Friday 20th of May 2022
Home / অন্যান্য / দেশের প্রথম জীব প্রযুক্তি ও জিন প্রকৌশল ইনস্টিটিউটের যাত্রা শুরু

দেশের প্রথম জীব প্রযুক্তি ও জিন প্রকৌশল ইনস্টিটিউটের যাত্রা শুরু

Published at এপ্রিল ১৯, ২০১৯

জীব প্রযুক্তি ও জিন প্রকৌশল বিষয়ক উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণার প্রসার ঘটিয়ে কৃষি ও শিল্প খাতে উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে মঙ্গলবার গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনস্টিটিউট অব বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং (আইবিজিই) ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এতে বিশেষায়িত উচ্চশিক্ষা, নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবন ও গবেষণার ক্ষেত্রে নতুন দিগন্তের উন্মোচন হয়েছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি অনুষদে বর্তমান বায়োটেকনোলজি বিভাগটি শিক্ষক, গবেষণাগার ও ভৌত ও কারিগরি সম্পদসমূহকে নিয়ে প্রাথমিকভাবে আইবিজিই প্রতিষ্ঠা করা হয়। এ বিভাগের জ্যেষ্ঠ শিক্ষক অধ্যাপক ড. মো. তোফাজ্জল ইসলামকে নতুন এ ইনস্টিটিউটের পরিচালক নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

ইনস্টিটিউট সূত্রে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১৬ আগস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের সুপারিশক্রমে আইবিজিই প্রতিষ্ঠার একটি অর্ডিন্যান্স ওই বছরের ২৩ আগস্ট সিন্ডিকেট সভায় অনুমোদিত হয়। গত একনেক সভায় এটি প্রতিষ্ঠাকল্পে ভৌত সুবিধাদি স্থাপনের লক্ষ্যে ১০ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়। বাংলাদেশ সরকারের রূপকল্প ২০২১-এর গুরুত্ব বিবেচনা করে প্রাথমিকভাবে আইবিজিই ৪টি ডিসিপ্লিন বা বিভাগ নিয়ে যাত্রা শুরু করেছে। এগুলো হচ্ছে, উদ্ভিদ জীবপ্রযুক্তি, মাৎস্য জীবপ্রযুক্তি, ভেটেরিনারি ও অ্যানিম্যাল জীবপ্রযুক্তি এবং অণুজীবীয় ও শিল্প বিষয়ক জীবপ্রযুক্তি।

ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. তোফাজ্জল ইসলাম জানান, দেশে টেকসই কৃষি ও শিল্পোন্নয়নে আইবিজিই গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে আশা করা যায়। তিনি বলেন, এটি প্রতিষ্ঠার ফলে দেশে জীবপ্রযুক্তি ও জিন প্রকৌশল বিষয়ে উচ্চমানসম্পন্ন এমএস এবং পিএইচডি পর্যায়ের শিক্ষা, গবেষণা এবং বহিরাঙ্গন কার্যক্রমের নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে, যা দেশে টেকসই কৃষি ও শিল্পের উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখবে। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন বিবেচনায় আইবিজিই প্রতিষ্ঠা একটি সময়োচিত পদক্ষেপ বলে তিনি মনে করেন।

This post has already been read 1984 times!