Friday 27th of May 2022
Home / পোলট্রি / ছয় দফা দাবী আদায়ে আবারো মাঠে নামছে বাংলাদেশ প্রান্তিক পোল্ট্রি শিল্প সংগঠন

ছয় দফা দাবী আদায়ে আবারো মাঠে নামছে বাংলাদেশ প্রান্তিক পোল্ট্রি শিল্প সংগঠন

Published at ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২

ফাইল ফটো।

নিজস্ব প্রতিবেদক: ছয় দফা দাবী আদায়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ প্রান্তিক পোল্ট্রি শিল্প সংগঠন কেন্দ্রীয় কমিটি। এর আগে প্রস্তুতি হিসেবে আগামী বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন ডেকেছে সংগঠনটি। এছাড়াও ওইদিন শান্তিপূর্ণ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশেরও ডাক দেয়া হয়েছে। দাবি আদায়ে সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত আছে উল্লেখ করে সংগঠনটির চেয়ারম্যান মো. মফিজুল ইসলাম (মল্লিক) দেশের প্রতিটি জেলার পোলট্রি খামারিদের মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশে যোগদানের আহ্বান জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ প্রান্তিক পোল্ট্রি শিল্প সংগঠন কেন্দ্রীয় কমিটির ৬টি দাবী নিচে উল্লেখ করা হলো-

প্রথম দাবি : ব্রয়লার মুরগির ৫০ কেজি প্রতি বস্তা খাদ্যের দাম ২০০০ থেকে ২১০০ টাকার মধ্যে আনতে হবে এবং খাদ্যের মান বৃদ্ধি করতে হবে লেয়ার সোনালী সহ অন্যান্য মুরগির খাদ্যের দাম ৫০ কেজি প্রতি বস্তা ১৭০০ থেকে ১৮০০ টাকার মধ্যে আনতে হবে।।

দ্বিতীয় দাবি : ব্রয়লার ও লেয়ার সকল প্রকার মুরগির বাচ্চার দাম বাৎসরিক ভাবে ২০ থেকে ২৫ টাকার মধ্যে আনতে হবে এবং বাচ্চার মান বৃদ্ধি করতে হবে।।

তৃতীয় দাবি : খাদ্য ও বাচ্চা উৎপাদনকারী কোম্পানিগুলো তারা নিজেরা খাদ্য বাচ্চা উৎপাদন করে খামারিদের কাছে বিক্রি করে, এবং নিজেরা ব্রয়লার ও লেয়ার সহ সকল প্রকার রেডি মুরগি উৎপাদন করে, বাজার নিয়ন্ত্রণ করে তাই খামারিরা ধ্বংসের পথে, সেই ক্ষেত্রে, কোম্পানি গুলো রেডি মুরগি উৎপাদন করা বন্ধ করতে হবে।।

চতুর্থ দাবি : আমরা প্রণোদনার টাকা চাইনা। আমরা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে বিনীতভাবে অনুরোধ থাকবে বাংলাদেশের প্রতিটি উপজেলায় ৩০০ জন নিবন্ধিত খামারিকে স্বল্পসুদে সহজশর্তে প্রতি ১০০০ মুরগি পালনকারী খামারীকে কমপক্ষে ২ লক্ষ টাকা ঋণ দিতে হবে।।

পঞ্চম দাবি : প্রতি একজন খামারি দশ হাজার মুরগির উপরে কোন প্রকার রেডি মুরগি উৎপাদন করতে পারবে না।।

ষষ্ঠ দাবি : সারা বাংলাদেশ থেকে উঠে আসা প্রান্তিক খামারিদের কেন্দ্রীয় পূর্ণাঙ্গ কমিটির প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয় কর্তৃক আমাদের সংগঠনের রেজিস্ট্রেশন নাম্বার দিতে হবে এটা আমাদের জোর দাবি সারা বাংলাদেশে প্রান্তিক খামারিদের।

This post has already been read 2092 times!