Thursday 7th of July 2022
Home / uncategorized / তৃণমূলের নেতা-কর্মীরাই খাঁটি আওয়ামী লীগ -খাদ্যমন্ত্রী

তৃণমূলের নেতা-কর্মীরাই খাঁটি আওয়ামী লীগ -খাদ্যমন্ত্রী

Published at মার্চ ৩০, ২০২১

নওগাঁ : খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, তৃনমূলে আওয়ামীলীগের যেসব নেতা-কর্মী আছে তারাই খাঁটি আওয়ামীলীগ কর্মী এবং তাদের কারনেই আওয়ামীলীগ ক্ষমতায়। মন্ত্রী বলেন, দেশের বৃহত্তর উন্নয়নের স্বার্থে, বাংলাদেশকে একটি উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্য বার বার দরকার; শেখ হাসিনা সরকার। একটি তলাবিহীন ঝুঁড়ির দেশ থেকে; নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে এবং উন্নত বাংলাদেশ তৈরিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে কাজ করে চলেছেন; আমরাও সেই দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে যাবো এবং আমরা তারই সৈনিক।

মন্ত্রী আজ মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) দুপুরে নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার নিয়ামতপুর সরকারি কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বাষিক সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, যারা মাঠ পর্যায়ে কাজ করছেন আমরা কেউ দলের বেতনভুক্ত কমচারী নয়। কিন্তু আমরা সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কর্মচারী। আমরা সেই আদর্শ নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি। আর যারা দলের মধ্যে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়, তাদেরকে নিয়ে কোন দিন দল করা যায় না।

সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, বঙ্গবন্ধুর যে স্বপ্ন ছিল সোনার বাংলা গড়ার; আমরা-আপনারা সেই সৈনিক এবং তারই সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনা পিতার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করে চলেছে আপনাদের মাধ্যমে। শেখ হাসিনা মানেই কৃষিতে ভর্তুকি, ভিজিডি, বয়স্ক ভাতা, বিধাব ভাতা, প্রতিবন্ধি ভাতা, ১০ টাকা কেজি খাদ্য বন্ধব চাল, কমিউনিটি হাসপাতালে ৩০ প্রকার ওষুধ, পাকা রাস্তাঘাট, ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, গৃহহীদের ঘর প্রদান।

মন্ত্রী বলেন, যেকোনো দুর্দিনে আমাদেরকে সাহস দেখাতে হবে। ২০১৪ সালে যখন জ্বালাও-পোড়াও শুরু হয়েছিল; তখন অনেকের মধ্যে মুরগি জ্বর ঢুকেছিলো; অনেকেই ঝিমিয়ে পড়েছিলো। দল যখন আবার ক্ষমতায় আসলো তখন মনে করলো তিন মাস ক্ষমতায় থাকবে না কিন্তু আবার আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় আসলো; এখনো ক্ষমতায় আছে এবং থাকবে। তাই আমাদেরকে ঐক্যবন্ধ থাকতে হবে; আওয়ামীলীগকে ভালোবাসতে হবে; দলে কোন কোন কোন্দল সৃষ্টি করা যাবে না। নিজের স্বার্থকে একটু বিসর্জন দিতে হবে; সবাইকে সমানভাবে ভালোবাসতে হবে; আপন করে নিতে হবে এবং দুর্নীতিমুক্ত থেকে আমাদের দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।

এ সময় সম্মেলনের উদ্বোধন করেন নওগাঁ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক এমপি আব্দুল মালেক। সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস,এম কামাল, সাংস্কৃতিক সম্পাদক ও সংসদ সদস্য অসিম কুমর উকিল, স্বাস্থ্য ও  জনসংখ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, সংসদ সদস্য ছলিম উদ্দিন তরফদারসহ জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে আবুল কালাম আজাদকে নিয়ামতপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বিপ্লবকে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয়।

This post has already been read 705 times!