Wednesday 18th of May 2022
Home / অন্যান্য / মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ হচ্ছে গণতন্ত্র -কৃষিমন্ত্রী

মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ হচ্ছে গণতন্ত্র -কৃষিমন্ত্রী

Published at আগস্ট ২৫, ২০১৯

আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি, এটাই মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ। আওয়ামী লীগ সুসংগঠিত দল, সবার মধ্যে ভ্রাতৃত্ব রয়েছে। যারা ১৫ ও ২১ আগস্ট এর ঘটনার সাথে জড়িত তাদের কোন ক্ষমা নয়। আমরা একটি সঠিক রাজনৈতিক দল চাই যারা সঠিকভাবে রাজনীতি করবে, সরকারের গঠণমূলক সমালোচনা করবে এবং মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ধারণ করে।

রোববার (২৫ আগস্ট) কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক রাজধানীর ৩২ নম্বরে ধানমন্ডি-হাজারিবাগ-কলাবাগান ও নিউমার্কেট থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪ তম শাহাদৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, এই আগস্টে ইতিহাসের নিকৃষ্টতম হত্যাকান্ড ঘটে। যার পিছনে ছিল স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি ও জিয়া। জিয়া ১৫ আগস্ট হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত না, তা বিএনপি কখনই প্রমান করতে পারেনি। ২০০১ সালে বিএনপি ক্ষমতায় এসে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারিদের পুরস্কৃত করেছে ভালো ভালো চাকরি, এমনকি মন্ত্রীত্বও দিয়েছে। খালেদা জিয়া এও বলেছে নিজামী, সাকা চেীধুরী ও মুজাহীদি এরা কেউ যুদ্ধাপরাধী নয়। ইভিল জিনিয়াস মওদুদ বলেছিল এ বিচারের কোন মানদন্ড নেই।

ব্যারিস্টার ফজলে নুর তাপস এমপি’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মাহবুব উল আলম হানিফ, এমপি; পানি সম্পদ উপ-মন্ত্রী এ.কে.এম এনামুল হক শামিম এমপি এবং ঢাকা মহানগর (দ:) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ।

সভাপতির বক্তব্যে ফজলে নুর তাপস বলেন, দিবালোকের মতো সত্য জিয়া বঙ্গবন্ধুর খুনি। আমি আমার পিতা মাতার বিচার চেয়ে ২১ বছর রাস্তায় রাস্তায় দাবি জানিয়েছি। তিনি জিয়াউর রহমানের মরনোত্তর বিচারের দাবি জানান, তার ফাঁসি চান।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর তিনটি অসাধারণ গুণ ছিল ত্যাগ, মানুষের প্রতি অগাধ ভালোবাসা ও অসিম সাহসিকতা। বাংলাদেশের জনগণ দেখিয়েছে বঙ্গবন্ধু তুমি আমাদের যত ভালোবাসো আমরা তার চেয়ে অনেক বেশী ভালোবাসি। তাইতো বঙ্গবন্ধুর অনুপস্থিতিতে যুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছে এদেশের মুক্তিকামি জনতা।

This post has already been read 1262 times!