Thursday 22nd of February 2024
Home / শিক্ষাঙ্গন / যৌন হয়রানির অভিযোগে বাকৃবির ৪ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

যৌন হয়রানির অভিযোগে বাকৃবির ৪ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

Published at জানুয়ারি ২১, ২০২০

যৌন হয়রানির অভিযোগে বহিষ্কৃত বাকৃবির চার শিক্ষার্থী।

আরিফুল ইসলাম (বাকৃবি সংবাদদাতা) : যৌন হয়রানির অভিযোগে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) চার শিক্ষার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। মঙ্গলবার (২১ জানুয়ারি) বিশ্বদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। এ ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উদীচী সংলগ্ন নদীর পার থেকে জব্বারের মোড়ে আসতে এক ছাত্রীর পিছু নেয় ওই চার শিক্ষার্থী। এ সময় তারা অশ্লীল কথাবার্তা বলতে থাকে। ওই ছাত্রী হাসিবুল হাসানকে বিষয়টি জানালে হাসিব যৌন হয়রানির প্রতিবাদ করে এবং জব্বারের মোড় থেকে ওই ছাত্রীকে রিক্সায় করে হলে পাঠিয়ে দেয়। এ ঘটনায় হাসিবের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে কিল-ঘুসি ও পিঠে পাথর দিয়ে আঘাত করে ওই চার শিক্ষার্থী। এক পর্যায়ে হোটেলের রান্না করার লাকড়ি দিয়ে মারধর শুরু করে। পরে হাসিবকে বিশ্ববিদ্যালয়ের হেলথ কেয়ার সেন্টারে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

সাময়িক বহিষ্কৃতরা হলেন, বিশ্বদ্যালয়ের কৃষি প্রকৌশল ও প্রযুক্তি অনুষদের শিক্ষার্থী নাসির উদ্দিন, ভেটেরিনারি অনুষদের শিক্ষার্থী মোবাশ্বের হোসেন ও শামীম রেজা এবং কৃষি অনুষদের শিক্ষার্থী সাফায়েতুল ইসলাম তন্ময়। এছাড়াও ঘটনার সম্পৃক্ততার কারণে ওই চার শিক্ষার্থী এবং ভেটেরিনারি অনুষদের শিক্ষার্থী ও ইশা খাঁ হল ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি হাসিবুল হাসানকে পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এদিকে এ ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্বদ্যালয় প্রশাসন। বিশ্বদ্যালয়ের ফসল উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এ কে এম জাকির হোসেনকে আহ্বায়ক এবং সহকারী প্রক্টর ড. মো. শফিকুল ইসলামকে সদস্যসচিব করে ওই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে রিপোর্ট প্রদানের জন্য বলা হয়েছে।

বিশ্বদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. আজহারুল হক জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছে এ ধরণের ঘটনা আশা করা যায় না। লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে তাৎক্ষণিকভাবে সাময়িক বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে পরবর্তী পদক্ষেপ  নেবে প্রশাসন।

This post has already been read 1893 times!