Tuesday 9th of August 2022
Home / মৎস্য / তেলাপিয়ায় ‘ল্যাক ভাইরাস’ অপপ্রচার এবং চক্রান্ত -বিএফআরআই মহাপরিচালক

তেলাপিয়ায় ‘ল্যাক ভাইরাস’ অপপ্রচার এবং চক্রান্ত -বিএফআরআই মহাপরিচালক

Published at জুলাই ২২, ২০১৭

BFRI Pic-1 (2)মো. আরিফুল ইসলাম, বাকৃবি:
গরীবের মাছ হিসেবে খ্যাত ’তেলাপিয়া’ নিয়ে মহল বিশেষের অপপ্রচারে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বিএফআরআই) মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদ। তিনি বলেছেন, তেলাপিয়া এখন ‘গ্লোবালফিস’। বিশ্বের মধ্যে তেলাপিয়া মাছের উৎপাদনে বাংলাদেশ এখন চতুর্থ স্থানে রয়েছে। আর এশিয়ার মধ্যে রয়েছে তৃতীয় স্থানে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশে তেলাপিয়া মাছের উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ ব্যাহত করতে একটি মহল উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তেলাপিয়া ‘ল্যাক ভাইরাস’এ আক্রান্ত বলে ফেইসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার চালিয়ে ভোক্তাদের বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করছে। অথচ তেলাপিয়া মাছে এখনো ‘লেগ ভাইরাস’র কোনো রকম অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি বলে দাবি করেন তিনি।

‘মাছ চাষে গড়বো দেশ, বদলে দেবো বাংলাদেশ’ এ শ্লোগানকে সামনে রেখে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০১৭ উপলক্ষে শুক্রবার (২১ জুলাই) বিকেলে বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বিএফআরআই) উদ্যোগে ময়মনসিংহের সার্কিট হাউজ প্রাঙ্গনে তিন দিনব্যাপী (২১-২৩ জুলাই) মৎস্য প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএফআরআই মিলনায়তনে আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকল্পনা ও উন্নয়ন শাখার পরিচালক এবং মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের সাবেক ডিন প্রফেসর ড. মনোরঞ্জন দাস। আরো বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মো. মোজাম্মেল হক, মৎস্য অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. আলেকুজ্জামান, বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক মহাপরিচালক মো. জাহের, পরিচালক ড. খলিলুর রহমান, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকোয়াকালচার বিভাগের প্রফেসর ড. মো. মাহফুজুল হক, বাংলাদেশ হ্যাচারি অনার্স অ্যসোসিয়েশনের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন ও তেলাপিয়া ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক নিতিশ পন্ডিত প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা দেশের মৎস্যসম্পদের বিভিন্ন সম্ভাবনা ও সমস্যার কথা তুলে ধরেন। তারা বলেন, দেশের আমিষের ৬০ ভাগ চাহিদা পূরণকারী উৎস মৎস্য খাতের উন্নয়নে এবং মৎস্যচাষিদের লাভবান করতে হলে বিদেশে মাছ ও মাছজাত পণ্য রফতানি করতে হবে। পাঙ্গাস, তেলাপিয়াসহ অন্যান্য চাষকৃত মাছ রফতানি না করলে  অধিক উৎপাদন ব্যয় ও নি¤œ বাজার মূল্যের ফলে প্রান্তিক পর্যায়ে চাষিরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। সরকারকে এ বিষয়ে আরো আন্তরিক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তাঁরা। এছাড়াও তেলাপিয়া মাছ সম্পর্কে বিভ্রান্ত না হওয়ারও পরামর্শ দেন বক্তারা।

This post has already been read 3670 times!