Wednesday 7th of December 2022
Home / সংগঠন ও কর্পোরেট সংবাদ / বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার : স্বর্ণপদক পেলেন এসিআই চেয়ারম্যান এম আনিস উদ-দৌলা

বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার : স্বর্ণপদক পেলেন এসিআই চেয়ারম্যান এম আনিস উদ-দৌলা

Published at জুন ২৭, ২০২১

জনাব এম আনিস উদ-দৌলা, চেয়ারম্যান, এসিআই লিমিটেড।

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার ১৪২৪’ স্বর্ণপদকের জন্য মনোনীত হয়েছেন দেশের কৃষি সেক্টরের অন্যতম বৃহৎ কোম্পানি এসিআই লিমিটেড-এর চেয়ারম্যান এম আনিস উদ-দৌলা। মূলত দেশের কৃষি সম্প্রাসরনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য তাঁকে এ পুরস্কার প্রদান করা হয়। কৃষিতে শ্রমিক সংকট মোকাবিলায় কৃষি যন্ত্রপাতির প্রসার ঘটিয়ে আধুনিক কৃষি সম্প্রসারণের স্বীকৃতিসরূপ এম আনিস উদ-দৌলা, চেয়ারম্যান, এসিআই মটরস লিমিটেডকে ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় পুরষ্কার ১৪২৪’ এর স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়।

রবিবার (২৭ জুন) সকালে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার ১৪২৪ প্রদান করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি প্রধান অতিথি হিসেবে এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি।

এ প্রসঙ্গে এসিআই এগ্রিবিজনেস -এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. এফএইচ আনসারী এক প্রতিক্রিয়া এগ্রিনিউজ২৪.কম কে বলেন, আমরা সত্যিই আনন্দিত, অভিভূত এবং কৃতজ্ঞ। এসিআই লিমিটেড বরাবরই আধুনিক ও প্রযুক্তিগত কৃষি নিয়ে চিন্তা এবং উন্নয়নে সে অনুযায়ী কাজ করে আসছে। আমাদের এসিআই লিমিটেড-এর সম্মানিত চেয়ারম্যানকে ‘বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার ১৪২৪’ স্বর্ণপদকে মনোনীত করার ফলে দেশের কৃষি ও মানুষের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতা আরো বেড়ে গেলো। আমরা দারুন উৎসাহ বোধ করছি এবং কৃষি সেক্টরের আধুনিকায়নে আরো বেশি বিনিয়োগ করবো।

ড. আনসারী বলেন, দেশের কৃষিকে যান্ত্রিকীকরণের সময়োপযোগী পদক্ষেপের কারণে কোভিড-১৯ মহামারিকালেও খাদ্যের কোন অভাব হয়নি। কৃষিতে শ্রমিক সংকটের কারণে সঠিক সময় ধান ঘরে তোলা যায়নি, এমনও হয়নি। সরকারের সঠিক সিদ্ধান্তের কারণে কৃষিতে কোন বিপর্যয় দেখা যায়নি। আজকের উক্ত স্বীকৃতির কারণে এসিআই পরিবারের প্রতিটি কর্মীই উৎসাহ বোধ করছে দেশের কৃষিকে আধুনিকায়নে নিজেকে আন্তরিকভাবে আত্মনিয়োগ করার ব্যাপারে।

উল্লেখ্য, জনাব এম আনিস উদ-দৌলা দেশের কৃষিকে আধুনিকায়নের লক্ষ্যে তিনি এসিআই ব্যবসায়িক কার্যক্রম শুরু করেন।

দেশে নগরায়ণ তথা শিল্প প্রতিষ্ঠান বৃদ্ধির কারণে কৃষি শ্রমিকের অপ্রতুলতার প্রেক্ষাপটে ২০০৭ সালে এসিআই মটরস লিমিটেড প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকে কৃষির উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি ও উৎপাদন খরচ কমানোর লক্ষ্যে কৃষির যান্ত্রিকীকরণে প্রতিষ্ঠানটি অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে গুণগত মানসম্পন্ন কৃষি যন্ত্রপাতি আমদানিপূর্বক বাজারজাত করছে।

৮টি বিক্রয়কেন্দ্র তথা বিক্রয়োত্তর সেবা কেন্দ্র, ২৮টি অথরাইজড ওয়ার্কশপ, ৭১টি স্পেয়ার পার্টস সেন্টার এবং ৩০০ ডিলারের মাধ্যমে সারাদেশে কৃষি যন্ত্রপাতি বিক্রয় ও সেবা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। কৃষকের দোরগোড়ায় কৃষি যন্ত্রপাতি পৌঁছানোর লক্ষ্যে দেশি বিদেশি এনজিওসহ বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, পল্লি উন্নয়ন একাডেমী, বগুড়া ও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সাথে কাজ করছে। চাষ, সেচ, রোপণ, কর্তন এবং কর্তন পরবর্তী কার্যক্রমের সব পর্যায়ের কৃষি যন্ত্রপাতি বাজারজাত করছে। এরফলে চাষের নিবিড়তা ও উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি পেয়েছে। এসিআই মটরস লিমিটেড এ ৬০০ এর অধিক জনশক্তি নিয়োজিত আছে যা দেশের কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে সহায়ক হয়েছে। তাছাড়া কৃষক, শ্রমিক, মেকানিক, ড্রাইভার এবং উদ্যোক্তা পর্যায়ে উন্নত প্রশিক্ষণ ও ঋণ সুবিধা প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ ও স্বাবলম্বী জনগোষ্ঠী তৈরিতে ভূমিকা রাখছে। বিগত ১১ বছরে এ প্রতিষ্ঠান কৃষক পর্যায়ে ১৩০০০ এর অধিক ট্রাক্টর, ৪৫০০০ এর অধিক পাওয়ারের টিলার, ২০০০ এর অধিক রিপার, ৫০০ এর অধিক রাইস ট্রান্সপ্লান্টার, ১০০০ এর অধিক হারভেস্টারসহ পানির পাম্প, সিডার মেশিন, সোলার ড্রায়ার, ইরি কোকুন, কলাপসিবল ড্রায়ার কৃষক পর্যায়ে সরবরাহ করেছে।

This post has already been read 2747 times!