Saturday 1st of October 2022
Home / অন্যান্য / ভূঞাপুরে কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে কৃষি উপকরণ বিতরণ

ভূঞাপুরে কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে কৃষি উপকরণ বিতরণ

Published at নভেম্বর ১৫, ২০১৭

টাঙ্গাইলর ভূঞাপুরে কৃষকের মাঝে বিভিন্ন ধরনের কৃষি উপকরণ বিনামূল্যে বিতরণের একাংশ।

একিউ রাসেল, গোপালপুর (টাঙ্গাইল):
মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে কৃষি প্রণোদনা ও পুনর্বাসন কর্মসূচির আওতায় ৪ হাজার ২২ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিভিন্ন ধরনের কৃষি উপকরণ বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। বিতরণকৃত কৃষি উপকরণের মধ্যে রয়েছে উচ্চ ফলনশীল ভূট্টা, সরিষা, মাসকালাই, চীনা বাদাম, খেসারী কলাই, বোরা ধান বীজ, তিল ও বিটি বেগুন বীজ এবং বিভিন্ন প্রকার রাসায়নিক সার।

ভূঞাপুর উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে উপজেলায় কৃষি প্রণোদনা ও পূর্ণবাসন কর্মসূচীর আওতায় ৪হাজার ২২জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিভিন্ন ধরনের কৃষি উপকরণ বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে।

প্রণোদনা হিসেবে ২হাজার ৭২২জন কৃষকের মধ্যে ৯৫০জন পেয়েছে ১ বিঘা করে জমির জন্য ২কেজি উচ্চ ফলনশীল ভূট্টা বীজ, ২০কেজি ডিএপি ও ১০ কেজি এমওপি সার। ৮৫০ জন কৃষক পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ১কেজি উচ্চ ফলনশীল সরিষা বীজ, ২০কেজি ডিএপি ও ১০কেজি এমওপি সার। ৫০০জন কৃষক পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ১০কেজি উচ্চ ফলনশীল মাসকালাই বীজ, ১০কেজি ডিএপি ও ৫ কেজি এমওপি সার। ১২০জন কৃষক পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ১০কেজি উচ্চ ফলনশীল চীনা বাদাম, ১০কেজি ডিএপি ও ৫ কেজি এমওপি সার। ৩০০জন কৃষক পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ১কেজি তিল, ২০ কেজি ডিএপি ও ১০কেজি এমওপি সার এবং ২ জন কৃষক পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ১০গ্রাম বিটি বেগুন বীজ, ১৫ কেজি ডিএপি ও ১৫কেজি এমওপি সার।

এছাড়া কৃষি পূনর্বাসনের আওতায় ১হাজার ৩০০জন কৃষকের মধ্যে ১০০জন পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ২কেজি উচ্চ ফলনশীল ভূট্টা, ২০কেজি ডিএপি ও ১০কেজি এমওপি সার। ৩০০জন কৃষক পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ১কেজি উচ্চ ফলনশীল সরিষা, ২০কেজি ডিএপি ও ১০কেজি এমওপি সার। ১২০জন কৃষক পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ১৫কেজি উচ্চ ফলনশীল চীনা বাদাম, ৫ কেজি ডিএপি ও ১০কেজি এমওপি সার। ২৫০জন কৃষক পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ৮ কেজি উচ্চ ফলনশীল খেসারী কলাই, ১০কেজি ডিএপি ও ১০কেজি এমওপি সার। ৪৫০জন কৃষক পেয়েছে ১বিঘা করে জমির জন্য ৫কেজি উচ্চ ফলনশীল বোরো ধান বীজ, ২০কেজি ডিএপি ও ১০কেজি এমওপি সার। পূর্নবাসনের প্রত্যেক কৃষককে ১০০ গ্রাম করে লাল শাকের বীজ, ১০০গ্রাম মুলা, ১০০গ্রাম পালং শাক ও ৫০গ্রাম বারমাসি কুমড়া বীজ বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়।

ভূঞাপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. জিয়াউর রহমান জানান, কৃষকদের কৃষি কাজে উৎসাহিত করার জন্য কৃষি প্রনোদনা ও বন্যার ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে ওঠার জন্য কৃষি পূর্ণবাসনের আওতায় মোট ৪হাজার ২২জন কৃষককে বিভিন্ন জাতের উচ্চ ফলনশীল বীজ ও রাসায়নিক সার বিনামূল্যে দেয়া হয়েছে।

This post has already been read 1736 times!