত্তর পর্বের আয়োজন করা হয়। Dr. Hyeonho Yun এ সময় আগত অতিথিদের প্রতিটি প্রশ্নের সাবলীল উত্তর দেন।

সেমিনারে র‌্যাফেল ড্র’র আয়োজন করা হয়, পরিচারলনা করেন ডক্টর’র এগ্রোভেট এর পরিচালক ডা. তুষার চৌধুরী। র‌্যাফেল ড্র বিজয়ী মোট ১৫ জন সৌভাগ্যবানের হাতে আকর্ষণীয় সব পুরস্কার তুলে দেন ডক্টর’স এগ্রোভেট লিমিটেড -এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ডা. মো. রাফিউল করিম। এ সময় তাঁকে সহযোগিতা করেন কৃষিবিদ মোহাম্মদ নাজমুস সাকিব হামিম।

সেমিনারে সমাপনী বক্তব্য রাখেন সিজে বায়ো (CJ Cheiljedang Corporation) এর সেলস ডিরেক্টর (ইন্ডিয়ান সাব কন্টিনেন্ট) ডা. পরান শর্মা ) (Dr. Paran Sarma)। তিনি আগত অতিথিদের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশের মাধ্যমে নৈশভোজের আমন্ত্রণ জানান।

সেমিনারে অন্যান্যের মধ্যে Mr. Steven RYU, CJ Cheiljedang Corporation, Business Development in South West Asia সহ ডক্টর’স এগ্রোভেট লিমিটেড -এর বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, ডক্টর’স এগ্রোভেট লিমিটেড (CJ Bio) সিজে বায়ো এর স্থানীয় (বাংলাদেশ) পরিবেশক।

This post has already been read 4335 times!