Friday 27th of May 2022
Home / শিক্ষাঙ্গন / রাবিতে ইন্টারসেপ্ট এর বার্ষিক সম্মেলন-২০১৯

রাবিতে ইন্টারসেপ্ট এর বার্ষিক সম্মেলন-২০১৯

Published at জানুয়ারি ১৮, ২০২০

রাবি সংবাদদাতা:  “নিরাপদ প্রাণিজ আমিষ উৎপাদনে স্টেকহোল্ডারদের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভা” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ইন্টারসেপ্ট এগ্রোভেটের বার্ষিক সম্মেলন ২০১৯ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার (১৮ জানুয়ারি) রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস্ কমপ্লেক্স কনফারেন্স রুমে উক্ত সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন মো. জাকির হোসেন।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রাবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. চৌধুরী এম জাকারিয়া, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভেটেরিনারি এন্ড এনিমেল সায়েন্সস বিভাগের প্রফেসর ড. মো. জালাল উদ্দিন সরদার, প্রফেসর ড. খন্দকার মো. মোজাফফর হোসেন, ড. মো. হেমায়েতুল ইসলাম আরিফ এবং প্রাণিসম্পদ বিভাগের চাঁপাইনবাবগঞ্জ উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. কবির উদ্দিন আহমেদ, ইন্টারসেপ্টের উপদেষ্টা কৃষিবিদ মো. আমিরুল ইসলামসহ আরো উপস্থিত ছিলেন।

সভায় প্রফেসর ড. চৌধুরী এম জাকারিয়া নিরাপদ প্রাণিজ আমিষ ও এন্টিবায়োটিকের উপর বিভিন্ন দেশের উদাহরণের মাধ্যমে সঠিক সময় সঠিক মাত্রায় ঔষধ প্রয়োগের মূল্যবান বক্তব্য তুলে ধরেন। মঞ্চে উপস্থিত প্রত্যেকেই নিরাপদ প্রাণিজ আমিষ উৎপাদনের কথা বিভিন্ন আলোচনার মাধ্যমে স্টেকহোল্ডারদের মাঝে তুলে ধরেন।

স্টেককহোল্ডারদের উদ্যেশ্যে সভাপতির বক্তব্যে জাকির হোসেন তিনি বলেন, আপনারা অন্তত ক্ষণিকের লাভের জন্য চিন্তা না করে নিরাপদ প্রাণিজ আমিষ উৎপাদন করে নিজে বাঁচুন এবং আপনার ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে বাঁচিয়ে সোনার বাংলার মানুষের জন্য সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলুন।

সভায় গ্রাহকদের মধ্য থেকে মো: মাসুদুর রহমান মাসুদ নিরাপদ প্রাণিজ আমিষ উৎপাদনে মূল্যবান বক্তব্য দেন।

উপস্থাপক মো. রেজাউল করিম ও মূল উপস্থাপিতা রুকসানা আক্তার লাকী বিভিন্ন কথার ছন্দে নিরাপদ প্রাণিজ আমিষের উপর সকলের মাঝে সুন্দরভাবে উপস্থাপনা পরিচালনা করেন।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর ড. মো. আক্তারুল ইসলাম, প্রফেসর ড. শাহ মো. আব্দুর রউফ, প্রফেসর ড. মো. গোলবার হোসেন, প্রফেসর ড. মো. সেলিম উদ্দিন, প্রাণিসম্পদের কর্মকর্তা ডা. অসিম কুমার প্রামানিক ও মো. ইসমাইল হক।

সম্মেলনে উপস্থিত বিভিন্ন জেলা হতে আগত শিক্ষক, প্রাণি চিকিৎসক, পল্লী প্রাণি চিকিৎসক, ক্রেতা-বিক্রেতা ও ভোক্তা, মার্কেটিং অফিসার, অফিস স্টাফসহ প্রায় ১৮০ জন উপস্থিত ছিলেন।

This post has already been read 1479 times!