Monday 15th of April 2024
Home / অন্যান্য / খুলনায় ছয় লাখ গলদা চিংড়ির পোনা জব্দ

খুলনায় ছয় লাখ গলদা চিংড়ির পোনা জব্দ

Published at এপ্রিল ১৩, ২০১৮

ফকির শহিদুল ইসলাম(খুলনা): খুলনার খানজাহান আলী (রহঃ) সেতুর টোলপ্লাজা এলাকায় অভিযান চালিয়ে (৪২ পলি) প্যাকেটে ছয় লাখ ভারতীয় গলদা চিংড়ির পোনা জব্দসহ নয়জনকে আটক করেছে কোস্ট গার্ড। এ সময় আটককৃতদের চারটি মোটরসাইকেল, একটি প্রাইভেটকারসহ তাদের ব্যাবহৃত মালামাল জব্দ করে কোস্ট গার্ড। বুধবার (১১ এপ্রিল) ভোর চারটার দিকে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। পরবর্তীতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আটককৃতদের আর্থিক জরিমানা করেন।

কোস্ট গার্ড ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, গলদা চিংড়ির রেণুবাহী তিনটি হিরোহোন্ডা মোটরসাইকেল (সাতক্ষীরা-হ-১৪-৪৫২৮), একটি ডিসকভার (সাতক্ষীরা-হ-১৫-৩১৮৯) মোটরসাইকেল ও একটি প্রাইভেটকারে (ঢাকা মেট্রো-খ-১১-৭১৬৩) নয়জন যুবক সাতক্ষীরা থেকে ফকিরহাট উপজেলার ফলতিতা বাজারের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। এর মধ্যে নাম্বার প্লেট বিহীন হিরোহোন্ডা মোটরসাইকেল দু’টি। এ চক্রটি রূপসা খানজাহান আলী সেতুর টোলপ্লাজা এলাকায় পৌঁছালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোস্ট গার্ড নয়জনকে আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৪২ পলি (৬ লাখ ৩০ হাজার) গলদা পোনা জব্দ করা হয়। যার বর্তমান বাজার মূল্য ৬ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

আটককৃতরা হলেন, সাতক্ষীরা জেলার দেবহাটার সুবর্ণবাদ এলাকার প্রভাষ চন্দ্র মন্ডলের ছেলে অনুপ কুমার মন্ডল (৩২), বহেরা এলাকার মো. আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে প্রাইভেটকার চালক মো. বেল্লাল হোসেন (২২), কুলিয়া এলাকার গোলাম মোহাম্মদ সরদারের ছেলে রবিউল ইসলাম (৩৪), একই এলাকার মো. মশিরাফুল ইলামের ছেলে মো. আবু হানিফ (২০), মো. রেজাউল ইসলামের ছেলে মো. ফারুক হোসেন (২৬), কালিয়া ডাঙ্গা এলাকা মো. ফরিদ মোল্লার ছেলে মো. মনির ইসলাম (২২), খলিসাখালী এলাকার মো. হাকিম মোড়লের ছেলে মো. হাসান মোড়ল (৩২) ও বিধান সরকার।

পরবর্তী ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও রূপসা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. ইলিয়াছুর রহমান আটক নয়জনকে মোট ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন এবং তাদের ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দেন। এসময় উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা সরদার জুলফিকার আলী, কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোন রূপসা স্টেশনের কন্টিনজেন্ট কামান্ডার (সিসি) মো. তাহেরুল ইসলামসহ কোস্ট গার্ড সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। পরে জব্দকরা চিংড়ি পোনা রূপসা নদীতে অবমুক্ত করা হয়। উল্লেখ্য, এ চক্রটি দীর্ঘদির ধরে অবৈধভাবে এ ধরনের কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে বলে কোস্ট গার্ড সদস্যরা জানান ।

This post has already been read 2495 times!