Monday 17th of June 2024
Home / শিক্ষাঙ্গন / রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বিশ্ব বন্যপ্রাণি দিবস পালন

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বিশ্ব বন্যপ্রাণি দিবস পালন

Published at মার্চ ২, ২০২০

রাবি সংবাদদাতা: বাংলাদেশ লাইভস্টক সোসাইটি, সেভ দি ন্যাচার এন্ড লাইফ সোসাইটি, বেটার ন্যাচার এন্ড সোসাইটি এবং বাংলাদেশ বায়োডাইভারসিটি কনজারভেশন ফেডারেশন এর যৌথ উদ্দোগে বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী এবং বিশ্ব বন্যপ্রাণি দিবস ২০২০ কে উপলক্ষ করে  সোমবার (২ মার্চ) রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের নারিকেলবোড়ীয়াস্থ ক্যাম্পাসে ফ্রি টীকা ক্যাম্প ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুই পর্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বের কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিনামূল্যে টীকা প্রদান ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. এস এম কামরুজ্জামান।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিভাগের জৈষ্ঠ শিক্ষক ও বাংলাদেশ  লাইভস্টক সোসাইটির সভাপতি  প্রফেসর ড. মো. জালাল উদ্দিন সরদার, প্রফেসর ড. মো: আখতারুল ইসলাম, ডেপুটি চীফ ভেটেরিনারি অফিসার ড. মো. হেমায়েতুল ইসলাম, পিএইচডি ফেলো মো. ইসমাইল হক, সেভ দি নেচার এন্ড লাইফ সোসাইটির সভাপতি মো. মিজানুর রহমানসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

কর্মসূচির মাধ্যমে শতাধিক গরু ছাগলকে তড়কা ও পিপিআর রোগের টিকা এবং অসুস্থ প্রাণিসমুহকে বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদান করা হয়। এ সময় উদ্বোধকসহ উপস্থিত ব্যক্তিবর্গ গবাদিপ্রাণিকে নিয়মিত টীকা দেয়া, কৃমিনাশক প্রয়োগ ও জীব নিরাপত্তার ব্যাপারে যত্নবান হওয়ার প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে দিবসের ওপর আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রফেসর ড. মো. জালাল উদ্দিন সরদার সভাপতিত্ব করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রফেসর ড. এস এম কামরুজ্জামান এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রফেসর ড. মো. আখতারুল ইসলাম, বেটার ন্যাচার এন্ড সোসাইটির চেয়ারম্যান,  রোটারিয়ান হাসিবুল হাসান নান্নু, সেভ দি ন্যাচার এন্ড লাইফ সোসাইটির চেয়ারম্যান মো. মিজানুর রহমানসহ, ড. মো. হেমায়েতুল ইসলাম, মো. ইসমাইল হক, বিশিষ্ট নারী নেত্রী বাংলাদেশ লাইভস্টক সোসাইটির সহ সাধারণ সম্পাদক ও তুলি এন্টারপ্রাইজ এর সত্বাধিকারী মোসা. সেলিনা বেগম সহ অন্যান্য বিশিষ্ট ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথিবৃন্দ এবং সভাপতিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ তাদের আলোচনায় দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরেন এবং পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার্থে ও জলবায়ুজনিত পরিবর্তন মোকাবেলায় বন্য প্রাণি রক্ষা, বন সংরক্ষণ ও বন্য ভূমির পরিমান বৃদ্ধিতে সকলকে আন্তরিকভাবে আত্মনিয়োগ করার আহ্বান জানান। আলোচনান্তে উপস্থিত সকলে বন ও বন্য প্রাণি রক্ষার্থে সার্বিকভাবে প্রচেষ্ট চালানোর অঙ্গীকার করেন।

This post has already been read 2358 times!