Friday 20th of May 2022
Home / অন্যান্য / সুন্দরবনসহ সব রুটে পর্যটকবাহী লঞ্চ বন্ধের নির্দেশ

সুন্দরবনসহ সব রুটে পর্যটকবাহী লঞ্চ বন্ধের নির্দেশ

Published at জানুয়ারি ১৪, ২০২২

ফকির শহিদুল ইসলাম (খুলনা) : ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সুন্দরবন – পৃথিবীর  একক বৃহত্তম প্রাকৃতিক ম্যানগ্রোভ বন হচ্ছে আমাদের সুন্দরবন। বঙ্গোপসাগরের কোল ঘেঁষে খুলনা, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরা জেলায় অবস্থিত পৃথিবীর ম্যানগ্রোভ এ সুন্দরবন অবস্থিত।

তৃতীয় ধাপের করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় খুলনা থেকে সুন্দরবন সহ সব রুটে পর্যটকবাহী লঞ্চ চলাচল বন্ধের নির্দেশনা দিয়েছেন বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান। বুধবার (১২ জানুয়ারি) বিকেলের দিকে এ নির্দেশনা খুলনায় পাঠানো হয়। তবে ট্যুর অপারেটর এ্যাসোসিয়েশন অফ সুন্দরবনের নেতৃবৃন্দ নিদের্শনাপত্র প্রত্যাহার চেয়ে আজ বিকেলে চেয়ারম্যান বরাবর চিঠি পাঠিয়েছেন।

গত কয়েকদিনের ব্যবধানে দেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের মাত্রা ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়লে সরকারের পক্ষ থেকে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়্। আরোপ করা হয় স্থলযান ও নৌযানের ওপর। সে অনুযায়ী বিআইডব্লিউটিএ কতৃপক্ষ এ নির্দেশনাপত্র পাঠায়। তারই আলোকে সুন্দরবনগামী পর্যটকবাহী সকল বহন বন্ধ রাখার ঘোষণা করা হয়।

অপরদিকে ট্যুর অপারেটর এসোসিয়েশন অফ সুন্দরবন এর সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হাসান ডেভিড বলেন, বুধবার বিআইডব্লিটিএ’র চেয়াম্যান সুন্দরবনসহ সব রুটে পর্যটকবাহী লঞ্চ বন্ধের নির্দেশনা সম্বলিত একটি পত্র দিয়েছেন। আজ আমরাও এটি চালু রাখার জন্য চেয়ারম্যানের নিকট চিঠি পাঠিয়েছি। অনেক পর্যটক বিধিনিষেধের ব্যাপারে জানেন না। অনেক পর্যটক খুলনায় সমবেত হয়েছে। তাদের ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব নয়। শুক্রবার কয়েকটি লঞ্চ পর্যটক নিয়ে সুন্দরবনের উদ্দেশ্যে খুলনা থেকে ছেড়ে যাবে। চিঠি ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। রোববার চেয়ারম্যানের ইতিবাচক উত্তরের আশা করছেন তিনি। তাছাড়া গত দু’বছর করোনা ভাইরাসের কারণে তাদের সংগঠন লাভের কোন মুখ দেখেনি। এ মুহুর্তে বন্ধ করে দিলে তাদের আর কোন উপায় থাকবেনা বলে তিনি আরও জানিয়েছেন।

This post has already been read 1011 times!