Tuesday 27th of September 2022
Home / পরিবেশ ও জলবায়ু / কপোতাক্ষ নদ পূনঃ খনন করায় নৌ-পথে যোগাযোগ সুগম হবে- এমপি বাবু

কপোতাক্ষ নদ পূনঃ খনন করায় নৌ-পথে যোগাযোগ সুগম হবে- এমপি বাবু

Published at ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২২

ফকির শহিদুল ইসলাম (খুলনা): খুলনা-৬ (কয়রা-পাইকগাছা) আসনের সংসদ সদস্য মোঃ আক্তারুজ্জামান বাবু বলেছেন, কপোতাক্ষ নদ পূনঃ খনন (২য় পর্যায়) কাজ আজ থেকে শুরু হবে এবং এ খনন কাজ শেষ হলে কয়রা, পাইকগাছা, আশাশুনি ও তালা উপজেলার জলাবদ্ধতা নিরসন হবে। সাথে সাথে নৌ-পথে ব্যবসা বাণিজ্য স্বল্প খরচে, যোগাযোগ ব্যবস্থা সুগম হবে।

শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১ টায় কয়রা উপজেলার আমাদী বাজারে পার্শ্ববর্তী কপোতাক্ষ নদীর তীরে কপোতাক্ষ নদের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ শীর্ষক প্রকল্পের (২য় পর্যায়) আওতায় কয়রার আমাদী বাজার থেকে তালা উপজেলার শালিকা পর্যন্ত ৩০ কিলোমিটার নদী খননের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, দীর্ঘ ২ যুগ কপোতাক্ষ নদীর এই ৩০ কিলোমিটার ভরাট হয়ে যাওয়ায় প্রতি বছর জলাবদ্ধতা বেড়ে চলেছে এবং ভাটি অঞ্চলের সব ধরনের নৌ পথের ব্যবসায়ীরা পড়েছেন মহা-বিপাকে। সাংসদ বাবু বলেন, কপোতাক্ষ নদ ভরাট হওয়ায় দু’ পারের কিছু অসাধু ব্যক্তি নদী ভরাট জমি দখল করে বাড়ী ঘর থেকে শুরু করে, চিংড়ী ঘের সহ বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করেছেন। তাই এ অঞ্চলের মানুষের স্বল্প খরচে নৌ-পথে বাণিজ্য, কম খরচে যাতায়াত এবং অতি বৃষ্টির পানি নিস্কাশনের জন্য দ্রুত নদী খননের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

অনুষ্ঠানে পানি উন্নয়ন বোর্ডের খুলনার প্রধান প্রকৌশলী তাহমিদুল ইসলাম জানান, এক সময় বিদেশীদের অর্থের উপর নির্ভর করে বেঁড়িবাঁধ সহ নদী খননের জন্য অপেক্ষা করতে হত। কিন্তু বর্তমান সরকার ৮০ ভাগ এবং বিদেশীদের কাছ থেকে মাত্র ২০ ভাগ অর্থ নিয়ে পাওউবোর কার্যক্রম করছেন।

আমাদী ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান জুয়েলের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন, খুলনার তত্ববধায়ক প্রকৌশলী পিযুস কৃষ্ণ কুন্ড, যশোরের নির্বাহী প্রকৌশলী তাওহীদুল ইসলাম, কেশবপুর উপজেলা বিভাগীয় প্রকৌশলী ফিরোজ হোসেন, কয়রা উপজেলা চেয়ারম্যান এস এম শফিকুল ইসলাম, পাইকগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম, কয়রা ভাইস চেয়ারম্যান কমলেশ কুমার সানা, পাইকগাছা ভাইস চেয়ারম্যান শিয়াবুদ্দীন ফিরোজ বুলু, অধ্যক্ষ চয়ন কুমার রায়, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও কয়রা সদর ইউপি চেয়ারম্যান এস এম বাহারুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ গাজী, সরদার নূরুল ইসলাম কোম্পানী, শাহাজাদা মোঃ আবু ইলিয়াস, শাহনেওয়াজ শিকারী, আওয়ামী লীগ নেতা জাফরুল ইসলাম পাড়, মঈনুল ইসলাম, নির্মল কুমার দাস, গণেশ মন্ডল, প্রভাষক নজরুল ইসলাম, প্রভাষক মশিউর রহমান, প্রভাষক বাবলু, বিভূতি ভূষন সানা, যুবলীগ নেতা আজিজুল হাকিম, আকরামুল ইসলাম, কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু, ছাত্রলীগ নেতা রায়হান পারভেজ রনি, মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী সুমাইয়া আমিন লতা, নাজমা কামাল, শেখ জুলিসহ কয়রা ও পাইকগাছা উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

This post has already been read 1203 times!