Tuesday 18th of June 2024
Home / অন্যান্য / হেকেপের ফলে বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে উচ্চশিক্ষায় গুণগত পরিবর্তন

হেকেপের ফলে বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে উচ্চশিক্ষায় গুণগত পরিবর্তন

Published at মে ২৯, ২০১৮

 ফকির শহিদুল ইসলাম (খুলনা) : খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি জীবনানন্দ দাশ একাডেমিক ভবনের সমাজবিজ্ঞান ডিসিপ্লিনে শেয়ারিং ইমপ্রুভমেন্ট প্লান শীর্ষক কর্মশালা সোমবার (২৮ মে) সকাল ১০ টায় অনুষ্ঠিত হয়। সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. মো. আব্দুল জব্বারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের গৃহীত ও বিশ্বব্যাংকের সাহায্যপুষ্ট উচ্চশিক্ষার মানোন্নয়ন প্রকল্প-হেকেপ শুরু হওয়ার পর গতকয়েক বছরের মধ্যে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে উচ্চশিক্ষায় গুণগত পরিবর্তন সূচিত হয়েছে। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়েও এ ক্ষেত্রে দৃশ্যত অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। আমরা উন্নয়নের পথেই রয়েছি। তবে আগামী ৪ বছরের জন্য প্রণীত স্ব স্ব ডিসিপ্লিনের ইমপ্রুভমেন্ট প্লান বা উন্নয়ন পরিকল্পনা উপস্থাপনে কিছু কিছু ক্ষেত্রে আন্তরিকতা ও পদ্ধতিগত সংস্কারের ওপর জোর দিয়ে তিনি বলেন, এসব ক্ষেত্রে অর্থছাড়াও ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে উন্নত করা যায়। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষার মানোন্নয়নের ক্ষেত্রে শিক্ষকদের নিরলস প্রচেষ্টার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, সমাজ বিজ্ঞান স্কুলের ডিন প্রফেসর ড. শাহনেওয়াজ নাজিমুদ্দিন আহমেদ এবং আইকিউএসির পরিচালক প্রফেসর ড. আহমেদ আহসানুজ্জামান।

কর্মশালায় চার বছর মেয়াদী ১ কোটি ৩২ লাখ ৮০ হাজার টাকার ইমপ্রæভমেন্ট প্লান উপস্থাপন করেন এস এ কমিটির সভাপতি ও ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. মো. আব্দুল জব্বার। পরে উপস্থাপিত ইমপ্রুভমেন্ট প্লানের উপর পর্যবেক্ষণ পর্বে বিশেষ অতিথি ছাড়াও আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. কামরুল হাসান তালুকদার অংশ নেন। সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের সহযোগী অধ্যাপক মোসাম্মাৎ তাসলিমা খাতুনের সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন এস এ কমিটির সদস্য সহকারী অধ্যাপক শাহীনুর আক্তার।

অনুষ্ঠানে সমাপনী বক্তব্য রাখেন, ডিসিপ্লিনের সহযোগী অধ্যাপক ও এস এ কমিটির সদস্য সঞ্জয় কুমার চন্দ। এ সময় আইকিউএসির অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. সমীর কুমার সাধু ও ডিসিপ্লিনের শিক্ষক, কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

This post has already been read 1592 times!