Monday 15th of April 2024
Home / মৎস্য / কাঁকড়া শিল্পের উন্নয়নে যৌথ গবেষণা চুক্তি

কাঁকড়া শিল্পের উন্নয়নে যৌথ গবেষণা চুক্তি

Published at মে ২৩, ২০১৮

ফকির শহিদুল ইসলাম (খুলনা) : দেশের উপকুলীয় অঞ্চলে সম্ভাবনায় কাঁকড়া শিল্পের উন্নয়নে যৌথ গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনায় মঙ্গলবার (২২ মে) বেলা সাড়ে ৩ টায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য জগদীশচন্দ্র বসু একাডেমিক ভবনের ফিসারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্স টেকনোলজি ডিসিপ্লিনের (এফএমআরটি) সাথে কেয়ার বাংলাদেশের এক সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিসারিজ এন্ড মেরিন রিসোর্স টেকলোলজি ডিসিপ্লিনের পক্ষে ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. গাউছিয়াতুর রেজা বানু এবং কেয়ার বাংলাদেশের পক্ষে সমষ্টি প্রকল্পের সিনিয়র টিম লিডার গিয়াস উদ্দিন তালুকদার। খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এফএমআরটি ডিসিপ্লিনের শিক্ষক প্রফেসর ড. গোলাম সারোয়ার এবং প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউসুফ আলী গবেষণাকর্মটি পরিচালনা করবেন।

সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে অন্যান্যাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর ড. খন্দকার আনিসুল হক, ড. এ এফ এমডি হাসানুজ্জামান, সহকারী অধ্যাপক শেখ তারেক আরাফাত, শিকদার সাইফুল ইসলামসহ সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী ও কেয়ার বাংলাদেশের সমষ্টি প্রকল্পের মনিটরিং এবং ইভালিয়েশান স্পেশিয়ালিষ্ট মো. মিজানুর রহমান, মার্কেট ডেভেলপমেন্ট স্পেশালিষ্ট সদরুজ্জামান, ভ্যালু চেইন কো-অর্ডিনেটর- আহম্মেদ সাদেকুল আমিন, সিনিয়র টেকনিক্যাল ম্যানেজার মোঃ রিয়াজুল ইসলামসহ বিভিন্ন পর্যায়ের সদস্যবৃন্দ।

গবেষণাকর্মটি অর্থায়ন করবে স্যুইস এ্যাজেন্সি ফর ডেভেলপম্যান্ট এন্ড কো-অপারেশন এর এসডিসি প্রকল্প। এই গবেষণার ফলাফল থেকে কাঁকড়া উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের সাথে সংশ্লিষ্ট সকলে এবং বাংলাদেশের কাঁকড়া উন্নয়নে একটি বিরাট সম্ভাবনার দ্বার উম্মোচিত হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করা হয়। এই শিল্পের উন্নয়ন বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে একটি বড় ধরণের ভূমিকা রাখবে বলে গবেষণা প্রকল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাই আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এছাড়া গবেষণা কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিরা আশা করছেন, ওই গবেষণার ফলাফল সরকারের উচ্চ পর্যায়ে কাঁকড়া সংরক্ষণ এবং এর যথাযথ ব্যবস্থাপনার জন্য নীতিমালা নির্ধারণে নির্ভরযোগ্য বৈজ্ঞানিক ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে।

এছাড়া কাঁকড়া শিল্পের সঙ্গে জড়িতদের প্রকৃতির ওপর অতিনির্ভরতা কমবে। হ্যাচারিতে উৎপাদিত পোনা ব্যবহারের মাধ্যমে টেকসই কাঁকড়া উৎপাদন ও বাজারজাতকরণে গবেষণাটি ব্যাপক ভ‚মিকা রাখবে। গবেষণাটিতে বাংলাদেশের কাঁকড়ার উন্নয়নে একটি বিরাট সম্ভাবনার দ্বার উম্মেচিত হবে এবং ওই শিল্প রক্ষায় একটি বড় ধরণের ভ‚মিকা রাখবে। এর আগে প্রকল্পের বিভিন্ন দিক তুল ধরে পাওয়ার পয়েন্টে উপস্থাপনা করেন প্রকল্পের প্রধান গবেষক খুবির এফএমআরটি ডিসিপ্লিনের প্রফেসর ড. গোলাম সারোয়ার ও কেয়ারের এসবিসি সমষ্টি প্রকল্পের আঞ্চলিক প্রকল্প ব্যবস্থাপক সাজেদা ইয়াছমিন।

This post has already been read 1850 times!