Friday 27th of May 2022
Home / অন্যান্য / প্রবাসে দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচারকারীদের উপযুক্ত জবাব দিতে হবে – শ ম রেজাউল করিম

প্রবাসে দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচারকারীদের উপযুক্ত জবাব দিতে হবে – শ ম রেজাউল করিম

Published at মার্চ ১৩, ২০২২

প্রবাসে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য যারা অপপ্রচারে লিপ্ত তাদের উপযুক্ত জবাব দিতে প্রবাসী বাঙালিদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে এ সব উন্নয়নের তথ্য প্রবাসী বাঙালিসহ বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরারও এ সময় আহ্বান জানান তিনি।

গতকাল শনিবার (১২ মার্চ) যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টনে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব নিউ ইংল্যান্ড আয়োজিত এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান মন্ত্রী।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব নিউ ইংল্যান্ড এর সাধারণ সম্পাদক তানভীর মুরাদের সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনস্যুলেট জেনারেল মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব নিউ ইংল্যান্ড এর সভাপতি পারভীন চৌধুরী, সহসভাপতি শহিদুল ইসলাম রনি, সহসাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন, সাবেক সভাপতি আসিফ চৌধুরী, নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইকবাল প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের উদ্দেশে মন্ত্রী আরো বলেন, “দেশ গঠনে প্রবাসীদের বিশাল ভুমিকা আছে। আপনাদের পাঠানো রেমিটেন্সের টাকা পদ্মাসেতু, মেট্রোরেল, কর্ণফুলী নদীর নিচে টানেলসহ দেশের অন্যান্য উন্নয়নে অবদান রাখে। আপনাদের কষ্টই বাংলাদেশের সুন্দর ও বিকশিত রূপ দিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। প্রবাসে বাংলাদেশকে তুলে ধরার দায়িত্ব রয়েছে আপনাদের”।

তিনি আরো বলেন, “প্রবাসী বাঙালিদের অধিকাংশই মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাস করেন। বাংলাদেশ স্বাধীন না হলে আজকের বাংলাদেশ হতো না। বাংলাদেশে আজকের অবকাঠামো উন্নয়নসহ অন্যান্য উন্নয়ন হতো না। তবে স্বাধীনতাবিরোধী চক্র এখনও শেষ হয় নি। তারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছদ্দবেশে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদোহিতাপূর্ণ জঘন্য মিথ্যাচার চালাচ্ছে। দেশের উন্নয়ন তাদের চোখে পড়ে না। শেখ হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে দেশে ও দেশের বাইরে তারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। দেশের বাইরে সবক্ষেত্রে না পারলেও দেশের মধ্যে যেখানেই সাম্প্রদায়িক অপশক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে সেখানেই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে”।

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে উল্লেখ করে এ সময় মন্ত্রী বলেন, “শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে অন্ধকার থেকে আলোর দিকে নিয়ে যাচ্ছেন। তাঁর নেতৃত্বে উন্নয়নের অগ্রযাত্রা সারা বিশ্বের কাছে বিস্ময়কর হলেও একশ্রেণীর মানুষ নেতিবাচক, মিথ্যাচারপূর্ণ ও ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে। তারা মিথ্যাচার করে, বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশের উন্নয়ন সম্পর্কে মিথ্যা তথ্য সরবরাহ করে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্নভাবে জঘন্য অপপ্রচার চালিয়ে বাংলাদেশে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির অপচেষ্টা করে। তারা কার্যত দুর্নীতির দায়ে কারাদন্ডপ্রাপ্ত তারেক রহমান, খালেদা জিয়া এবং দেশে ও দেশের বাইরে পালিয়ে বেড়ানো যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষের লোক। এ জাতীয় অপপ্রচার যারা চালাচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে প্রবাসের বাঙালি কমিউনিটিকে সঙ্গে নিয়ে আমাদের কাজ করতে হবে। প্রবাসীদের বাংলাদেশের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে, লাল সবুজের পতাকাকে হৃদয়ে ধারণ করে বিশ্বাস রাখতে হবে শেখ হাসিনার হাতে যতদিন দেশ, ততদিন পথ হারাবে না বাংলাদেশ।

এর আগে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব নিউ ইংল্যান্ড এর নেতৃবৃন্দ মন্ত্রীকে ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানান।

This post has already been read 220 times!